logo
  • ঢাকা বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

স্পোর্টস ডেস্ক, আরটিভি নিউজ

  ৩০ অক্টোবর ২০২০, ১৯:০০
আপডেট : ৩০ অক্টোবর ২০২০, ২২:৩৭

জন্মদিনে যে উপহার চাইলেন ম্যারাডোনা

Argentina v England 1986 FIFA World Cup, Diego Maradona
ছবি- সংগৃহীত
প্রায় ৬০ মিটার দূর থেকে বল নিয়ে এগিয়ে প্রতিপক্ষের পাঁচজনকে বোকা বানিয়ে এক গোল করেছিলেন ডিয়োগো ম্যারাডোনা। ফিফা ডট কমে গোলটিকে শতাব্দীর সেরা গোল হিসাবে নির্বাচিত করে ভক্তরা। ১৯৮৬ সালের বিশ্বকাপের ইংলিশদের বিরুদ্ধে ওই ম্যাচেই বিতর্কিত এক গোল করেছিলেন তিনি। যাকে ‘হ্যান্ড অব গড’ বলে আখ্যায়িত করা হয়। ৩৪ বছর আগে হাত দিয়ে করা ওই গোলটি নিয়ে নানা আলোচনা থাকলেও আক্ষেপ নেই আর্জেন্টাইন কিংবদন্তির।

শুক্রবার ৬০তম জন্মদিন ম্যারাডোনার। ১৯৬০ সালের এই এই দিনে আর্জেন্টিনার রাজধানী বুয়েন্স আয়ার্সের লানুসে জন্ম নেন তিনি। 

১৯৭৫ সালে আর্জেন্টিনোস জুনিয়র্স দিয়ে পেশাদার ফুটবল শুরু তার। বোকা জুনিয়র্স, বার্সালোনা, নাপোলি, সেভিয়া এবং নিওয়েলস ওল্ড বয়েজের হয়ে খেলেছেন। ১৯৯৭ সালে বোকা জুনিয়র্সে এসে শেষ হয় দীর্ঘ ক্যারিয়ার। 

আর্জেন্টিনার হয়ে ১৯৭৭ সালে প্রথমবার খেলতে নামেন ম্যারাডোনা। পরের বছর ঘরের মাঠে ১৭ বছর বয়সী এই তরুণকে বিশ্বকাপ স্কোয়াডে রাখা হয়নি। 

১৯৮২ সালে তারকা খেতাব পেয়ে যাওয়া ম্যারাডোনা আহামরি কিছু করতে পারেননি। চার বছর পর পরিণত ম্যারাডোনার প্রায় একক পারফরম্যান্সেই শিরোপা লাভ করে আর্জেন্টিনা।

ছিয়াশি বিশ্বকাপে কোয়ার্টার ফাইনালে বলে ১১বার পা দিয়ে দিয়ে স্পর্শ করে ইংলিশ রক্ষণভাগের খেলোয়াড় পিটার বেয়ার্ডসলে, স্টিভ হজ, পেটার রেইড, টেরি বুচার ও টেরি ফেন উইককে ড্রিবিলিং দিয়ে পরাস্ত করেন। সব শেষে গোল রক্ষক পিটার শিল্টনকেও পাত্তা না দিয়ে তুলে নেন শতাব্দির সেরা গোলটি।

তার কিছুক্ষণ আগেই অবশ্য বাম-হাত দিয়ে ইতিহাসের অন্যতম বিতর্কিত গোলটি করেন ম্যারাডোনা। যা নিজেই স্বীকার করেছেন।

সেরাদের সেরা এই ফুটবলারকে সম্প্রতি ম্যাগাজিন ফ্রান্স ফুটবলের পক্ষ থেকে প্রশ্ন করা হয়েছিল, জন্মদিন উপলক্ষে কি উপহার চান? 

ম্যারাডোনা বলেন, ‘ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে আরেকটি গোল করার স্বপ্ন দেখি। এবার ডান হাত দিয়ে।’

আশির দশকে ফকল্যান্ড যুদ্ধের জড়িয়েছিল ইংল্যন্ড-আর্জেন্টিনা। তাই ওই ম্যাচটিতে ছিল বাড়তি উত্তেজনা। কথিত আছে ২-১ এ জয় তুলে ইংলিশদের বিরুদ্ধে প্রতিশোধ তুলেছিল আর্জেন্টাইনরা। যার মূল নায়ক ছিলেন ম্যারাডোনাই।

ওয়াই

RTVPLUS