logo
  • ঢাকা সোমবার, ২৫ জানুয়ারি ২০২১, ১১ মাঘ ১৪২৭

যে কারণে ৬ মাস কারাদণ্ডের মুখে রিয়াল তারকা

Luka Jović  Sofija Milosevic,
লুকা জভিচের সঙ্গে সোফিজা মিলোসেভিচ
করোনাভাইরাস থেকে বাঁচতে সারা বিশ্বের মতো সার্বিয়াও চলছিল লক ডাউন। স্পেন থেকে নিজ দেশে উড়ে গিয়েছিলেন রিয়াল মাদ্রিদের তারকা লুকা জোভিচ। সার্ভিয়ান কর্তৃপক্ষের নিয়ম অনুযায়ী দুই সপ্তাহের কোয়ারেন্টিন করতে হতো জোভিচকে। তা অমান্য করে বান্ধবী সোফিজা মিলোসেভিচের সঙ্গে দেখা করে বিপাকে পড়তে হয়েছিল ২২ বছর বয়সী এই স্ট্রাইকারকে।

৩০ বছর বয়সী সোফিজা সার্বিয়ার নামী মডেল। কাজ করেছেন দেশটির বড় বড় সব ডিজাইনারদের সঙ্গে। ডিজেল, জার্মি স্কটের মতো ব্রান্ডের ফ্যাশন শোয়ে মিলান, নিউইয়র্কে হাটার মতো অভিজ্ঞতা রয়েছে তার।

২০১৯ সালে সার্বিয়া জাতীয় দলের স্ট্রাইকার জোভিচের সঙ্গে সর্ম্পকে জড়ান সোফিজা। এরপর থেকে দুজন এক সঙ্গেই ছিলেন। করোনার প্রকোপ শুরু হওয়ার পর জোভিচের তারহুড়া করে বান্ধবীর কাছে যেতে চান। তার কারণ হচ্ছে সোফিজা সন্তানসম্ভবা। 

অভিযোগ উঠে করোনার ব্যাপক প্রকোপ থাকাকালীন জোভিচ-সোফিজা রাজধানী বেলগ্রেডের বিভিন্ন জায়গায় ঘুরেছেন। ছবি দেখে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক সমালোচনা শুরু হয়। এমনকি দেশটির প্রধানমন্ত্রী এনা ব্রানবিকও বিরক্ত হয়ে বিষয়টি নিয়ে কথা বলেন।

জোভিকের বাবা মিলান অবশ্য ছেলের পক্ষে সাফাই গেয়েছেন। তার মতে স্পেন-সার্বিয়া দুই দেশে করোনা পরীক্ষা করার পর নেগেটিভ আসে। তাই সন্তানসম্ভবা সোফিজার কাছে যান তিনি। যেই ছবিগুলো ভাইরাল হয়েছে, সেগুলো বেলগ্রেডের নয় মাদ্রিদে তোলা বলে জানিয়েছেন জোভিচের বাবা।

এরইমধ্যে করোনা প্রটোকল না মানার দায়ে ৩০ হাজার ইউরো বা ত্রিশ লাখ টাকার বেশি জরিমানা দিয়েছেন জোভিচ। যদিও আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল না থাকায় সার্বিয়ান প্রসিকিউটার ছয় মাসের জেল দিতে আদালতের আবেদন করবেন বলে জানানো হয়েছে।

২০১৯ মৌসুমে আইনট্রাখট ফ্রাংকফুট থেকে যোগ দেন রিয়াল মাদ্রিদে। রেড স্টার বেলগ্রেড ও বেনফিকার হয়ে খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে জোভিচের। ২০১৮ সালে জাতীয় দলে অভিষেক হয়ে এই পর্যন্ত ৮ ম্যাচ খেলেছেন তিনি।

ওয়াই

RTV Drama
RTVPLUS