logo
  • ঢাকা বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

তিন বছর পর বাড়িতে পূজা করছি: বিশ্বনাথ

|  ২৩ অক্টোবর ২০২০, ১৯:২৮ | আপডেট : ২৩ অক্টোবর ২০২০, ২৩:২০
Bishwanath Ghosh bangladesh VS NEPAL
পূজার সাজে স্ত্রী চৈতির সঙ্গে তারকা ফুটবলার বিশ্বনাথ ঘোষ
চলতি বছরের শুরুতে বিয়ে করেছেন বিশ্বনাথ ঘোষ। বিয়ের পর স্ত্রী চৈতির সঙ্গে প্রথম পূজা উদযাপন করছেন। যদিও জাতীয় দলের ডাকে তারকা ফুটবলারকে ফিরে যেতে হতো ক্যাম্পে। ১৩ ও ১৭ নভেম্বর দুটি আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে অংশ নিচ্ছে বাংলাদেশ। যেখানে প্রতিপক্ষ হিসেবে থাকছে নেপাল। ৩৬ জনের প্রাথমিক দলে নাম রয়েছে বসুন্ধরা কিংসের এই ডিফেন্ডারের। ধারণা করা হচ্ছিল, শুক্রবারই জাতীয় দলের ক্যাম্পে যোগ দিতে হবে বিশ্বনাথকে। শেষ পর্যন্ত আরও চারদিন সময় পেলেন। পূজা শেষ করে আগামী ২৭ অক্টোবর যোগ দিচ্ছেন ক্যাম্পে।

২০১৮ সালে লাল-সবুজের জার্সিতে অভিষেকের পর নৈপুণ্যের জন্য মূল একাদশেই খেলে আসছেন ২৩ বছর বয়সী বিশ্বনাথ। কিংসদের সঙ্গে কঠোর অনুশীলনে ছিলেন। পূজার ছুটি দীর্ঘদিন পর বাড়ি ফিরতেই আবারও ঢাকায় আসতে হচ্ছে তাকে।

প্রায় দুই মাস ধরে ক্লাবের হয়ে অনুশীলন করেছেন বিশ্বনাথসহ অন্যরা। বসুন্ধরা কর্তৃপক্ষ জাতীয় দলে খেলোয়াড় পাঠাতে আপত্তি করেছিল। যদিও ন্যাশনাল টিমস কমিটির চেয়ারম্যান কাজী নাবিল আহমেদ ও বসুন্ধরা কিংসের সভাপতি ইমরুল হাসানের মধ্যে আলোচনার মাধ্যমে বিষয়টির মীমাংসা হয়েছে। 

‘খেলা চলে আসলে আমাদের কিছু করার থাকে না। যেহেতু আমরা পেশাদার ফুটবলার সেহেতু ডাক পেলেই ছুটে যেতে হয়। ত্যাগ করাটাই আমাদের জন্য নিয়ম হয়ে দাঁড়িয়েছে। ক্লাব ৩০ তারিখ পর্যন্ত ছুটি দিয়েছিল। বাড়ি ফেরার পর জাতীয় দলের খেলার ডাক পড়েছে।’ আরটিভি নিউজকে বলছিলেন বিশ্বনাথ।

কয়েকদিন আগেই জন্মভূমি টাঙ্গাইলে নতুন বাড়িতে উঠেছেন। গৃহ প্রবেশের ছবি ফেসবুকে পোস্ট করেছিলেন তার স্ত্রী চৈতি ঘোষ। নতুন বাড়িতে ওঠা আর পূজা সব মিলিয়ে বেশ ভালোই সময় কাটছিল তাদের। দল থেকে ডাক পাওয়ায় ফিরে যেতে হবে তার স্বামীকে।

চৈতি বলেন, ‘পূজা শেষ না হতেই ফিরতে হচ্ছে তাকে। খেলার জন্য বেশিরভাগ সময় বাইরে থাকতে হয়। পরিবারের সবাই এগুলো সহ্য করেছে। ভেবেছিলাম পূজার সময়টাও পাওয়া যাবে না। কিন্তু সৌভাগ্যক্রমে এক সঙ্গেই উৎসব পালন করতে পারছি।’

এদিকে বিশ্বনাথ জানিয়েছেন, অন্যবারের তুলনায় করোনার কারণে এবারের পূজার চিত্রটা ভিন্ন।

তিনি বলেন, ‘কোভিড-নাইনটিনের জন্য আমেজটা আগের মতো নেই। পরিবারের সঙ্গে আছি তাই সময়টা বেশ ভালোই কাটছে। গেল তিন বছর ধরে পরিবারের সঙ্গে পূজা করতে পারিনি। এবার ক্লাব থেকে ছুটি মিলেছিল। বাড়িতে চলে এসেছি। সুযোগ ছিল সময় কাটানোর। তবে দেশের ডাকে এখন ফিরতে হচ্ছে। একটু খারাপ লাগে। তবে পেশাদার ফুটবলার হিসেবে এটা স্বাভাবিক। পরিবারের সবার জন্য পূজার শপিং করে ফেলেছি। বিয়ের পর প্রথম পূজা। একটু ভিন্ন রকম পরিকল্পনা ছিল।’

২০১৮ সালে নেপালের বিরুদ্ধে ঘরের মাঠে হারতে হয়েছিল বাংলাদেশকে। বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে সাফ ফুটবলে ২-১ গোলে হেরে মাঠ ছাড়ে স্বাগতিকরা। বিশ্ব মনে করেন বাংলাদেশের মতো নেপালও খেলার বাইরে। তাই লড়াইটা বেশ জমবে।

‘নেপাল আমাদের প্রতিবেশী ও প্রতিদ্বন্দ্বী। দীর্ঘদিন ধরে তারাও আমাদের মতো মাঠের বাইরে। যতটুকু জানি, তাদের কোচ এখন সুইডেনে অবস্থান করছেন। পূজার পর তাদের ক্যাম্প শুরু হবে। তাই আশা করি তাদের বিরুদ্ধে ভালো কিছু করা সম্ভব হবে। সব থেকে বড় বিষয় হচ্ছে, আমরা খেলায় ফিরছি।’

দীর্ঘদিন ম্যাচ খেলা হয়নি। তবে জাতীয় দল ও বসুন্ধরা কিংসের পক্ষ থেকে যে নির্দেশনা দেয়া হয়েছিল সেগুলো পালন করেছেন বিশ্বনাথ।

তার কথায়, ‘করোনা যখন শুরু হলো তখন থেকেই হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ কোচরা বিভিন্ন বিষয়ে আমাদের বুঝিয়ে দিয়েছে। সেগুলো পালন করার চেষ্টা করেছি। এরপর ক্লাবের সঙ্গে যোগ দিয়ে অনুশীলন করেছি। এখন অপেক্ষা মাঠে নামার। আসলে আন্তর্জাতিক ম্যাচে দেশের জার্সিতে মাঠে নামার মতো অনুভূতি প্রকাশ করা যায় না।’

জয় তুলে নেয়ার উদ্দেশ্যে খেলোয়াড় হিসেবে মাঠে নামতে চাইছেন এই ডিফেন্ডার। 

বিশ্বনাথ বলেন, ‘দীর্ঘদিন পর মাঠে ফিরতে পেরে অনেক খুশি। প্রতিপক্ষ যেই হোক সব সময় জয় তুলে নেয়াটাই লক্ষ্য থাকে।’

ওয়াই/পি

RTVPLUS
bangal
corona
দেশ আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ৪৫১৯৯০ ৩৬৬৮৭৭ ৬৪৪৮
বিশ্ব ৬০৩২৫২৬৯ ৪১৭২৯৫৩৩ ১৪১৮৯৯২
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • খেলা এর সর্বশেষ
  • খেলা এর পাঠক প্রিয়