logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ০৭ এপ্রিল ২০২০, ২৪ চৈত্র ১৪২৬

করোনা আপডেট

  •     গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে, আক্রান্ত হয়েছে ৩৫ জন, এ নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা ১২ মোট আক্রান্ত ১২৩, তবে গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত কেউই সুস্থ হননি: আইইডিসিআর। ভারতে ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৩২, মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ১১৮ জনে, আক্রান্ত মোট ৪২৯৮: স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। বিশ্বব্যাপী মৃত্যু ৬৯ হাজার ৪৫৬ জন এবং আক্রান্তের ১২ লাখ ৭৩ হাজার ৭০৯ জন, সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ২ লাখ ৬২ হাজার ৪৮২ জন। সবচেয়ে বেশি মৃত্যু ইতালিতে ১৫ হাজার ৮৮৭, আক্রান্ত এক লাখ ২৮ হাজার ৯৩৮ জন, দ্বিতীয় অবস্থানে স্পেন। এখন পর্যন্ত মৃত্যু ১২ হাজার ৬৪১ জনের এবং আক্রান্ত ১ লাখ ৩১ হাজার ৬৪৬ জন: ওয়ার্ল্ডমিটার।

হিলিতে আমের মুকুলের মৌ মৌ ঘ্রাণে বিমোহিত চারদিক

আব্দুল আজিজ, হিলি
|  ০১ মার্চ ২০২০, ১৫:১৪
হিলিতে আমের মুকুলের মৌ মৌ ঘ্রাণে বিমোহিত চারদিক
হিলিতে আমের মুকুলের মৌ মৌ ঘ্রাণে বিমোহিত চারদিক

দিনাজপুরের হিলিতে আমের মুকুলের সুমিষ্ট ঘ্রাণে মৌ মৌ করছে প্রকৃতি। এ যেন মুকুলের স্বর্গ রাজ্য। মুকুলের মৌ মৌ ঘ্রাণ বিমোহিত করছে সকলের মনকে। শীতের প্রকোপ এবার কিছুটা কম থাকায় বেশ আগে থেকেই মুকুলে মুকুলে শোভা পাচ্ছে পুরো উপজেলার আম গাছগুলো।

মৌমাছির গুনগুন শব্দে ফুলের রেণু থেকে মধু সংগ্রহ আর প্রজাপতির এক ফুল থেকে আরেক ফুলে পদার্পণ এ অপরূপ প্রাকৃতিক দৃশ্য সত্যিই যেন মনোমুগ্ধকর এক মূহুর্ত।

ছয় ঋতুর এই বাংলাদেশে পাতাঝড়া ষড়ঋতুর রাজা বসন্ত। আবহমান বাংলার সৌন্দর্যের রাজা বলে পরিচিত গ্রীষ্মকাল। ফাগুনের ছোঁয়ায় পলাশ-শিমুলের বনে লেগেছে আগুন রাঙা ফুলের মেলা। শীতের জড়তা কাটিয়ে কোকিলের সেই সুমধুর কুহুতানে মাতাল করতে আবারও ফিরে এলো বাংলার বুক মাতাল করতে ঋতুরাজ বসন্ত।

তেমনি নতুন সাজে যেন সেজেছে হাকিমপুর (হিলি) উপজেলার আম বাগানগুলো। আমের মুকুলে ভরপুর আর ঘ্রাণে হাকিমপুর উপজেলার সর্বত্র জানান দিচ্ছে বসন্তের আগমনী বার্তা। শোভা ছড়াচ্ছে নিজস্ব মহিমায়। মুকুলে মুকুলে ভরে গেছে বাগানগুলোর প্রায় ৯০ শতাংশ গাছ।

বাগান মালিক, আমচাষিরা আশা করছেন বড় ধরনের কোনো প্রাকৃতিক দুর্যোগ না হলে এবং আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে এ উপজেলায় আমের বাম্পার ফলন হবে।
আমচাষি ও বাগান মালিকরা বাগানে পরিচর্যা নিয়ে এখন ব্যস্ত সময় পার করছেন। অবশ্য গাছে মুকুল আশার আগে থেকেই গাছের পরিচর্যা করে আসছেন তারা। যাতে করে গাছে মুকুল বা গুটি বাঁধার সময় কোনো সমস্যার সৃষ্টি না হয়। সারিবদ্ধ গাছে ভরপুর আমের মুকুল যেন শোভা ছড়াচ্ছে তার নিজস্ব মহিমায়।

হাকিমপুর উপজেলা ফজলি, খিরসা, মোহনা, রাজভোগ, রূপালী, গোপালভোগসহ অন্যান্য জাতের আম চাষের উপযুক্ত হওয়ায় চাষিরা নিজ উদ্যোগে প্রথমে জেলার বিভিন্ন স্থান থেকে চারা সংগ্রহ করে আমের বাগান সৃজন করলেও বর্তমানে তারা নিজেরাই চারা উৎপাদন করে তাদের ভাগ্য উন্নয়নের জন্য প্রাণপণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। সুফলও পেয়েছেন অনেকেই।

এ বিষয়ে হাকিমপুর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শামীমা নাজনীন জানান, এ উপজেলাতে ৪৭ হেক্টর জমিতে মোট ১৪৫টি আম বাগান রয়েছে। এ উপজেলার বিরাজমান আবহাওয়া ও মাটি আম চাষের জন্য বিশেষ উপযোগী। এ বছর আবহাওয়া অনুকূল থাকায় আমের উৎপাদন গত বছরের তুলনায় অনেক বেশি পাওয়ার ব্যাপারে আশাবাদী। কৃষি বিভাগের পক্ষ থেকে আম চাষিদের যথাযথ পরামর্শ ও পরিচর্যার বিষয়ে দিক নির্দেশনা দেওয়া হচ্ছে।

এজে

corona
দেশ আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ ১২৩ ৩৩ ১২
বিশ্ব ১৩০৯৪৩৯ ২৭৩৫৪৬ ৭০৭৯৮
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • বিশেষ প্রতিবেদন এর সর্বশেষ
  • বিশেষ প্রতিবেদন এর পাঠক প্রিয়