logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ২১ জানুয়ারি ২০২০, ৮ মাঘ ১৪২৭

কোনও কিছুই তোয়াক্কা করেন না ইটভাটার মালিকরা (ভিডিও)

নেত্রকোনা উত্তর প্রতিনিধি, আরটিভি অনলাইন
|  ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯, ২০:৩৪ | আপডেট : ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৮:৫৩
প্রশাসনের নিয়মনীতি তোয়াক্কা না করেই নেত্রকোনায় গড়ে উঠেছে অসংখ্য ইটভাটা। ফলে নষ্ট হচ্ছে ফসলি জমি, উজাড় হচ্ছে বনাঞ্চল, হুমকির মধ্যে পড়েছে মানুষের স্বাস্থ্য। এসব ভাটার মালিক স্থানীয়ভাবে প্রভাবশালী হওয়ায় প্রশাসনও অনেকটা নিশ্চুপ। 

দীর্ঘদিন ধরেই নেত্রকোনার বিভিন্ন উপজেলায় আবাদি জমি নষ্ট করে স্থাপন করা হয়েছে অসংখ্য ইটভাটা। আবার বন উজাড় করে কাঠ ব্যবহৃত হচ্ছে ইট তৈরিতে। পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্রের নিয়মানুযায়ী প্রথম শ্রেণির দু-একটি ইটভাটায় কয়লা ব্যবহার হলেও তেমন কোনও তোয়াক্কাই করেন না অনেক ভাটার মালিক। 

পরিবেশ অধিদপ্তরের তথ্যমতে, জেলায় ৩৬টির ছাড়পত্র দেয়া হলেও ভাটা রয়েছে অর্ধশতাধিকেরও বেশী। স্থানীয় এবং রাজনৈতিক প্রভাব দেখিয়ে এক শ্রেণির অবৈধ চক্র, নেত্রকোনা সদর, পূর্বধলা, কলমাকান্দাসহ বিভিন্ন উপজেলায় ভাটাগুলো নিয়ন্ত্রণ করছে। 

এদিকে আবারও নতুন করে ইটভাটা অনুমোদনে বিশেষ সতর্কতার পাশাপাশি অনিয়ম বন্ধে প্রশাসনের নজরদারি বাড়ানো হবে বলে জানিয়েছে নেত্রকোনার পরিবেশ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মিজানুর রহমান।   

জেলা প্রশাসক মঈনউল ইসলাম বলেন, এ বিষয়ে আর কোন ছাড় নয়, সতর্ক অবস্থানে আছে জেলা প্রশাসনও।

স্থানীয় পরিবেশবাদী ও সমাজ বিশ্লেষকরা বলছেন, পরিবেশ এবং প্রতিবেশের সুরক্ষায় শক্ত হাতে ইটভাটার নিয়ন্ত্রণ এখন সময়ের দাবি।

এসএস

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • বিশেষ প্রতিবেদন এর সর্বশেষ
  • বিশেষ প্রতিবেদন এর পাঠক প্রিয়