Mir cement
logo
  • ঢাকা বুধবার, ২৫ মে ২০২২, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

২০২২ সালে অর্থনীতিতে যত চ্যালেঞ্জ (ভিডিও)

২০২২ সাল হতে যাচ্ছে অর্থনীতির জন্য একটি চ্যালেঞ্জের বছর। বিশ্লেষকদের চোখে, বছরের সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হবে সাধারণ মানুষের জন্য নিত্যপণ্যের দাম সহনীয় রেখে মূল্যস্ফীতি মোকাবেলা করা। এছাড়া নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টি, রাজস্ব বৃদ্ধি, সুশাসন নিশ্চিত করে বিনিয়োগের সঠিক ব্যবহারও বড় চ্যালেঞ্জ। তবে মেগা প্রকল্পগুলোর কাজ দ্রুত শেষ করার পাশাপাশি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলো চালু করা গেলে অর্থনীতিতে চমকও দেখা যেতে পারে।

তথ্য মতে, বছরের নতুন ‍সূর্য উঠেছে করোনার ভয়কে অনেকটাই জয়ের পাশাপাশি লন্ডভন্ড অর্থনীতির চাঙাভাবের মধ্য দিয়ে। তবে করোনার অভিঘাত থেকে অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়ালেও মূল্যস্ফীতি থেকে মুক্তি পায়নি দেশের মানুষ। বিশেষ করে ডিজেলের দাম বৃদ্ধির পর ১০ থেকে ৩০ শতাংশ পর্যন্ত বেড়েছে বেশিরভাগ ভোগ্যপণ্যের দাম।

বাজেট অর্থায়নে রাজস্ব বৃদ্ধি এবং বিনিয়োগ বাড়ানোর মাধ্যমে নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টি করা ২০২২ সালের জন্য হতে পারে অন্যতম বড় চ্যালেঞ্জ।

বেসরকারি গবেষণা সংস্থা সেন্টার ফর পলিসি ডায়লগের (সিপিডি) সম্মানীয় ফেলো ড. মুস্তাফিজুর রহমান জানান, মূল্যস্ফীতিকে মোকাবিলা করা সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ। সেজন্য সামষ্টিক আর্থিক ব্যবস্থায়, সরবরাহ নিশ্চিতের পাশাপাশি আমদানি সময়মতো করা জরুরি।

দেশের অন্যতম গবেষণা প্রতিষ্ঠান পলিসি রিসার্চ ইনস্টিটিউটের (পিআরআই) নির্বাহী পরিচালক ড. আহসান এইচ মনসুর বলছেন, আমাদের অধিকাংশ প্রকল্প ধারের টাকায় হচ্ছে। আমাদের নিজস্ব ৩০-৪০ শতাংশ অর্থ থাকা উচিত। যদি রাজস্ব না বাড়ে তাহলে এটা আরও খারাপের দিকে যাবে।

এদিকে নতুন বছরে অর্থনীতির জন্য চমকও অপেক্ষা করছে। অবকাঠামোর কাজ শেষ করে বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলোর বেশ কয়েকটি চালু করা গেলে দুয়ার খুলবে দেশি-বিদেশি বিনিয়োগের।

এ বিষয়ে ড. মুস্তাফিজুর রহমান জানান, আমাদের অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলোর মধ্যে ২০-২৫টা ভালোভাবে কাজে লাগাতে পারলে বৈদেশিক, স্থানীয় বিনিয়োগ এবং জয়েন্ট ভেঞ্চার করে স্থানীয় বাজারেও আমদানি প্রতিস্থাপক শিল্প গড়ে তুলতে পারব এবং রপ্তানিমুখী শিল্পও গড়ে তুলতে পারব।

ড. আহসান এইচ মনসুর বলছেন, আমাদের ব্যবস্থাপনার কাঠামো এবং প্রতিষ্ঠানগুলোকে অনেক শক্তিশালী করতে হবে। সেই প্রচেষ্টাগুলো যদি সরকারের থাকে তাহলে বিশাল সহায়ক ভূমিকা রাখবে।

পাশাপাশি অন্তর্ভুক্তিমূলক ও পরিবেবান্ধব অর্থনীতির পরিকল্পনা সরকার বাস্তবায়ন করলে নতুন বছরের অর্থনীতি পেতে পারে একটি টেকসই ভিত্তি। আর বাংলাদেশ পেতে পারে আঞ্চলিক বাণিজ্যের সম্ভাবনাময় শক্তিধর দেশের খ্যাতি।

আরএ/পি

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS