Mir cement
logo
  • ঢাকা বুধবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

ডেমরা-যাত্রাবাড়ী সড়ক যেনও বালুর সমুদ্র (ভিডিও)

রাজধানীর ডেমরা-যাত্রাবাড়ী সড়কের ৬ লেন উন্নয়ন প্রকল্পের কাজের ধীরগতিতে এলাকাবাসীর ভোগান্তি চরম আকার ধারণ করেছে। কাজের দীর্ঘসূত্রিতার জন্য সড়ক থেকে বিদ্যুতের খুঁটি অপসারণ না করাকে দায়ী করেন সড়ক ও মহাসড়ক বিভাগের প্রধান প্রকৌশলী। তবে জনভোগান্তির জন্য কর্তৃপক্ষের গাফিলতিকে দুষছেন বিশেষজ্ঞরা।

চারিদিকে ধুলাবালির সমুদ্র, এ যেনও বালুর কুয়াশা। এমন দৃশ্যই বলে দেয় এ পথের যাত্রীদের ভোগান্তি কতটা চরমে। রাতে কিংবা দিনে ডেমরা-যাত্রাবাড়ী সড়ক ব্যবহারকারীদের দুর্ভোগের কোনও কমতি নেই। একটি যানবাহন চললে পুরো এলাকা ধুলায় ঢেকে যায়। প্রতিদিন হাজারো যাত্রী সড়কটি ব্যবহার করেন। তারপরও ধুলা নিবারণের কোনও উদ্যোগ নেই।

এ নিয়ে পথচারীরা অভিযোগ করে বলেন, অনেকদিন ধরেই রাস্তার এ অবস্থা। জনগণের ভোগান্তি দেখার মতো কেউ নাই।

৩৩২ কোটি টাকায় সাড়ে পাঁচ কিলোমিটার সড়কটির উন্নয়ন কাজ ১৮ মাসে শেষ হওয়ার কথা থাকলেও এক বছরে কাজ হয়েছে ৪০ ভাগ। ধীরগতির উন্নয়নে যন্ত্রণা ভোগ করতে হচ্ছে এলাকাবাসীকে।

এলাকাবাসীরা জানান, গত এক বছর ধরে রাস্তায় ধুলা বাড়ছেই, পানি দিয়েও ধুলা কমানোর ব্যবস্থা নেওয়ার মতো কেউ নেই বলে তাদের অভিযোগ।

সড়কের ওপর তিনটি ট্রান্সফরমারসহ বৈদ্যুতিক খুঁটি না সরানোয় মৃধাবাড়ী এলাকার আন্ডারপাসের কাজ আটকে আছে।

নগরবিদ অধ্যাপক ড. আকতার মাহমুদ বলেন, প্রশাসনের উচিত যে সকল ঠিকাদাররা এসব রাস্তায় কাজ করছে তাদেরকে নিয়ম শৃঙ্খলার মধ্যে নিয়ে আসা।

সড়ক বিভাগের তদারকি আর সমন্বয়ের অভাবে ভোগান্তি বেড়েছে বলে মনে করেন এই বিশেষজ্ঞ।

পরিবহন বিশেষজ্ঞ সামছুল হক বলেন, এসব সমস্যা সমাধানের জন্য প্রশাসনকে তদারকি বাড়াতে হবে।

তবে সড়ক ও মহাসড়ক বিভাগের প্রধান প্রকৌশলী আবদুস সবুর আরটিভি নিউজকে বলেন, বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী, সচিব এবং এডিশনাল পিডিসহ সবার সাথে সমন্বয় করেই তারা কাজ করেছ।

নগরবাসীর দাবী কর্তৃপক্ষ যেনও একে অপরের ঘারে দায় না চাপিয়ে সাধারণের দুর্ভোগ লাঘবে দ্রুত কার্যকর পদক্ষেপ নেয়।

ইজে/এসএস

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS