logo
  • ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৮ জানুয়ারি ২০২১, ১৪ মাঘ ১৪২৭

রাজধানীতে আরও এক মানসিক হাসপাতালে রোগী নির্যাতনের অভিযোগ (ভিডিও)

মানসিক চিকিৎসার নামে দেশে গড়ে ওঠা প্রতিষ্ঠানগুলোর বেশিরভাগই অবৈধ। আবাসিক এলাকা, অলিগলিতে ব্যাঙের ছাতার মতো গড়ে ওঠা এসব হাসপাতালের কোন তালিকা স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে নেই। চিকিৎসার নামে এসব হাসপাতালে রোগীদের ওপর নির্যাতন চলে। এমনই আরও এক মানসিক হাসপাতালে রোগী নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। 

রাজধানীর ‘মাইন্ড এইড হাসপাতালে’, চিকিৎসার নামে মারধরে সম্প্রতি মারা যান, সিনিয়র এএসপি আনিসুল করিম শিপন। তারপরও বন্ধ হয়নি, মানসিক চিকিৎসার নামে গড়ে ওঠা অবৈধ হাসপাতালগুলো। 

রাজধানীর মোহাম্মদপুরে বসিলা ব্রিজ লাগোয়া ‘লাইভ সেইভ হাসপাতাল’। লাইসেন্স ছাড়াই হাসপাতালটি দুইবছর ধরে, মানসিক রোগী ও মাদকাসক্তদের চিকিৎসা করে আসছে। লাইসেন্সের জন্য বারবার আবেদন করলেও কাগজপত্র ঠিক না থাকায়, অনুমোদন মিলছে না।
এ ব্যাপারে আরটিভি নিউজকে নিউ সেইভ হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নজরুল ইসলাম লিটন বলেন, আমরা অনলাইনে আবেদন করেছি। জানেন তো এখানে একটা কাগজ না থাকলে কি সমস্যা হয়।

এখানেও, চিকিৎসার নামে মারধরের অভিযোগ করলেন রোগীরা। আর হাসপাতালের পরিবেশও ভালো না। এরকম সারাদেশে কয়েক হাজার হাসপাতাল অবৈধভাবে চললেও স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে তার কোনো তালিকা নেই। ‘মাইন্ড এইড হাসপাতাল’র নানা অপকর্ম ফাঁস হতে থাকায় এখন তারা বলছেন, দ্রুত তালিকা করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর পরিচালক (ক্লিনিক ও হাসপাতাল) ডা. ফরিদ হোসেন মিয়া আরটিভি নিউজকে বলেন, যেসব ক্লিনিকের লাইসেন্স নেই বা যারা আবেদন করেনি তাদের কার্যক্রম বন্ধের ব্যাপারে আমরা চিঠি দিয়ে জানিয়ে দিয়েছি।

মনোরোগ বিশেষজ্ঞরা বলছেন, মানসিক রোগীরা অনেক সময় বেপরোয়া আচরণ করে। সেজন্য তাদের নির্যাতন না করে সহমর্মিতার সঙ্গে চিকিৎসা দেওয়া উচিত। 

এ ব্যাপারে সাইকোলজিস্ট ও সাইকোথেরাপিস্ট ডা. ফায়েজা আহমেদ বলেন, মানসিক রোগের চিকিৎসার জন্য তিন ধরনের চিকিৎসক দিয়ে বোর্ড গঠন করে রোগীকে পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর ভর্তি করা উচিত। রোগীদের নির্যাতন না করে সহমর্মিতার সঙ্গে চিকিৎসা দেওয়া উচিত।

রোগী ভর্তির আগে হাসপাতালের মান যাচাইয়ে অভিভাবকদের পরামর্শও দেন এই বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক। 
পি
 

RTV Drama
RTVPLUS