smc
logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ১৫ কার্তিক ১৪২৭

বাজারভেদে আলুর দাম ১০ টাকা ব্যবধান, ক্ষুব্ধ ক্রেতারা (ভিডিও)

  সেলিম মালিক, আরটিভি নিউজ

|  ১৮ অক্টোবর ২০২০, ২১:০৯ | আপডেট : ১৮ অক্টোবর ২০২০, ২৩:৫৩
Potato prices, more or less, market, angry buyers
বাজারভেদে আলুর দাম কম-বেশি হওয়ায় ক্ষুব্ধ ক্রেতারা
সরকারের বেঁধে দেয়া দামে আলু বিক্রি হচ্ছে না বরং বাজারভেদে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে দাম। রাজধানীর কারওয়ান বাজারের পাইকারি বাজার থেকে কেজিপ্রতি ৩৭ থেকে ৩৮ টাকায় কিনে, সামান্য দূরবর্তী একই বাজারে খুচরা ব্যবসায়ীরা আলু বিক্রি করছেন ৪৫ টাকায়। আর হাতিরপুল বাজারে একই আলু বিক্রি হচ্ছে ৫০ টাকা। পণ্যের দাম বৃদ্ধি করায় ক্ষুব্ধ ক্রেতারা। বাজার নিয়ন্ত্রণে, সরকারের কঠোর নজদারির দাবি ভোক্তা অধিকার সংস্থা ক্যাবের। 

রাজধানীতে আলুর অন্যতম বড় পাইকারি বাজার কারওয়ান বাজার। গেলো সপ্তাহে হঠাৎ দাম বেড়ে যাওয়ার পর গত তিনদিনে সাত থেকে আট টাকা কমেছে আলুর দাম। পাইকারি দামে ব্যবসায়ীরা বিক্রি করছেন কেজিপ্রতি ৩৭ থেকে ৩৮ টাকা।

পাইকারি ব্যবসায়ী রফিকুল জানান, আগে আলু কেজিপ্রতি ছিল ৪২ থেকে ৪৩ টাকা। আজকে দাম কমে হয়েছে ৩৭ টাকা। প্রতিদিনই ২-১ টাকা কমছে আলুর দাম।

পাইকারী বাজার থেকে খুচরা বাজারের দূরত্ব একশ থেকে দেড়শ মিটার। সামান্য এই দূরত্বে ব্যবসায়ীরা আলুর দাম বাড়িয়েছে কমপক্ষে সাত টাকা। বিক্রি করছেন ৪৫ টাকায়।

ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা জানান, দোকান ভাড়া, লেবার খরচ, বস্তাতে নষ্ট আলু বাবদ ২-৩ কেজি আলু নষ্ট হয়। তাই এই ক্ষতি পোষাতে আলু কেজিপ্রতি খরচ বেড়ে যায় ২-৩ টাকা।

কারওয়ান বাজার থেকে রাজধানীর হাতিরপুল বাজারের দূরত্ব বড়জোর দুই কিলোমিটার। আর এই দূরত্বে আলুর দাম বেড়ে গেছে কেজিতে ১২ থেকে ১৩ টাকা।
আরেকজন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী জানান, ৪৬ টাকা দিয়ে আলু কিনে বিক্রি করছি ৫০ টাকায়।

একজন ভোক্তা অভিযোগ করেন, সরকার ৩০ টাকা করে আলু বিক্রি করতে বলেছে। কিন্তু দোকানদাররা ৫০ টাকার নিচে দেয় না। আবার বলে যেখান থেকে কম পান সেখান থেকে কিনে আনেন। সাধারণ মানুষ হিসেবে আমরাতো প্রতিদিন হিমশিম খাচ্ছি এই বাজারদর নিয়ে।

এদিকে, বেশি দামে কিনে সরকারের বেঁধে দেয়া দাম ৩০ টাকায় আলু বিক্রি করছেন রাজধানীর পলাশী বাজারের বিক্রেতারা। তারা বলছেন, দাম না কমা পর্যন্ত এখন আর নতুন করে আলু কিনব না। সরকার দাম ধরে দিছে ৩০ টাকা। তাই আমরাও ১০ টাকা লস দিয়ে বিক্রি করছি। কিন্তু সব সময়তো আমি আর এই লস দিয়ে ব্যবসা করতে পারবো না। আমার কাছে আর যতটুকু আলু আছে আমি ওই পর্যন্তই বিক্রি করবো।

আলুর বাজার নিয়ন্ত্রণে আনতে সরকারের নজরদারির পাশাপাশি সরবরাহ বাড়ানোর পরামর্শ ক্যাবের।

কনজ্যুমার অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ এর সভাপতি গোলাম রহমান বলেন, আলু তখনই ক্রয়সীমার মধ্যে থাকবে যখন সরকার সরবরাহ বাড়াবে। পণ্যের দাম বৃদ্ধির জন্য যেন মজুদ ধরে না রাখে সেই বিষয়ে অবশ্যই ব্যবস্থা নিতে হবে।

আগামীতে আলুর উৎপাদন বাড়াতে কৃষকদের অর্থ সহায়তা দিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানান ক্যাব সভাপতি।
পি
 

RTVPLUS
bangal
corona
দেশ আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ৪০৩০৭৯ ৩১৯৭৩৩ ৫৮৬১
বিশ্ব ৪,৪৩,৫৭,৬৭১ ৩,২৫,০৫,১৫৫ ১১,৭৩,৮০৮
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • বিশেষ প্রতিবেদন এর সর্বশেষ
  • বিশেষ প্রতিবেদন এর পাঠক প্রিয়