smc
logo
  • ঢাকা শনিবার, ৩১ অক্টোবর ২০২০, ১৬ কার্তিক ১৪২৭

জলাবদ্ধতা নিরসনে কোনও জমিই অধিগ্রহণ করতে পারেনি ঢাকা ওয়াসা (ভিডিও)

  নাজিব ফরায়েজী, আরটিভি নিউজ

|  ১৪ অক্টোবর ২০২০, ০৮:৪১ | আপডেট : ১৪ অক্টোবর ২০২০, ১২:৩৯
Dhaka WASA could not acquire any land to alleviate waterlogging
এভাবেই শহরের বর্জ্য ও দুর্বৃত্তরা রাজধানীর খালগুলো প্রায় নিশ্চিহ্ন করে দিচ্ছে
খালের জমি অধিগ্রহণ ও খননের জন্য ৬৪৫ কোটি টাকার প্রকল্পের মেয়াদ শেষ হলেও কোনও জমিই অধিগ্রহণ করতে পারেনি ঢাকা ওয়াসা। এরপর এক বছর মেয়াদ বাড়িয়েও কাজ হয়নি। অথচ খননের নামে প্রকল্প থেকে সাড়ে ১৮ কোটি টাকা খরচ করে ফেলেছে সংস্থাটি। স্থানীয় সরকারমন্ত্রী জানিয়েছেন, প্রকল্প নিয়ে ওয়াসার অনিয়ম ও গাফিলতি খুঁজে বের করে ব্যবস্থা নেয়া হবে। 

সামান্য বৃষ্টিতে রাজধানীর এমন জলাবদ্ধতার জন্য খালগুলো ভরাট হওয়া এবং খালের পানি পাম্পিং স্টেশন পর্যন্ত পৌঁছাতে না পারাকে দায়ী করে আসছে ঢাকা ওয়াসা। অনেক জায়গায় খালের জমি না থাকায় ব্যক্তিগত জমির ওপর দিয়ে খাল যাওয়া এবং তা ভরাট করাকেও এর কারণ হিসেবে উল্লেখ করে ওয়াসা। এ জন্য জমি অধিগ্রহণ করে পানির প্রবাহ ও খালের নাব্যতা ঠিক রাখা জরুরি হয়ে পড়েছে।  

এরই প্রেক্ষিতে হাজারীবাগ, বাইশটেকি, কুর্মিটোলা, মান্ডা ও বেগুনবাড়ি খালে ভূমি অধিগ্রহণ ও জমি পুনঃখননের জন্য প্রথমে ৬০৭ কোটি টাকার প্রকল্প নেয় ওয়াসা। পরে তা বাড়িয়ে ৬৪৫ কোটি টাকা করা হয়। সরকারের অর্থায়নে প্রকল্পটি ২০১৮ সালের এপ্রিলে শুরু হয়ে ২০১৯ সালের ৩১ ডিসেম্বর শেষ হওয়ার কথা। এরপর মেয়াদ আরও এক বছর বাড়িয়ে এ বছরের ৩১ ডিসেম্বর করা হয়। অথচ প্রকল্পের অধীনে পাঁচটি খালের প্রায় ২৪ একর জমি অধিগ্রহণ ও পুনঃখনন করার কথা থাকলেও এখন পর্যন্ত কোনও জমিই অধিগ্রহণ করতে পারেনি সংস্থাটি। এরই মধ্যে পুনঃখননের নামে সাড়ে ১৮ কোটি টাকা খরচ করা হলেও সেখানেও অনেক স্থানে খাল খনন না করে কেবল ময়লা-আবর্জনা সরানোসহ নানা অনিয়মের অভিযোগ রয়েছে। 

প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করতে না পরায় ভূমি মন্ত্রণালয়কে দায়ী করছেন ওয়াসার প্রকল্প পরিচালক আবদুল ওয়াসেত। অন্যদিকে ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক তাকসিন এ খানের সঙ্গে কথা বলতে চাইলে জানানো হয়, তিনি এসব নিয়ে গণমাধ্যমে কথা বলতে চান না! 

আরও পড়ুনঃ
প্রভাবশালীদের দখলে মিরপুরের খাল যেন সরু নালা (ভিডিও)
খাল-ডোবা অপরিষ্কার থাকলে ব্যবস্থা নেবে ডিএনসিসি

বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়ে স্থানীয় সরকারমন্ত্রী তাজুল ইসলাম বলেছেন, খাল সংস্কার করে পানি নিষ্কাশনের জন্য যাদের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে তারা যদি সঠিক সময়ে এসব কাজ না করে, তাহলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। রাজধানীর খালগুলো রক্ষায় ইতোমধ্যেই একটি মাস্টারপ্ল্যান করা হয়েছে বলে।  

জিএম/এমকে 

RTVPLUS
bangal
corona
দেশ আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ৪০৩০৭৯ ৩১৯৭৩৩ ৫৮৬১
বিশ্ব ৪,৪৩,৫৭,৬৭১ ৩,২৫,০৫,১৫৫ ১১,৭৩,৮০৮
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • বিশেষ প্রতিবেদন এর সর্বশেষ
  • বিশেষ প্রতিবেদন এর পাঠক প্রিয়