Mir cement
logo
  • ঢাকা সোমবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

জাহাঙ্গীরের মেয়র পদ নিয়ে যা জানালেন মন্ত্রী

গাজীপুর সিটি কপোরেশনের মেয়র জাহাঙ্গীর আলম

গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র জাহাঙ্গীর আলমকে আওয়ামী লীগ থেকে গতকাল শুক্রবার বহিষ্কার করেছে ক্ষমতাসীন দল। এখন তার মেয়র পদ থাকা না থাকা নিয়ে ধোঁয়াশা সৃষ্টি হয়েছে।

জাহাঙ্গীর আলমের মেয়র পদে থাকতে পারবেন কি না এ প্রশ্নে শনিবার (২০ নভেম্বর) রাজধানীর সোনারগাঁর হোটেলে ড্যাপ অনুষ্ঠানে স্থানীয় সরকারমন্ত্রী তাজুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, ‘মেয়র পদে থাকবে কি না, এ বিষয়টা আইন পর্যবেক্ষণ না করে আমার পক্ষে মন্তব্য করা সম্ভব নয়। আইন দেখে পরবর্তীতে এ ব্যাপারে মন্তব্য করা হবে। এখন মেয়র আছে। কতদিন থাকবে, সেটা আইন দ্বারা নিষ্পত্তি করা হবে।’

আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন নিয়ে ২০১৮ সালে গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে জয়লাভ করেন জাহাঙ্গীর।

দলীয় প্রতীকে কেউ সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পর কোনো কারণে ওই সংসদ সদস্যকে দল থেকে বহিষ্কার করা হলে ব্যক্তি নির্বাচিত হওয়ার পরও সংসদ সদস্য পদ হারাবেন। কিন্তু কোনো মেয়রকে দলীয় সদস্যপদ থেকে বহিষ্কার করা হলে মেয়র পদে থাকতে পারবেন কি না, সেটি স্থানীয় সরকার আইনে সুস্পষ্টভাবে কিছু বলা নেই।

২০১৫ সালে সিটি করপোরেশন আইন সংশোধন করা হয় এবং দলীয় প্রতীকে মেয়র পদে নির্বাচনের বিষয়টি তাতে সংযুক্ত হয়। আইনের ৩২ ধারায় নতুন ৩২ক ধারা সন্নিবেশিত করা হয়। সেখানে বলা আছে, ‘কোনো সিটি করপোরেশনের মেয়র পদে নির্বাচনে অংশগ্রহণের জন্য কোনো ব্যক্তিকে রাজনৈতিক দল কর্তৃক মনোনীত বা স্বতন্ত্র প্রার্থী হতে হইবে।’

প্রসঙ্গত, গত সেপ্টেম্বরে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে ‘কটূক্তি’র একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়। এ নিয়ে তীব্র সমালোচনা শুরু হয়। ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া ১১ মিনিট ২৩ সেকেন্ডের ভিডিওতে দেখা যায়, বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ ছাড়াও মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আজমত উল্লাহ খান, যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল, হেফাজতের প্রয়াত নেতা জুনায়েদ বাবুনগরীর সঙ্গে তার সখ্য ও রাষ্ট্রীয় দুটি সংস্থা নিয়ে নানা আপত্তিকর মন্তব্য করেন মেয়র জাহাঙ্গীর।

এফএ/এসকে

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS