logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারি ২০২১, ৫ মাঘ ১৪২৭

ইসি মাহবুব তালুকদার চাইলে পদত্যাগ করতে পারেন: হানিফ

ইসি মাহবুব তালুকদার চাইলে পদত্যাগ করতে পারেন: হানিফ
মাহবুব উল আলম হানিফ

ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচন নিয়ে কমিশনার মাহবুব তালুকদারের বক্তব্যের প্রতিক্রিয়া জানিয়ে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেছেন, ‘কেউ যদি মনে করেন তার কাজের যোগ্যতা ও দক্ষতা কমে গেছে, তাহলে তিনি চাইলে পদত্যাগ করতে পারেন।’ তিনি বলেন, নির্বাচন নিয়ে অভ্যন্তরীণ কোনও সমস্যা থাকলে কমিশনের সদস্যরা সেটি নিজেরা বসেই ঠিক করবেন। এ নিয়ে মিডিয়ায় কিছু বলা মানে নিজের অযোগ্যতা প্রমাণ করা।

আজ বুধবার বেলা ১১টার দিকে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির উদ্বোধনী শেষে সাংবাদিকের এসব কথা বলেন।

এ সময় তিনি ঢাকার দুই সিটি নির্বাচন নিয়ে বলেন, এবারের ভোটে প্রত্যাশার চেয়ে কম ভোট পড়েছে। তবে, এখানে কোনও অনিয়ম কিংবা জালিয়াতি হয়নি। ভোট অবাধ ও সুষ্ঠু হয়েছে।

সিটি নির্বাচনে ভোট কাস্ট কম হওয়ার কারণ হিসেবে মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, বিএনপির নেতিবাচক প্রচারের কারণে এমনটা হয়েছে। তারা নির্বাচনকে উৎসব হিসেবে না নিয়ে আন্দোলন হিসেবে নিয়েছিল। ফলে সাধারণ ভোটাররা ভয়ে নির্বাচন কার্যক্রমে অংশ নেয়নি। সর্বোপরি তারা ভোটের ব্যাপারে আগ্রহ হারিয়ে ফেলে।

এ সময় আ.লীগের এই যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও এ নিয়ে বিএনপির আন্দোলন নিয়ে বলেন, তাকে (খালেদা জিয়া) অকারণে কারাগারে রাখা হয়নি। তিনি যদি মুক্তি চান তবে মহামান্য রাষ্ট্রপতির কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করতে হবে, তবেই মহামান্য রাষ্ট্রপতি বিবেচনা করবেন। অথবা উনি যদি বিদেশে চিকিৎসা নিতে চান ও মেডিকেল বোর্ড যদি সেটা অনুমোদন করে তবে প্যারোলে মুক্তিরও বিধান রয়েছে। এসবে না গিয়ে বিএনপি আন্দোলন করার কথা বলছেন, আসলে তারাই বেগম জিয়ার চিকিৎসা বা শারীরিক অবস্থা নিয়ে উদ্বিগ্ন নয়। এটা নিয়ে তারা রাজনীতি করছেন। তাদের আন্দোলন তারাই ভাবুক। ভোটের মতই জনগণ তাদের আন্দোলনও প্রত্যাখ্যান করবে।

এ সময় কুষ্টিয়া জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম, মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডাক্তার মুসতানজিদ, গণপূর্তের নির্বাহী প্রকৌশলী আরিফুল ইসলামসহ আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

এজে

RTV Drama
RTVPLUS