logo
  • ঢাকা রোববার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১০ ফাল্গুন ১৪২৬

বাপ-চাচাদের কাছ থেকে শিক্ষা নিয়েছে ইশরাক: মির্জা আব্বাস

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ১২ জানুয়ারি ২০২০, ২০:০৪
বাপ-চাচা শিক্ষা ইশরাক
বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস বলেছেন, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপির মেয়র প্রার্থী ইশরাক হোসেন তার বাপ-চাচাদের কাছ থেকে শিক্ষা নিয়েছেন। সে একজন ইঞ্জিনিয়ার। তিনি জানেন কীভাবে এই শহরকে দূষণমুক্ত করা যায়।

রোববার দুপুরে ঢাকা জেলা ও দায়রা জজ আদালতের (জজ কোর্ট) সামনে থেকে গণসংযোগ শুরু করার আগে তিনি এসব কথা বলেন। এর আগে হাজার হাজার নেতা কর্মী বিভিন্ন ব্যানার ফেস্টুন নিয়ে উপস্থিত হন।

এসময় মির্জা আব্বাস বলেন, ঢাকা মহানগরী আজকে ডাস্টবিনে পরিণত হয়েছে বিগত ১৩ বছরের সরকারের সময়। এই মহানগরীতে আমি এক সময় মেয়র ছিলাম। এর আগে কিন্তু ঢাকা শহর ডাস্টবিনে পরিণত ছিল না। সবুজ নগরী ছিল। আজকে রুক্ষ হয়ে গেছে। সাদেক হোসেন খোকার সময়েও এরকম দূষণ ছিল না। বায়ুদূষণ জলদূষণ, সমস্ত দিকে দূষণ আর দূষণ।

ইশরাক একজন ইঞ্জিনিয়ার, তিনি জানেন কীভাবে কি করতে হবে। সে বাপ-চাচাদের কাছ থেকে শিক্ষা নিয়েছে, সে পরিবার থেকে শিক্ষা নিয়েছে। আজকে দেশ ও শহরবাসীকে স্বাচ্ছ্যন্দতা দিতে চায়। এটা তার পক্ষে সম্ভব। সে ঢাকা নগরীর ছেলে, তার এখানে জন্ম। এই শহরের অলি-গলি তার জানা। এই দূষণ থেকে শহরকে রক্ষা করার জন্য, নগরবাসীদের স্বাচ্ছন্দ্য দিতে সাদেক হোসেন খোকার ছেলে ইশরাক হোসেন এপ্রোপ্রিয়েট ক্যান্ডিডেট। প্রিয় নগরবাসী আমদের সময়ের ও সাদেক হোসেন খোকার সময়ের ঢাকা শহরকে চিন্তা করে আমাদের ভোট দেবেন।

এসময় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন গণসংযোগ উদ্বোধন করে বলেন, বিএনপি মনোনীত একজন যোগ্য, দক্ষ, তরুণ, একজন আধুনিক প্রার্থী ইশরাক হোসেন। সাদেক হোসেন খোকার যোগ্য উত্তরসূরি হিসেবে তাকে মনোনীত করেছি।

‘আজকে ঢাকা শহরের চিত্র দেখেন, জ্যাম জটে মানুষ টিকতে পারে না। পৃথিবীর মধ্যে ঢাকা শহর বায়ুদূষণের নগরী হিসেবে পরিচিত হয়েছে। এই নগরী বসবাসের অনুপযোগী হিসেবে বিশ্বে চিহ্নিত হয়েছে। আমরা এই মহানগরীকে দূষণ ও যানজট মুক্ত করতে চাই। আধুনিক ও বসবাস উপযোগী ঢাকা শহরে পরিণত করতে চাই। সেই উদ্দেশ্য নিয়ে ইশরাক হোসেনের মতো শিক্ষিত একজনকে মনোনয়ন দিয়েছি।’

‘সারা দেশের মানুষ পরিবর্তন চায়। দেশের মানুষের জীবন আজ বিপন্ন। সারা দেশের মতো ঢাকা শহরের মানুষও পরিবর্তন চায়। আপনার ধানের শীষে ভোট দিয়ে ইশরাক হোসেনকে জয়যুক্ত করবেন।’

এসময় কাউন্সিল প্রার্থীদের জন্যও ধানের শীষে ভোট চান সাবেক এই মন্ত্রী।

প্রচারণা শুরুর আগে শুভেচ্ছা বক্তব্যে ইশরাক হোসেন ঢাকাবাসীর কাছে দোয়া ও ভোট চান। এসময় সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, প্রচারণা চালাতে গিয়ে এখন পর্যন্ত কোনো বাধার সম্মুখিন হইনি। কিন্তু আমাদের অনেক কাউন্সিলর প্রার্থী বাধার সম্মুখীন হয়েছেন। এজন্য আমরা নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ দাখিল করেছি। ঢাকাবাসীদের বলতে চাই, এখন একটা পরিবর্তন দরকার। ঢাকাকে একটি বাসযোগ্য নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে চাই। গত ১৩ বছরে বর্তমান সরকার এই শহরকে একেবারেই ধ্বংস করে ফেলেছে। এর থেকে যদি আপনারা উত্তরণ চান, তাহলে অবশ্যই ধানের শীষে ভোট দেবেন। আপনাদের অধিকার রক্ষায় আপনারা এগিয়ে আসবেন।

আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী ফজলে নূর তাপসের অভিযোগের ভিত্তিতে ইশরাক বলেন, আমরা তাদের হামলা করিনি বরং তারাই আমাদের উপর হামলা করেছে। আমাদের কাছে ছবি আছে। আমাদের গাড়ি ভাঙচুর করা হয়েছে।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপি ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সভাপতি হাবিব-উন-নবী খান সোহেল, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবীর খোকন, দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক কাজী আবুল বাসার, মীর সরাফত আলী সপু প্রমুখ।

পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • রাজনীতি এর সর্বশেষ
  • রাজনীতি এর পাঠক প্রিয়