logo
  • ঢাকা সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১ আশ্বিন ১৪২৬

জিয়া, এরশাদ ও খালেদা বঙ্গবন্ধুর খুনিদের পুনর্বাসন করে: গণপূর্তমন্ত্রী

পিরোজপুর প্রতিনিধি
|  ৩০ আগস্ট ২০১৯, ১৮:০২
জিয়া, এরশাদ ও খালেদা
গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেছেন, স্বাধীনতাবিরোধী ও প্রতিক্রিয়াশীল দেশি-বিদেশিচক্র মিলে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হত্যাকাণ্ড সংগঠিত করেছে। জিয়া, এরশাদ ও খালেদার অগণতান্ত্রিক সরকারগুলো বঙ্গবন্ধুর খুনিদের পুনর্বাসন করেছে। জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধুর খুনিদের দেশের বাইরে পুনর্বাসন করেছেন। তিনি (জিয়াউর রহমান) বঙ্গবন্ধুর হত্যার মদদদাতা ও উপকারভোগী। যা এদেশের রাজনীতির ইতিহাসে কলঙ্কজনক অধ্যায়।

শুক্রবার পিরোজপুরের নেছারাবাদ উপজেলা পরিষদ চত্বরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে উপজেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

এসময় মন্ত্রী আরও বলেন, ৭৫ এর ১৫ আগস্টের ঘটনা শুধু বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মধ্যে সীমাবদ্ধ নয়। ৭১’র পরাজিতরা পরাজয়ের প্রতিশোধ নিতেই ১৯৭৫ সনের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারের নিষ্ঠুর, নৃশংসভাবে হত্যা করে। এরপর ৩ নভেম্বর জেলখানায় জাতীয় চার নেতাকে হত্যা করে। তারপরও তারা শঙ্কামুক্ত হতে না পেরে আবারো ২০০৪ সালে ২১ আগস্ট আওয়ামী লীগকে নেতৃত্ব শুন্য করার জন্য শেখ হাসিনার ওপর গ্রেনেড হামলা করে। ৭১, ৭৫ এর ১৫ আগস্ট, ৩ নভেম্বর ও ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট বোমাহামলা এবং ১৯ বার শেখ হাসিনাকে হত্যাচেষ্টা একইসূত্রে গাঁথা।

তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু পরিবারের আত্মত্যাগকে আমরা শক্তিতে পরিণত করে সামনে এগিয়ে যাব। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা অসাম্প্রদায়িক দেশ গড়ে উন্নত বাংলাদেশের দিকে এগিয়ে যাচ্ছি। অপশক্তির ব্যাপারে আমাদের সাবধান থাকতে হবে, সজাগ থাকতে হবে। এটা হোক জাতীয় শোক দিবসের অঙ্গীকার।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হামিদের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন সাবেক সংসদ সদস্য অধ্যক্ষ মো. শাহ আলম, বাংলাদেশ কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সাবেক সভাপতি অধ্যাপক এম এ বারী, সাবেক সচিব এম সামসুল হক, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট কানাইলাল বিশ্বাস, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সদস্য মো. কামরুজ্জামান শামীম, জেলা যুবলীগের সভাপতি মো. আক্তারুজ্জামান ফুলু, স্বরূপকাঠি উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল হক, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এসএম ফুয়াদ, পৌর মেয়র গোলাম কবির, জেলা পরিষদ সদস্য অ্যাডভোকেট জাকারিয়া খান স্বপন, উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নার্গিস জাহান, উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাহারা নাসরিন প্রমুখ। পরে দোয়া মাহফিল শেষে গণভোজের আয়োজন করা হয়।

পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়