logo
  • ঢাকা বুধবার, ১৭ জুলাই ২০১৯, ২ শ্রাবণ ১৪২৬

চতুর্থ ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে জয়ী যারা

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ০২ এপ্রিল ২০১৯, ১০:৪৮
পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের চতুর্থ ধাপে গেল রোববার দেশের ২২ জেলার ১০৭ উপজেলায় ভোটগ্রহণ হয়। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ছাড়া বড় রাজনৈতিক দলগুলো অংশ না নেওয়ায় অন্যান্য ধাপের মতো এবারও ভোটারদের তেমন সাড়া ছিল না। এই ধাপে বিনা ভোটে নির্বাচিত হয়েছেন ৮৮ জন। এর মধ্যে চেয়ারম্যান ৩৯, ভাইস চেয়ারম্যান ২২ ও ২৭ জন নারী ভাইস চেয়ারম্যান।

চট্টগ্রামের লোহাগাড়ায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী জিয়াউল হক চৌধুরী বাবুল। ফেনী সদর উপজেলায় আওয়ামী লীগের আবদুর রহমান, ফুলগাজীতে আওয়ামী লীগের আবদুল আলিম। নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলায় আওয়ামী লীগের ওমর ফারুক বাদশা ও চাটখিলে আওয়ামী লীগের জাহাঙ্গীর কবির। ময়মনসিংহের ভালুকায় স্বতন্ত্র প্রার্থী আবুল কালাম আজাদ।

যশোরের চৌগাছায় আওয়ামী লীগের ড. মোস্তানিছুর রহমান, কেশবপুরে স্বতন্ত্র কাজী রফিকুল ইসলাম, মনিরামপুরে আওয়ামী লীগের নাজমা খানম, বাঘারপাড়ায় স্বতন্ত্র নাজমুল ইসলাম কাজল, ঝিকরগাছায় স্বতন্ত্র মনিরুল ইসলাম ও অভয়নগরে আওয়ামী লীগের শাহ ফরিদ জাহাঙ্গীর নির্বাচিত হয়েছেন।

মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলায় আওয়ামী লীগের আনিস-উজ-জামান আনিস, টঙ্গীবাড়িতে স্বতন্ত্র জগলুল হালদার ভুতু, শ্রীনগরে স্বতন্ত্র মশিউর রহমান মামুন, সিরাজদীখানে আওয়ামী লীগ প্রার্থী মহিউদ্দিন আহমেদ ও লৌহজংয়ে আওয়ামী লীগের ওসমান গনি তালুকদার। গজারিয়ায় আওয়ামী লীগের প্রার্থী মো. আমিরুল ইসলাম।

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় আওয়ামী লীগের এস এম রাকিবুল আহসান, দুমকীতে আওয়ামী লীগের হারুন আর রশিদ, গলাচিপায় আওয়ামী লীগের শাহীন শাহ, মির্জাগঞ্জে স্বতন্ত্র খান মো. আবু বক্কর, সদরে আওয়ামী লীগের গোলাম সরোয়ার, বাউফলে আওয়ামী লীগের মোতালেব হাওলাদার ও দশমিনায় আওয়ামী লীগের আবদুল আজিজ নির্বাচিত হয়েছেন।

পিরোজপুর সদরে আওয়ামী লীগের মো. মজিবুর রহমান খালেক, ইন্দুরকানীতে আওয়ামী লীগের এম মতিউর রহমান, নাজিরপুরে আওয়ামী লীগের অমূল্য রঞ্জন হালদার, কাউখালীতে জাতীয় পার্টির (জেপি) আবু সাঈদ মনু ও স্বরূপকাঠিতে স্বতন্ত্র হাজি আবদুল হক বিজয়ী হয়েছেন।

টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে আওয়ামী লীগের শহিদুল ইসলাম লেবু, ভূঞাপুরে আওয়ামী লীগের আবদুল হালিম, কালিহাতীতে স্বতন্ত্র আনছার আলী, সদরে আওয়ামী লীগের শাহজাহান আনসারী, দেলদুয়ারে স্বতন্ত্র মাহমুদুল হাসান মারুফ, নাগরপুরে স্বতন্ত্র আবদুস সামাদ, মির্জাপুরে আওয়ামী লীগের মীর এনায়েত হোসেন মন্টু, বাসাইলে স্বতন্ত্র কাজী অলিদ ইসলাম ও সখিপুরে আওয়ামী লীগের জুলফিকার হায়দার কামাল লেবু নির্বাচিত হয়েছেন।

খুলনার রূপসা উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে কামালউদ্দিন বাদশা (নৌকা) এবং ভাইস চেয়ারম্যান পদে আবদুল্লাহ জুবায়ের (তালা) ও ফারহানা আফরোজ মনা (কলস) নির্বাচিত হয়েছেন।

তেরখাদা উপজেলায় (স্বতন্ত্র) শহিদুল ইসলাম (দোয়াত-কলম) চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। ভাইস চেয়ারম্যান পদে জয়লাভ করেছেন শারাফাত হোসেন (টিউবওয়েল) ও নাজমা খান (কলস)।

কয়রায় স্বতন্ত্র এস এম শফিকুল ইসলাম (আনারস) চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। কমলেশ কুমার সানা (টিয়া পাখি) ও নাসিমা আলম (হাঁস) নির্বাচিত হয়েছেন ভাইস চেয়ারম্যান পদে। দাকোপে চেয়ারম্যান হয়েছেন স্বতন্ত্র মুনসুর আলী খান (চিংড়ি) ও ভাইস চেয়ারম্যান পদে খাদিজা আক্তার (কলস)। বটিয়াঘাটায় ভাইস চেয়ারম্যান পদে নিতাই গাইন (চশমা) ও চঞ্চলা মণ্ডল (পদ্মফুল) নির্বাচিত হয়েছেন।

ফুলতলায় ভাইস চেয়ারম্যান পদে কে এম জিয়া হাসান তুহিন (উড়োজাহাজ) ও ফারজানা ফেরদৌসী নিশা (কলস) নির্বাচিত হয়েছেন।

পাইকগাছায় আওয়ামী লীগের গাজী মোহাম্মদ আলী চেয়ারম্যান এবং ভাইস চেয়ারম্যান পদে শেহাবউদ্দিন ফিরোজ বুলু (তালা) ও লিপিকা ঢালী (গোলাপ ফুল) নির্বাচিত হয়েছেন।

দিঘলিয়ায় স্বতন্ত্র শেখ মারুফুল ইসলাম (আনারস) চেয়ারম্যান পদে এবং ভাইস চেয়ারম্যান পদে মোহাম্মদ আলী রেজা বাঁচা (চশমা) ও মমতাজ শিরিন ময়না (ফুটবল) নির্বাচিত হয়েছেন।

বাগেরহাটের ফকিরহাটে আওয়ামী লীগের স্বপন কুমার দাশ, মোল্লাহাটে আওয়ামী লীগের শাহীনুল আলম ছানা ও মোরেলগঞ্জে আওয়ামী লীগের শাহী আলম বাচ্চু চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

এছাড়া ভাইস চেয়ারম্যান পদে মোরেলগঞ্জে মোজাম্মেল হক মোজাম (তালা) ও ফাহিমা খানম (ফুটবল), মোংলায় ইকবাল হোসেন (তালা) ও কামরুন নাহার হাই (কলস), কচুয়ায় ফিরোজ আহম্মেদ (উড়োজাহাজ) ও নাজমা সরোয়ার (হাঁস), সদরে খান রেজাউল ইসলাম (উড়োজাহাজ), চিতলমারীতে এস এম মাহাতাবুজ্জামান (তালা) ও সাবেরা বেগম (ফুটবল), শরণখোলায় মো. হাসানুজ্জামান (চশমা) ও রাহিমা আক্তার হাসি (কলস), রামপালে নুরুল হক লিপন (তালা) ও মুসাম্মৎ হোসনেয়ারা (কলস) জয়লাভ করেছেন।

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছেন আবদুল লতিফ প্রধান। এ উপজেলায় ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন শরীফুল ইসলাম সরকার ও সাকিলা বেগম।

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয় চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত মোশারফ হোসেন বিজয়ী হয়েছেন। ভাইস চেয়ারম্যান পদে টিউবওয়েল প্রতীক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন বাবুল ওমর বাবু এবং হাঁস প্রতীক নিয়ে মাহমুদা আক্তার ফেন্সি।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় চেয়ারম্যান পদে বিজয়ীরা হলেন নাসিরনগরে নৌকা প্রতীকে ডা. রাফিউদ্দিন আহমেদ, সরাইলে ঘোড়া প্রতীক নিয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান রফিকউদ্দিন ঠাকুর, আশুগঞ্জে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী হানিফ মুন্সি, সদর উপজেলায় স্বতন্ত্র প্রার্থী লায়ন ফিরোজুর রহমান (ওলিও) আনারস প্রতীক এবং নবীনগরে স্বতন্ত্র প্রার্থী মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান।

বরগুনা সদরে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী মনিরুল ইসলাম মনির এবং ভাইস চেয়ারম্যান ইমরান হোসেন রাসেল ফরাজি ও শামীমা সুলতানা মুন্নি।

আমতলীতে চেয়ারম্যান পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী গোলাম ছরোয়ার ফোরকান এবং ভাইস চেয়ারম্যান মজিবুর রহমান ও তামান্না আফরোজ মনি।

পাথরঘাটায় চেয়ারম্যান পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী মোস্তফা গোলাম কবির এবং ভাইস চেয়ারম্যান হাফিজুর রহমান সোহাগ ও ফাতিমা পারভীন।

বামনায় চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান সাইতুল ইসলাম লিটু মৃধা এবং ভাইস চেয়ারম্যান আলতাফ হোসেন হাওলাদার ও রুমী খানম।

বেতাগীতে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মাকসুদুর রহমান ফোরকান চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছেন এবং ভাইস চেয়ারম্যান পদে জয়লাভ করেছেন আমিরুল ইসলাম পিন্টু ও মাহমুদা খানম।

জেবি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়