DMCA.com Protection Status
  • ঢাকা বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০১৯, ১১ বৈশাখ ১৪২৬

৩০ ডিসেম্বর রাজচালাকির নির্বাচন হয়েছে: ড. কামাল

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ১০ জানুয়ারি ২০১৯, ২১:০৭ | আপডেট : ১০ জানুয়ারি ২০১৯, ২১:২৭
৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচন রাজচালাকির একটা উদাহরণ। রাজচালাকি থেকে বিরত থাকুন।আমরা রাজনীতি থেকে সরে যাচ্ছি রাজচালাকিতে।জনগণের সামনে সব কিছু তুলে ধরুন। সংবিধানকে মেনে সংবিধান অনুযায়ী আলাপ আলোচনার মধ্য দিয়ে যা করার তা করুন।বললেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনি হলে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ড. কামাল বলেন, স্বাধীনতার ৪৭ বছর পর ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচন খুবই দুঃখজনক।এটা একটা নাটক।কোনও সুস্থ মানুষ দেশকে সংকটে ফেলতে পারেন না। কিভাবে একটি সুষ্ঠু নির্বাচন করা যায়, তার জন্য জাতীয় সংলাপ করা হোক। জাতীয় সংলাপের মাধ্যমে সিদ্ধান্ত নেয়া হোক সংবিধানের মধ্য থেকে কীভাবে সুষ্ঠু নির্বাচন করা যায়।

গণফোরাম সভাপতি বলেন, আমি সরলভাবে বলেছিলাম, সকাল-সকাল কেন্দ্রে গিয়ে ভোট দিন এবং কেন্দ্র পাহারা দিন। কিন্তু ভোট তো রাতেই হয়ে গেছে।ভারসাম্যহীন ছাড়া কোনও সুস্থ মানুষের পক্ষে তথাকথিত নির্বাচন করা সম্ভব নয়।

তিনি বলেন, রাষ্ট্রকে নিয়ে এ খেলা ঠিক না, এটা মানসিক অসুস্থতার বহিঃপ্রকাশ। এটা একটা রাজচালাকি ছাড়া আর কিছুই না।

ড. কামাল হোসেন বলেন, সবাই ক্ষমতা চায়, ক্ষমতায় থাকতে চায়।পাঁচ বছর আগে ২০১৪ সালে নির্বাচন হয়েছিল।তারপর আবার নির্বাচন এলো। আবার প্রহসন দেখতে হলো।এগুলোর তো প্রয়োজন নেই।দেশের মানুষ তো এই খেলার মধ্যে কোনো ভূমিকা রাখতে চায় না।

তিনি বলেন, সবাইকে জানিয়ে আমরা একটা ইলেকশন দেব, তারিখ নির্দিষ্ট হবে, মানুষ আসবে, সরাসরি ভোট দেবে। আর এটাকে অন্য কোনো কায়দায় নিলে দেশে স্থিতিশীলতা আসে না, নির্বাচনে বৈধতা আসে না, ক্ষমতা কাউকে বুঝিয়ে দিতেও পারে না। এ ধরনের অনুষ্ঠান, চালাকির অনুষ্ঠান।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে এই আলোচনা সভায় আয়োজন করে গণফোরাম।

অলোচনা সভায় জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জেএসডি) সভাপতি আ স ম আবদুর রব, গণফোরামের নির্বাহী সভাপতি অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফা মহসিন মন্টু, গণফোরাম নেতা অধ্যাপক আবু সাঈদ, মোকাব্বের খানসহ অনেকে বক্তব্য রাখেন।

আরো পড়ুন:

এমসি/এমকে

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়