logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬

জাতিসংঘে রোহিঙ্গা সমস্যার অগ্রগতি তুলতে ধরবো: প্রধানমন্ত্রী

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৯:২২ | আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৯:৫১
জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৩তম অধিবেশনে রোহিঙ্গা সমস্যার অগ্রগতি পর্যালোচনাসহ ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা আমরা বিভিন্ন সভায় তুলে ধরবো। এ ছাড়া অধিবেশনের সাইডলাইনে বিশ্বের গুরুত্বপূর্ণ নেতাদের সঙ্গে এ বিষয়ে আলোচনা হবে। বললেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। 

বুধবার (১৯ সেপ্টেম্বর) জাতীয় সংসদের প্রশ্নোত্তরে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, রোহিঙ্গাদের ফেরত নেয়ার ব্যাপারে মিয়ানমার কোনও পদক্ষেপও নিচ্ছে না। তবে বাংলাদেশে রোহিঙ্গাদের দীর্ঘমেয়াদে থাকার কোনও সুযোগ নেই। আন্তর্জাতিক চাপের মুখে মিয়ানমার রোহিঙ্গাদের ফেরত নিতে বাধ্য হবে।

তিনি বলেন, আমরা সব দেশের সঙ্গে আলোচনা করেছি। সবাই রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশের জন্য বিরাট বোঝা বলে স্বীকার করেছেন। মানবিক কারণে নির্যাতিত রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়ার জন্য তারা আমাদের সাধুবাদ জানিয়েছেন। মিয়ানমারের ওপর চাপ প্রয়োগে চীন, রাশিয়া, ভারতসহ সবার থেকে আমরা সাড়া পেয়েছি। রোহিঙ্গাদের ওপর অত্যাচার হয়েছে, তাদের সঙ্গে অমানবিক আচরণ হয়েছে, এ বিষয়ে সবাই একমত। 

তিনি আরও বলেন, রোহিঙ্গাদের নিজভূমিতে ফেরত নিতে হবে। এই চাপটা সবাই দিচ্ছেন, কেউ সরাসরি চাপ দিচ্ছেন, কেউ প্রকাশ্যে দিচ্ছেন, কেউ ভেতরে ভেতরে দিচ্ছেন।  কেউ কেউ হয়তো তাদের কূটনৈতিক কোনও পরিকল্পনার কারণে প্রকাশ্যে প্রকাশ্যে চাপ দেননি। কিন্তু আমাদের বলেছেন, মিয়ানমার যেন রোহিঙ্গাদের ফেরত নিয়ে যায়, তার জন্য যা যা করণীয়, তার সবই করবেন। আমাদের কূটনৈতিক সাফল্য এটাই যে, আমরা সবাইকে একমতে আনতে পেরেছি যে, মিয়ানমার তাদের বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে ফেরত নিয়ে যাবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা কাজ চালিয়ে যাচ্ছি। মিয়ানমারের সঙ্গে তিনটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। কিছু নামের তালিকাও প্রস্তুত হয়েছে। মিয়ানমার সরকার তাদের নিয়ে যাবে বলে স্বীকারও করেছে। যদিও স্বীকার করেছে কিন্তু এখনো নেয়ার মতো কোনও আগ্রহ দেখাচ্ছে না। পদক্ষেপ নিচ্ছে না। তবে, আমরা যথেষ্ট সক্রিয় আছি। তাদের নিজ দেশে ফেরত পাঠানোর বিষয়ে সফলতা অর্জন করতে পারবো বলে বিশ্বাস করি।
-------------------------------------------------------
আরও পড়ুন : জামায়াত-শিবির নিষিদ্ধের দাবি ছাত্রমৈত্রীর
-------------------------------------------------------

প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া প্রসঙ্গে বলেন, মান-অভিমান কোথায়, তা আমি জানি না। এটা নীতির প্রশ্ন, রাজনৈতিক সিদ্ধান্তের প্রশ্ন আর হচ্ছে আইনের প্রশ্ন। কেউ যদি অন্যায় করে,  অর্থ আত্মসাৎ করে, চুরি করে, খুন করে, খুনের প্রচেষ্টা চালায়, গ্রেনেড ও বোমা মারে। তার বিচার হবে এটাই স্বাভাবিক।

শেখ হাসিনা বলেন, দেশটা সবার। বিষয়টি এমন নয় যে, দেশটা আমাদের একার। যারা রাজনীতি করবেন, দেশের প্রতি তাদের দায়িত্ববোধ থাকতে হবে। সেই দায়িত্ববোধ থেকেই নিজেদের কর্মপন্থা ঠিক করবেন। সেই অনুযায়ী কাজ করবেন।

আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, আমি নিজের স্বার্থে রাজনীতি করি না। নিজেদের লাভ-লোকসানের জন্য রাজনীতি করি না। লাভ-লোকসানের বিচার করি না। সেই হিসাবও করি না। হিসাব করি জনগণের জন্য কী করলাম। তাদের কতটুকু করতে পারলাম। জনগণের জন্য রাজনীতি করি। সেভাবে পদক্ষেপ নেই এবং বাস্তবায়ন করি। 

তিনি বলেন, আন্তরিক ও নিঃস্বার্থভাবে দেশের মানুষের কল্যাণে কাজ করি বলেই অল্প সময়ে এত উন্নয়ন করতে সক্ষম হয়েছি। আমার কাছে ব্যক্তির থেকে দেশ ও দেশের মানুষের স্বার্থটাই বড়। ব্যক্তিগত হিসাব-নিকাশ করি না। কতটুকু দিতে পারলাম, সেই হিসাবটা করি। কী পেলাম, কী পেলাম না, সেই হিসাব করি না। 

আরও পড়ুন : 

এসজে/জেএইচ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • রাজনীতি এর সর্বশেষ
  • রাজনীতি এর পাঠক প্রিয়