• ঢাকা শুক্রবার, ২৪ মে ২০১৯, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬

‘খালেদা জিয়া চাইলে প্রতিদিন ২ কোটি টাকা জোগাড় করতে পারেন’

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
|  ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১৫:২৫ | আপডেট : ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১৭:১১
খালেদা জিয়ার এতিমের টাকা তোলা লাগবে কেন? তিনি চাইলেই প্রতিদিন ২ কোটি টাকা জোগাড় করতে পারেন। সরকার মনে করে, দেশের মানুষ বোকা, তারা কিছুই বুঝে না। তারা যা বলবে, সেটাই জনগণ বিশ্বাস করবে। দেশের জনগণ সরকারের সব অন্যায়-অবিচারের সময়মতো জবাব দেবে।

whirpool
আজ বুধবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে ডেমোক্রেটিক মুভমেন্ট আয়োজিত ‘কারাবন্দী দেশনেত্রী এবং বাংলাদেশের গণতন্ত্রের ভবিষ্যৎ’ শীর্ষক মুক্ত আলোচনায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান এসব কথা বলেন।

নজরুল ইসলাম খান বলেন, কোনো পাগলেও বিশ্বাস করে না খালেদা জিয়া তার স্বামীর নামে গঠিত ট্রাস্টের টাকা আত্মসাৎ করেছেন। যদি তিনি একবার বলতেন তার ২ কোটি টাকা প্রয়োজন, তাহলে খুব অল্প সময়ের মধ্যে সাধারণ মানুষই এরচেয়ে বেশি টাকা তাকে দিতেন। 

তিনি বলেন, রায়ের আগেই প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, এতিমের টাকা চুরির অভিযোগে বিচার হবে, এরশাদ সাহেব বলেছেন সাজা হবে এবং নাজিমুদ্দিন রোডের কারাগারেই রাখা হবে। এসব কিসের লক্ষণ? রাজনৈতিক প্রতিহিংসার।

নজরুল ইসলাম খান আরও বলেন, খালেদা জিয়াকে পুরান ঢাকার পরিত্যক্ত কারাগারে রাখা হয়েছে। যেখানে কোনো কয়েদি থাকে না। তাকে অন্যায়ভাবে কারাগারে রাখা হয়েছে সাধারণ কয়েদির মতো। সরকার খালেদা জিয়াকে কারাগারে নিয়ে তাকে মানসিকভাবে কষ্ট দিচ্ছে। এর মাধ্যমে তার ক্ষতি করতে পারেনি, বরং তার অবস্থান ও জনপ্রিয়তা বাড়িয়ে দিয়েছে। তিনি এখন দেশনেত্রী থেকে দেশের মানুষের মা হয়েছেন।

তিনি বলেন, আমি বিশ্বাস করি আগামীদিনে আমাদের সকলের সম্মিলিত চেষ্টায় খালেদা জিয়া মুক্ত হবেন, আমাদের মাঝে ফিরে আসবেন এবং আমরা তার নেতৃত্বে ও তারেক রহমানের নেতৃত্বে আগামীদিনে নির্বাচনে যাব এবং দেশ ও জনগণের কল্যাণে কর্মসূচি দেব।

আলোচনা সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন ডেমোক্রেটিক মুভমেন্টের সভাপতি শাহাদাত হোসেন সেলিম, বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব বরকতউল্লাহ বুলু, কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী, জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য আবু নাসের মোহাম্মদ রহমত উল্লাহ প্রমুখ।

আরও পড়ুন:

এসএস/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়