smc
logo
  • ঢাকা শনিবার, ৩১ অক্টোবর ২০২০, ১৬ কার্তিক ১৪২৭

এমসি’র ধর্ষকদের ছাত্রলীগকর্মী বলে চালানোর চেষ্টা হচ্ছে: লেখক

  আরটিভি নিউজ

|  ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৪:৫১ | আপডেট : ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৫:১৮
Leaders and activists of Sylhet Chhatra League
ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য
সিলেটের এম সি কলেজ ছাত্রাবাসে স্বামীকে আটকে নববধূকে গণধর্ষণের ঘটনায় দেশজুড়ে ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে নিন্দার ঝড় বইছে। অপকর্মের সাথে জড়িতাদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি উঠেছে বিভিন্ন মহলে। কেবল তাই নয়, চলমান পরিস্থিতিতে সিলেটের ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরাও সুষ্ঠু বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ-সমাবেশ করছে। এম সি কলেজের ধর্ষকরা ছাত্রলীগের কর্মী, এমন অভিযোগের প্রেক্ষিতে কোনো প্রকার দায়-দায়িত্ব নিতে নারাজ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য। যদিও তিনি তার বক্তব্যে বলেছেন, ওই কলেজে ছাত্রলীগের কমিটি না থাকলেও অবশ্যই ছাত্রলীগের কর্মীরা রয়েছেন।

গতকাল শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) সিনিয়র সাংবাদিক শ্যামল দত্তের সঞ্চালনায় আরটিভি’র জনপ্রিয় অনুষ্ঠান ‘এই মুহুর্তে বাংলাদেশ’ এর ‘ছাত্রলীগনামা’ বিষয়ে ভার্চুয়াল সাক্ষাৎকারে অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য।

শ্যামল দত্ত সিলেটের এমসি কলেজে ছাত্রলীগকর্মীদের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগের প্রসঙ্গ টানলে লেখক ভট্টাচার্য বলেন, ২০১১ সাল থেকে ওই কলেজে ছাত্রলীগের কমিটি নেই। তবে সেখানে আমাদের সংগঠনের কর্মীরা অবশ্যই আছে। এখন প্রশ্ন হচ্ছে এই অপরাধের দায়টা কার? সেটি নিশ্চিত হতে হবে। যাদের নাম এসেছে, তাদেরকে ছাত্রলীগকর্মী বলে চালানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। আসলে তাদের ছাত্রত্ব পর্যন্ত নেই। আমাদের ছাত্রলীগের নির্দিষ্ট বয়সসীমা ও বিধি বিধান আছে। আমদের নির্দেশনা যারা মেনে চলে তাদেরকেই আমরা ‘অউন’ করি। আপনারা জানেন ছাত্রলীগকে জড়িয়ে যদি কোনো সংবাদ প্রকাশ পায়, তাহলে সেটির ওজন বৃদ্ধি পায়। সেই জন্য আমরা সবসময় সমাজের ক্রোধের শিকার হই।

লেখক ভট্টাচার্য আরও বলেন, সংঘটনকে সুষ্ঠুভাবে পরিচালনা করার জন্য আমরা নির্দেশনা দিয়ে থাকি। সে নির্দেশনা পরিপন্থী যেসব কাজগুলো মানুষ করে থাকে তা ছাত্রলীগের কর্মী হোক বা না হোক আমরা কিন্তু তার দায় দায়িত্ব কিছুতেই নিতে পারবো না।

তিনি আরও বলেন, লকডাউনকালীন সময়ে যখন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ আছে তখন কোনো ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগের কোনো নেতাকর্মীর অবস্থানের কোনো সুযোগ নেই। আর কমিটি না থাকার পরও তারা সেখানে কিভাবে আছে এটা আমাদের বোধগম্য নয়, আমার মনে হয় সেটা কলেজের প্রশাসনই ভালো বলতে পারবে। করোনাকালে আমরা যেসব কার্যক্রমগুলো পরিচালনা করছি এখানে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আমরা কোনো প্রকার কার্যক্রম পরিচালনা করছি না। এমনকি আমরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কোনো কমিটিতে পর্যন্ত হাত দেইনি। এই অপকর্ম যারা করেছে এদের সাথে জড়িত প্রত্যেকেরই বাংলাদেশের আইন এবং বিচার বিভাগীয় নিয়ম অনুযায়ী সরবচ্চ শাস্তি যেন নিশ্চিত হয় সেই লক্ষেই আমরা কাজ করব। এবং যতক্ষণ পর্যন্ত না বিচার নিশ্চিত হয় বাংলাদেশ ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে আমরা বিচার দাবি জানাব।

উল্লেখ্য, গৃহবধূকে গণধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত ৬ জনসহ অজ্ঞাত আরও ২/৩ জনকে আসামি করে সিলেট নগরীর শাহপরান থানায় গতকাল শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) রাতে ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন ভূক্তভোগী নববধুর স্বামী। ওই মামলায় আজ রোববার (২৭ সেপ্টেম্বর) সকালে প্রধান আসামি সাইফুর রহমান এবং এজহারভূক্ত ৪নং আসামি অর্জুন লস্করকে গ্রেপ্তার করে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। ধর্ষণের ঘটনার রেশ ধরে কলেজ ছাত্রাবাস অভিযান চালিয়ে অস্ত্র উদ্ধারের পর আরো একটি মামলা দায়ের হয়।

আরও পড়ুন: ছাত্রাবাসে গৃহবধূকে গণধর্ষণ: প্রধান আসামি সাইফুর রহমান গ্রেপ্তার

এইচএন/কেএফ

RTVPLUS
bangal
corona
দেশ আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ৪০৩০৭৯ ৩১৯৭৩৩ ৫৮৬১
বিশ্ব ৪,৪৩,৫৭,৬৭১ ৩,২৫,০৫,১৫৫ ১১,৭৩,৮০৮
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • রাজনীতি এর সর্বশেষ
  • রাজনীতি এর পাঠক প্রিয়