Mir cement
logo
  • ঢাকা রোববার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ২ কার্তিক ১৪২৮

ই-অরেঞ্জ: মামলার তদন্তে ৪৫০ কোটি টাকার হদিস নেই

ই-অরেঞ্জ

অনলাইন প্ল্যাটফর্মে লোভনীয় অফারে পণ্য কিনতে গিয়ে বারবার প্রতারিত হচ্ছেন গ্রাহকরা। এই প্রতারণার ফাঁদে পড়েছেন ই-অরেঞ্জের গ্রাহকরা। প্রতিষ্ঠানটির সিটি ব্যাংক ও ব্র্যাক ব্যাংকে এক বছরে ১ হাজার ৬৫০ কোটি টাকা জমা হলেও এখন ব্যাংক দুটির অ্যাকাউন্টে মাত্র ৩ কোটি ১২ লাখ ১৪ হাজার ৩৬৫ টাকা আছে।

ই-অরেঞ্জের বিরুদ্ধে গ্রাহকদের ১,১০০ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগের মামলার তদন্ত করতে গিয়ে তদন্তসংশ্লিষ্টও প্রায় ৪৫০ কোটি টাকার হদিস পাচ্ছেন না।

গুলশান থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আমিনুল ইসলাম গণমাধ্যমকে বলেন, প্রাথমিকভাবে জানা গেছে গ্রাহকদের ৪০০ থেকে ৪৫০ কোটি টাকার হদিস নেই। বিষয়টি আরও নিশ্চিত হতে তদন্ত চলছে। আমরা তিন আসামিকে পাঁচ দিনের রিমান্ডে পেয়েছি। যাচাই-বাছাই করে শিগগিরই মামলাটির একটি সুরাহা করতে পাবর।

জানা গেছে, গত বছরের সেপ্টেম্বর থেকে চলতি বছরের জুন পর্যন্ত ই-অরেঞ্জের সিটি ব্যাংকের অ্যাকাউন্টে জমা পড়ে ৬২০ কোটি ৬৭ লাখ ২০ হাজার ৭২৯ টাকা। আর এ বছরের ফেব্রুয়ারি থেকে জুন পর্যন্ত ব্র্যাক ব্যাংকে প্রতিষ্ঠানটির আরেকটি হিসাবে জমা পড়ে ৩৯১ কোটি ৬৭ লাখ ৬১ হাজার ৮৭৯ টাকা। ব্যাংক দুটি থেকে প্রায় পুরোটাই তুলে নেয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে ডিবির তেজগাঁও বিভাগের উপকমিশনার ওয়াহিদুল ইসলাম বলেন, মামলার তদন্তে গিয়ে দেখলাম, যে অঙ্কের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ এসেছে সব ঠিক নয়। কারণ ই-অরেঞ্জের অর্ডারের বিপরীতে গ্রাহকদের যে মোটরসাইকেল বুঝিয়ে দেয়া হয়েছে ভেন্ডরদের কাছ থেকে সেসব প্রমাণ পাচ্ছি। শিগগিরই মামলাটির ফাইনাল রিপোর্ট দেয়া হবে।

এফএ

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS