Mir cement
logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল ২০২১, ১০ বৈশাখ ১৪২৮

স্মার্টফোন ব্যবহারে নেপালের চেয়ে পিছিয়ে বাংলাদেশ

স্মার্টফোন ব্যবহারে নেপালের চেয়ে পিছিয়ে বাংলাদেশ
ফাইল ছবি

ফোর-জি নেটওয়ার্কের আওতার দিক দিয়ে ভারতের ঠিক পরে বাংলাদেশের অবস্থান। তবে স্মার্টফোন ব্যবহারে দিক থেকে নেপালের পেছনে বাংলাদেশের অবস্থান। বর্তমানে নেপালে ৫৩ শতাংশ মানুষ স্মার্টফোন ব্যবহার করছে। অন্যদিকে বাংলাদেশে ৪১ শতাংশ মানুষ স্মার্টফোন ব্যবহার করে।

আজ সোমবার (৩০ মার্চ) মোবাইল ফোন অপারেটরদের বৈশ্বিক সংগঠন জিএসএমএর এক প্রতিবেদনে এমন চিত্র উঠে এসেছে। যেখানে বাংলাদেশের পিছিয়ে থাকার কারণ হিসেবে স্মার্টফোনে উচ্চ করকে দেখানো হয়েছে।

জিএসএমএর প্রতিবেদন বলছে, ভারতে ৬৯, পাকিস্তানে ৫১, নেপালে ৫৩ ও শ্রীলঙ্কায় ৬০ শতাংশ মুঠোফোন ব্যবহারকারীর হাতে স্মার্টফোন রয়েছে। আর বাংলাদেশে ৫৯ শতাংশ মানুষ এখনো ফিচার ফোন ব্যবহার করছে।

দেশে মোবাইল সংযোগের সংখ্যা ১৭ কোটির বেশি। এর মধ্যে ইউনিক ইউজার ৫৪ শতাংশ। ইউনিক ইউজারের ক্ষেত্রে এক ব্যক্তির একাধিক সিম থাকলেও তাকে একজন ধরে হিসাব করা হয়।

ফোর-জি নেটওয়ার্কের আওতার দিক থেকে দেশের অবস্থান ভারতের ঠিক পরে। বাংলাদেশের মুঠোফোন ব্যবহারকারীদের ৪৭ শতাংশ টু-জি, ২৫ শতাংশ থ্রি-জি ও ২৮ শতাংশ ফোর-জি ব্যবহার করেন। থ্রি-জি ও ফোর-জি ব্যবহারে এগিয়ে রয়েছে ভারত। দেশটিতে ৬৮ শতাংশ মুঠোফোন ব্যবহারকারী দ্রুতগতির ইন্টারনেট ব্যবহার করেন, যার মধ্যে ৬৩ শতাংশই ফোর-জি।

জিএসএমএর প্রতিবেদনে বলা হয়, বাংলাদেশে একটি মুঠোফোনের মালিক হতে যে কর দিতে হয়, তা ভারত ও পাকিস্তানের চেয়ে অনেক বেশি। যার ফলে বাংলাদেশে স্মার্টফোন ব্যবহারের সংখ্যা নেপালের চেয়ে কম।

আরএস/এসএস

RTV Drama
RTVPLUS