Mir cement
logo
  • ঢাকা রোববার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৪ আশ্বিন ১৪২৮

পান্তা, ভাজা মাছ আর ভর্তা নিয়ে ‘মাস্টারশেফ অস্ট্রেলিয়া’র ফাইনালে কিশোয়ার চৌধুরী

‘মাস্টারশেফ অস্ট্রেলিয়া’র প্রতিযোগিতায় সেরা হওয়ার দ্বারপ্রান্তে কিশোয়ার চৌধুরী

রান্নাবিষয়ক জনপ্রিয় রিয়েলিটি শো ‘মাস্টারশেফ অস্ট্রেলিয়া’ প্রতিযোগিতায় সেরা হয়ে বিজয়ের মুকুট পরার দ্বারপ্রান্তে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত কিশোয়ার চৌধুরী। পুরো প্রতিযোগিতায় বাঙালিয়ানা খাবার ভাজা মাছ, ভর্তা আর পান্তা তৈরি করে বিচারকদের মন জয় করে ফাইনালে পৌঁছেছেন এই বাংলাদেশী নারী।

এখন শুধু অপেক্ষা গ্র্যান্ড ফিনালের। তবে দুইদিন ব্যাপী গ্র্যান্ড ফিনাল অনুষ্ঠান সোমবার (১২ জুলাই) থেকে শুরু হচ্ছে, চলবে আগামীকাল মঙ্গলবার (১৩ জুলাই) পর্যন্ত। এরপরই পর্দা নামবে অনুষ্ঠানটির ১৩তম আসরের।

মাস্টারশেফ অস্ট্রেলিয়ার এবারের প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী কিশোয়ার চৌধুরী বিদেশি কোনো খাবার রান্না করেননি। দেশি সব খাবার রান্না করে বিচারকদের ময় জয় করে নিয়েছেন। তার রান্না করা কালা ভুনায় মুগ্ধ হয়েছিলেন মাস্টারশেফ অস্ট্রেলিয়ার বিচারকরা। এরপর খাসির রেজালা, ফুচকা, চটপটি, সমুচা, লাউ চিংড়ি, বেগুন ভর্তা, খিচুড়ি, আমের টকের মতো রেসিপি দিয়ে রীতিমতো বিচারকদের মাতিয়ে তুলেছেন।

ইতোমধ্যে কিশোয়ার চৌধুরীর পক্ষে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে চলছে ‘গো কিশোয়ার’ হ্যাশট্যাগ ঝড়। এবারের প্রতিযোগিতায় তিনিই জয়ের মুকুট পরিধান করবেন বলে স্থানীয় গণমাধ্যমে নিউজ প্রচারিত হচ্ছে।

কিশোয়ারের বাবা একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা। বাড়ি ঢাকার বিক্রমপুরে। মায়ের বাড়ি কলকতায়। আজ থেকে ৫০ বছর আগে অস্ট্রেলিয়ায় পাড়ি জমান তার মা-বাবা। সেখানেই জন্ম হয় কিশোয়ারের। ভিক্টোরিয়া রাজ্যের মেলবোর্নের বাসিন্দা কিশোয়ার চৌধুরীর জন্ম ও বেড়ে উঠা অস্ট্রেলিয়াতেই। পেশায় তিনি একজন ‘বিজনেস ডেভেলপার’। দুই সন্তানের মা এই নারী সন্তানদের জন্য বাংলাদেশি খাবার রান্না করতে গিয়েই পরিবারের কাছ থেকে শিখেছেন নানান রেসিপি। তাকে নিয়ে বাংলাদেশিদের মতোই গর্বিত তার পরিবারও।

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS