Mir cement
logo
  • ঢাকা বুধবার, ১৯ মে ২০২১, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮

ভারতে নথিভুক্তর থেকেও প্রায় ৫ গুণ প্রকৃত মৃত্যুর সংখ্যা!

ভারতে নথিভুক্তর থেকেও প্রায় ৫ গুণ প্রকৃত মৃত্যুর সংখ্যা!
ভারতে নথিভুক্তর থেকেও প্রায় ৫ গুণ প্রকৃত মৃত্যুর সংখ্যা!

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ে বিপর্যস্ত ভারত। দেশটিতে ইতোমধ্যে প্রায় ১ কোটি ৮০ লক্ষ মানুষ করোনা আক্রান্ত হয়েছে। তবে বিশেষজ্ঞদের দাবি প্রকৃত সংখ্যা এর থেকে অনেক বেশি। এমনকি নথিভুক্ত মৃত্যুর থেকে প্রায় ৫ গুণ প্রকৃত মৃত্যুর সংখ্যা বলেও দাবি করছেন তারা।

বুধবার (২৮ এপ্রিল) আনন্দবাজারের এক প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে এ তথ্য। সংবাদ সংস্থা সিএনএনএন’র সূত্র ধরে এই প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর প্রকৃত সংখ্যা নথিভুক্ত মৃত্যুর প্রায় ৩০ গুণ। অর্থাৎ, সঠিক নথিভুক্ত হলে আক্রান্তের সংখ্যা ৫০ কোটি ছাড়াত।

নয়াদিল্লির সেন্টার ফর ডিজিজ ডাইনামিক্স ইকোনোমিক্স অ্যান্ড পলিসি’র ডিরেক্টর রামনন লক্ষ্মীনারায়ণ জানিয়েছেন, আক্রান্ত-মৃত্যুর সংখ্যায় যে গরমিল রয়েছে তা সকলেই জানে। মৃত্যুও অনেক কম নথিভুক্ত হচ্ছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) চিফ সায়েন্টিস্ট সৌম্যা স্বামীনাথন বলেছেন, ভারতে নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা অনেক বেড়েছে। প্রতিদিন প্রায় ২০ লক্ষ নমুনা পরীক্ষা করা হচ্ছে। তবে তা এখনো সন্তোষজনক নয়। ভারতে সংক্রমণ হার ১৫ শতাংশ। দিল্লির মতো কিছু শহরে এই হার ৩০ শতাংশ। এ থেকে স্পষ্ট বুঝা যাচ্ছে নমুনা পরীক্ষা হতো বলেই অনেক আক্রান্তের খোঁজ মিলতো না।

তিনি আরও বলেন, সমীক্ষায় দেখেছি অনেক মানুষের শরীরে অ্যান্টিবডি রয়েছে। যার অর্থ কোনো না কোনো সময় আক্রান্ত হয়েছিলেন তারা। যা নথিভুক্ত হয়েছে তার থেকেও অন্তত ২০-৩০ শতাংশ গুণ প্রকৃত আক্রান্তের সংখ্যা।

মিশিগান বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োস্ট্যাটিসটিক্স ও এপিডেমায়োলজির অধ্যাপক ভ্রমর মুখোপাধ্যায় জানিয়েছেন, বর্তমানে বিভিন্ন শহরে যেভাবে গণহারে করোনায় আক্রান্তদের শেষকৃত্য হচ্ছে তা থেকে স্পষ্ট বোঝাই যাচ্ছে প্রকৃত মৃত্যুর বেশির ভাগই নথিভুক্ত হয়নি। আমাদের ধারণা নথিভুক্ত মৃত্যুর থেকে প্রায় ৫ গুণ প্রকৃত মৃত্যুর সংখ্যা।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীন থেকে সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর বিশ্বব্যাপী ছড়িয়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। গত বছরের ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

এসআর/

RTV Drama
RTVPLUS