logo
  • ঢাকা শনিবার, ২৮ মার্চ ২০২০, ১৪ চৈত্র ১৪২৬

প্রবাসী নারীর চিকিৎসক ও নার্সসহ কোয়ারেন্টিনে ২১ 

কক্সবাজার প্রতিনিধি
|  ২৫ মার্চ ২০২০, ১১:৫৪
প্রবাসী নারীর চিকিৎসক ও নার্সসহ কোয়ারেন্টিনে ২১
কক্সবাজারের করোনাভাইরাসে আক্রান্ত সৌদি আরব প্রবাসী নারীর চিকিৎসা প্রদানকারী চিকিৎসক ও নার্সসহ ২১ জনকে কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয়েছে। চকরিয়ার খুটাখালী এলাকার এ নারী গত ১৫ মার্চ সৌদি আরব থেকে দেশে এসেছেন। ষাটোর্ধ্ব এ নারীকে কক্সবাজার সদর হাসপাতাল থেকে চট্টগ্রামের বিশেষ হাসাপাতালে পাঠানো হয়েছে। 

ওই নারী সৌদি আরব থেকে এসে চট্টগ্রাম, চকরিয়া ও কক্সবাজার শহরে যে বাড়িটিতে ছিলেন ওই ৪টি বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে। ওই নারীকে চিকিৎসা প্রদানকারী চিকিৎসক ও নার্সসহ ২১ জনকে কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয়েছে। জেলায় কোয়ারেন্টিনে আছে ২৮০ জন। এর মধ্যে ২২৮ জন প্রবাসী ও তাদের স্বজন। কারাগারে রয়েছে ৪৭ জন। 

ভারত হতে অবৈধভাবে আসা এক রোহিঙ্গা পরিবারের ৪ জন ও অস্ট্রেলিয়া থেকে আসা ১ জনসহ ৫ জনকে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে নেওয়া হয়েছে। টেকনাফের লেদা রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আইওএম এর হাসপাতালে রাখা হয়েছে তাদের। জনসাধারণের বিনা প্রয়োজনে যাতায়াত সীমিতকরণ, করোনাভাইরাস থেকে সতর্ক থাকতে জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে শহরজুড়ে মাইকিংসহ প্রচারণা চলমান রয়েছে। 

কক্সবাজার শহরজুড়ে বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দোকান, ওষুধের দোকান ছাড়া অন্যান্য দোকান বন্ধ করে দেয়া হচ্ছে। দুরপাল্লার গাড়ি চলাচল বন্ধ রয়েছে। অনেকটা নিস্তব্ধ রয়েছে পর্যটন শহর। কক্সবাজারের আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের ৩৪টি ক্যাম্পে জরুরি সেবা ছাড়া সব কার্যক্রম স্থগিত করা হয়েছে।

কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন জানান, ওই নারী কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। তার নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় আইইডিসিআর এ পাঠানো হয়েছিল। আজ (গতকাল) এ রিপোর্ট হাতে পাওয়া গেছে। রিপোর্ট পাওয়ার পর পরই এ নারীকে চিকিৎসা প্রদানকারী চিকিৎসক ও নার্সদের কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয়েছে। করোনা প্রতিরোধে ভারত হতে অবৈধভাবে আসা এক রোহিঙ্গা পরিবারের ৪ জন ও ও অস্ট্রেলিয়া থেকে আসা ১ জনসহ ৫ জনকে কোয়ারেন্টিনে নেওয়া হয়েছে। তারা এখন লেদা আইওএম হাসপাতালে রয়েছে। 

তিনি আরও বলেন, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে সেনাবাহিনীর সদস্যরা মাঠে কাজ করছে। কক্সবাজারের সদর, রামু, উখিয়া, চকরিয়া ও পেকুয়া উপজেলায় ৯টি টিম থাকবে। এছাড়া টেকনাফ, মহেশখালী ও কুতুবদিয়ায় কাজ করবে নৌ বাহিনীর সদস্যরা।
পি
 

সংশ্লিষ্ট সংবাদ : করোনাভাইরাস

আরও
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • স্বাস্থ্য এর সর্বশেষ
  • স্বাস্থ্য এর পাঠক প্রিয়