logo
  • ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

আরটিভি নিউজ

  ১৪ নভেম্বর ২০২০, ১৩:৪৩
আপডেট : ১৪ নভেম্বর ২০২০, ১৩:৫৮

বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস

সব বয়সের মানুষ এখন ডায়াবেটিস ঝুঁকিতে

ডায়াবেটিস চিকিৎসা
আজ শনিবার (১৪ নভেম্বর) বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস। বিশ্বের সব দেশের মতো নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশেও ‘বিশ্ব ডায়াবেটিকস দিবস ২০২০’ পালিত হচ্ছে। 

সারাবিশ্বে মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়েছে ডায়াবেটিস। পাঁচদিনের শিশুর শরীরেরও এখন এই রোগটি ধরা পড়ছে। সুতরাং জীবন রক্ষার মন্ত্র এখন সচেতনতার মধ্যে দিয়ে হতে পারে। এটি শুধুমাত্র ধনী দেশের রোগ নয়। উন্নয়নশীল রাষ্ট্রেও আরও বেশি ছড়িয়ে পড়েছে। যদিও টাইপ-২ ডায়াবেটিকস ৭০ শতাংশ সম্পূর্ণ প্রতিরোধ করা যায়।

ভয় পাওয়ার কারণ হলো ডায়াবেটিস রোগ একবার হলে সেটা পুরোপুরি ভালো হয় না। তখন নিয়ন্ত্রণের মাধ্যমে ভালো থাকতে হয়। তবে ভাবনার কারণ হচ্ছে ডায়াবেটিস আছে এমন রোগীদের মধ্যে অন্তত ৫০ শতাংশ জানেন না যে তার ডায়াবেটিস আছে। এই কারণে জনসচেতনতা বাড়ানো খুবই জরুরি।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় মেডিকেল সেন্টারের সিনিয়র মেডিকেল অফিসার ডা. মোহাম্মদ তানভীর আলী আরটিভি নিউজকে বলেন, বাংলাদেশে কত মানুষ এই রোগে আক্রান্ত সে বিষয়ে সুনির্দিষ্ট কোনও পরিসংখ্যান নেই। তবে আক্রান্ত সংখ্যা যে আশাষ্কাজনক হারে বাড়ছে তা নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই। শিশু থেকে শুরু করে সব বয়সের মানুষ এখন ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হচ্ছে প্রতিদিন। এই রোগ থেকে মুক্তির উপায় সচেতনতা আর প্রতিদিন অল্প সময় করে হলেও ব্যায়াম করা। যদি এই রোগটি কারো হয় তাহলে ভয় না পেয়ে নিয়মিত চিকিৎসা সেবা নিতে হবে এবং খাবার তালিকা পরিবর্তন করতে হবে।

বিশ্ব আজ করোনার কারণে ভয়াবহ পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে, সেই সময় বিশ্বে আজ পালিত হচ্ছে ‘বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস ২০২০’। এ বছর দিবসের প্রতিবাদ্য নির্ধারিত করা হয়েছে, সেবায় পার্থক্য আনতে পারেন নার্সরাই। জীবন যেহেতু থেমে নেই তাই ডায়াবেটিস সম্পর্কে গণসচেতনতা সৃষ্টিই ‘বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস’-এর প্রধান লক্ষ্য। দিবসটি উপলক্ষে সারা দেশে ব্যাপক প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। প্রতি বছরের মতো বাংলাদেশসহ ১৭০টি দেশে এ দিবস পালিত হচ্ছে বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে।  ডায়াবেটিস সম্পর্কে গণসচেতনতা সৃষ্টিই ‘বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস’ এর প্রধান লক্ষ্য।

জিএম/ এমকে  

RTVPLUS