গল্প করার কথা বলে তরুণীকে ধর্ষণ, রাবির দুই শিক্ষার্থী কারাগারে

প্রকাশ | ১২ মার্চ ২০২০, ১৮:৩৭

রাবি সংবাদদাতা, আরটিভি অনলাইন

ধর্ষণ মামলায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) দুই শিক্ষার্থীকে গ্রেপ্তার করেছে মতিহার থানা পুলিশ। বুধবার (১১ মার্চ) মধ্যরাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শাহ মখদুম হলের একটি রুম থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে তাদেরকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানান মতিহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসুদ পারভেজ।

তারা হলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের লোক প্রশাসন বিভাগের ২০১৪-১৫ সেশনের শিক্ষার্থী জাহিদ হাসান শোভন ও সমাজবিজ্ঞান বিভাগের ২০১৫-১৬ সেশনের শিক্ষার্থী তরুন কুন্ড।

মতিহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসুদ পারভেজ জানান, বুধবার রাত সাড়ে ১০ টার দিকে ভুক্তভোগীর বাবা থানায় এসে মামলা করেন। ওইদিনই রাত দেড়টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হল শাহ মখদুম (এসএম) হল থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। তাদের মধ্যে জাহিদ হাসান শোভনকে ধর্ষণ এবং তরুন কুন্ডকে ধর্ষণে সহযোগিতা করার জন্য গ্রেপ্তার করা হয়।

মামলার এজাহার উল্লেখ করা হয়েছে, ভুক্তভোগী ভর্তি পরীক্ষার প্রস্তুতির জন্য জাহিদ হোসেনের কাছে প্রাইভেট পড়তেন। এরই একপর্যায়ে তাদের দু’জনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এর মধ্যে গত ১৫ ফেব্রুয়ারি দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে গল্প করার কথা বলে রাজশাহী কমার্স কলেজের পাশে তরুণের এক আত্মীয়র বাসায় নিয়ে ধর্ষণ করে জাহিদ। এর কিছুক্ষণ পরে তরুন কুন্ড ঔষধ নিয়ে এসে দু’জন মিলে তাকে ঔষধটি খাওয়ায়। বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ঘটনাটি প্রকাশ না করতে বলেন জাহিদ। কিন্তু পরবর্তীকালে ভুক্তভোগীকে বিয়ে করতে রাজি না হলে থানায় এসে জাহিদের বিরুদ্ধে ভুক্তভোগীর বাবা মামলা দায়ের করেন।

এজে