logo
  • ঢাকা বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ১০ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

শাবি’র হল বন্ধের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ অব্যাহত

  শাবি সংবাদদাতা, আরটিভি অনলাইন

|  ২১ নভেম্বর ২০১৯, ২১:৪৩
শাবি’র হল বন্ধের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ অব্যাহত
শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের তৃতীয় সমাবর্তনকে কেন্দ্র করে শীতকালীন ছুটির মধ্যে আবাসিক হল বন্ধের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে দ্বিতীয় দিনের মত মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছে শিক্ষার্থীরা।

বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে শতাধিক শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে প্রথমে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এরপর শিক্ষার্থীরা একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে। মিছিলটি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন একাডেমিক ভবন প্রদক্ষিণ শেষে উপাচার্য ভবনের সামনে গিয়ে প্রতিবাদ সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়।

ফয়সল আহমেদ শুভ’র  সঞ্চালনায় প্রতিবাদ সমাবেশে সাধারণ শিক্ষার্থীদের পক্ষে বক্তব্য রাখেন তানভীর আকন্দ, সুদীপ্ত ভাস্কর অর্ঘ্য, নিশাত জাহান নিসা, তাবিয়া তাসনিম আনিকা, নাজিরুল আজম, স্বপন আহমেদ।

সমাবেশে শিক্ষার্থীরা বলেন, শীতকালীন ছুটি পিছিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তাতে আমাদের আপত্তি নেই। কিন্তু আবাসিক হল বন্ধ থাকবে কেন? এমন প্রশ্ন রেখে শিক্ষার্থীরা আরও বলেন, অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ে সমাবর্তনের সময় হল বন্ধ করা হয় না। বরং সমাবর্তনের দিন একটি নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত হলে প্রবেশ ও বের হওয়া বন্ধ করে দেওয়া হয়।

এ সময় তাবিয়া তাসনিম আনিকা নামের এক শিক্ষার্থী বলেন, ‘ক্যাম্পাসকে যদি নিরাপদই মনে না করা হয় তাহলে সীমানা প্রাচীর দেওয়ার কারণ কি, শোভাবর্ধন? আর শীতকালে মেয়েদের হলে প্রবেশের জন্য এক ঘন্টা এগিয়ে নিয়ে আসা হয়েছে কিন্তু ক্লাস-পরীক্ষা তো এক ঘন্টা আগানো হয়নি। ছেলেদেরকে হলে প্রবেশের সময় সীমা না দিলেও মেয়েদেরকে কেন ৭টার আগে হলে ঢুকতে হবে।’ 

সমাবেশে তানভীর আকন্দ নামের আরেক শিক্ষার্থী অভিযোগ করে বলেন, ‘ক্যাম্পাসে কোনো সুস্থ কালচার তৈরি হতে দেওয়া হচ্ছে না। সাংস্কৃতিক কর্মকান্ড করতে দেওয়া হচ্ছে না। ক্যাম্পাসকে শূন্য করে ফেলা হচ্ছে। সুস্থ কালচার না থাকায় শিক্ষার্থীরা ডিপ্রেশনে ভুগছে ও মাদকাসক্ত হয়ে পড়ছে।’

হল বন্ধের বিষয়ে উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ আরটিভি অনলাইনকে বলেন, ‘এ বিষয়ে আমি কোনো মন্তব্য করবো না। এটি বিশ্ববিদ্যালয়ের সিদ্ধান্ত, সামনে সমাবর্তন আছে। আর এসএসএফ এর নিদের্শনাও আছে। সর্বোচ্চ নিরাপত্তা এবার নিশ্চিত করা হবে।’ তিনি আরও বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বার্থে আমরা সিদ্ধান্ত নেই। আমরা সব সময় চাই আমাদের শিক্ষর্থীরা ভালো থাকুক, সুস্থ থাকুক।’

প্রসঙ্গত, আবাসিক হল বন্ধের প্রতিবাদে ও নিরাপত্তার বিষয় বিবেচনায় নিয়ে সমাবতর্নের সময় ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থীদের প্রবেশাধিকার দেওয়ার জন্য গতকাল বুধবার দুপুরে বিশ^বিদ্যালয়ে সাধারণ শিক্ষার্থীরা মানববন্ধন করেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুমতি না নিয়ে মানববন্ধন করায় এ সময় প্রক্টরিয়াল বডি মানববন্ধনে বাধা প্রদান করেন।

 এজে/ এমকে

RTVPLUS
bangal
corona
দেশ আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ৪৪৭৩৪১ ৩৬২৪২৮ ৬৩৮৮
বিশ্ব ৫৮৬১২৯৯৫ ৪০৫৭৫৯৪৭ ১৩৮৮৭১০
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • শিক্ষা এর সর্বশেষ
  • শিক্ষা এর পাঠক প্রিয়