• ঢাকা বুধবার, ১৯ জুন ২০১৯, ৫ আষাঢ় ১৪২৬

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়

তানিয়ার তকমা

ইমানুল সোহান
|  ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৯:৪৮ | আপডেট : ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৯:৫১
তানিয়া আফরোজের ডাক নাম তমা। যার নামের সাথে প্রতিভার তমকা ছড়াচ্ছে চারিদিক। পড়ালেখা, খেলাধুলা আর গানের মধ্য দিয়ে তার প্রতিভার স্বাক্ষরটা বেশ টের পাওয়া যায়। চলুন বিস্ময় জাগানো তানিয়ার সাথে আপনাদের পরিচয় করিয়ে দিই।

whirpool
ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনফরমেশন এন্ড কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষার্থী তানিয়া আফরোজ তমা। পড়ছেন চতুর্থ বর্ষে। পড়ালেখা সামলে কীভাবে তিনি খেলাধুলা আর গানে ক্যাম্পাসের প্রিয়মুখ হয়ে উঠেছেন। 

ছোটবেলা থেকে ছেলেদের সাথে ক্রিকেট ও ব্যাডমিন্টন খেলতেন তমা। কুষ্টিয়ার মেয়ে তমা কুমারখালি পাইলট বালিকা উচ্চ মাধ্যমিকে পড়ার সময়ে খেলাধুলায় সাফল্য পেয়েছেন। ২০০৯ ও ২০১০ সালে আন্তঃস্কুল ব্যাডমিন্টন প্রতিযোগিতায় খুলনা বিভাগে চ্যাম্পিয়ন তমা। 

আর ২০০৯ সালে আন্তঃস্কুল ব্যাডমিন্টনে  খুলনা বিভাগ পেরিয়ে জাতীয় পর্যায়ে রানার্সআপ হয় তমা। আর সেই বছরেই দক্ষিণ কোরিয়ার ব্যাডমিন্টন প্রশিক্ষক সাইমনের অধীনে ব্যাডমিন্টন ক্যাম্প করে তমা। 

মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিকের গন্ডি পেরিয়ে তমা ভর্তি হন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে। ক্যাম্পাসের মুক্ত প্রাঙ্গণ তার প্রতিভা বিকাশের উত্তম স্থানে পরিণত হয়। ভর্তি হওয়ার পর থেকেই ব্যাডমিন্টনে আলো ছড়াচ্ছেন তমা। আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় ব্যাডমিন্টন প্রতিযোগিতায় ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের হয়ে টানা দু’বার চ্যাম্পিয়ন। 

এছাড়াও দু’বার রানার্স আপের তকমা আছে তমার। শুধু কী খেলাধুলায়? পড়ালেখায়ও তমার তমকাটা বেশ ভালো। বিভাগের দ্বিতীয় স্থানটা যে তাঁরই। এছাড়াও নিজ হলের হয়ে ব্যাডমিন্টন, টেবিল টেনিস ও ক্রিকেটে চ্যাম্পিয়ন নৌপুণ্য রয়েছে তার। 

এসবের পাশাপাশি গানের সাথে বেশ সখ্য আছে তার। একটু সময় পেলেই গিটার হাতে গানটা বেশ ভালই গান তমা। তমার এই পথচলায় বাবা-মায়ের বাহবা পান সবসময়। তমা বললেন, ‘সবকিছু ঠিক রেখে বাবা-মায়ের গর্বিত সন্তান হতে চাই আমি।’

কথায় কথায় আরও অনেক সংকল্পের কথা শোনালেন তমা। পড়াশুনার পাশাপাশি খেলাধুলার সাথে থাকার ইচ্ছাটা পোষণ করলেন খুশি মনে। বললেন, সমাজের প্রতিবন্ধতাকে পাশ কাটিয়ে এগিয়ে যেতে চাই বহুদূর।

এসজে

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়