Mir cement
logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ৪ আষাঢ় ১৪২৮

চবিতে প্রতি আসনে ৩৭ শিক্ষার্থী লড়বেন

চবিতে প্রতি আসনে ৩৭ শিক্ষার্থী লড়বেন

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি হতে ১ লাখ ৮৪ হাজার ৮৭০ জন শিক্ষার্থী অনলাইনে আবেদন করেছেন। তবে বিশ্ববিদ্যালয়ে এবার চারটি ইউনিট ও দুটি উপ-ইউনিটে ৪ হাজার ৯২৬ জনকে ভর্তি করা হবে। এতে প্রতি আসনে ভর্তির জন্য গড়ে ৩৭ জন শিক্ষার্থী প্রতিযোগিতা করবে।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রার্থীদের ভর্তির আবেদন গ্রহণ শেষ হয়েছে ১১ মে। তবে আবেদন সংশোধনের সুযোগ থাকছে ১৮ মে পর্যন্ত। বিশ্ববিদ্যালয়ে ২২ জুন বি ইউনিটের মাধ্যমে শুরু হবে। ভর্তি পরীক্ষা শেষ হবে ৩০ জুন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের আইসিটি সেলের পরিচালক ড. মোহাম্মদ খাইরুল ইসলাম বলেন, বিজ্ঞান অনুষদ, জীববিজ্ঞান অনুষদ, ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদ এবং মেরিন সায়েন্সেস অ্যান্ড ফিজারিশ অনুষদের ‘এ ইউনিটে’ আবেদন জমা পড়েছে ৬৮ হাজার ১১১টি। এই ইউনিটে সাধারণ আসন সংখ্যা ১ হাজার ২১২ টি। প্রতি আসনের বিপরীতে আবেদন করেছেন ৫৬ জন শিক্ষার্থী। কলা ও মানববিদ্যা অনুষদ ‘বি’ ইউনিটে আবেদন জমা পড়েছে ৪২ হাজার ৬৬৯ জন শিক্ষার্থীর। এই ইউনিটে সাধারণ আসন সংখ্যা ১ হাজার ২২১ টি। সেই হিসাবে প্রতি আসনের বিপরীতে ৩৪ জন শিক্ষার্থী আবেদন করেছেন ।

এছাড়া কলা অনুষদভুক্ত 'বি-১'উপ-ইউনিটের মধ্যে নাট্যকলা, চারুকলা, সংগীত মিলিয়ে ১২৫টি আসনের বিপরীতে আবেদন পড়েছে ২ হাজার ২২০টি। এই উপ-ইউনিটে আসনপ্রতি পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১৬ জন।

ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদ ‘সি’ ইউনিটে আবেদন করেছেন ১৩ হাজার ৯১৮ জন শিক্ষার্থী। এই ইউনিটে ৪৪১টি সাধারণ আসনের জন্য প্রতি আসনে আবেদন জমা পড়েছে ৩১ জন শিক্ষার্থীর।

সমাজবিজ্ঞান অনুষদভুক্ত সকল বিভাগ, আইন অনুষদভুক্ত আইন বিভাগ,ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদভুক্ত সকল বিভাগ (উচ্চ মাধ্যমিকে বিজ্ঞান/মানবিক শাখা) এবং জীববিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ভূগোল ও পরিবেশবিদ্যা এবং মনোবিজ্ঞান বিভাগ ‘ডি’ ইউনিটে ১ হাজার ১৬০টি আসনের বিপরীতে আবেদনপত্র জমা পড়েছে ৫৪ হাজার ২৫০ টি। এই ইউনিটে আসন প্রতি শিক্ষার্থীর আবেদন ৪৬ জন।

এছাড়া সমাজবিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ডি-১’ উপ-ইউনিটে শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়া বিজ্ঞান বিভাগে আবেদন পড়েছে ২ হাজার ৯০২টি।৩০টি সাধারণ আসনের এই ইউনিটে প্রতি আসনের বিপরীতে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী ৯৬ জন।

এ বছরও ভর্তিতে মোট ১২০ নম্বরের মধ্যে মূল্যায়নের মাধ্যমে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে। এর মধ্যে বহুনির্বচনী পদ্ধতির ১০০ নম্বরের পরীক্ষা হবে। আর বাকি ২০ নম্বর নির্ধারণ করা হবে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে। তবে প্রতিটি ভুল উত্তরের জন্য ০.২৫ নম্বর কাটা হবে।

পরীক্ষায় সাধারণ আসনে ন্যূনতম পাস নম্বর হবে ৪০, কোটার আসনে ৩৫ নম্বর।

ভর্তি পরীক্ষা হবে এ ইউনিটে ২৮ ও ২৯ জুন, বি ইউনিটে ২২ ও ২৩ জুন, সি ইউনিটে ৩০ জুন, ডি ইউনিটে ২৪ ও ২৫ জুন, বি-১ও ডি-১ উপ-ইউনিটে ১ জুলাই অনুষ্ঠিত হবে। বি-১ ও ডি-১ উপ ইউনিটের ব্যবহারিক পরীক্ষা চারুকলা ইনস্টিটিউট ৫ জুলাই, নাট্যকলা ৬ জুলাই, সংগীত ৭ জুলাই, শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়া বিজ্ঞান ৮ ও ৯ জুলাই।

এফএ

RTV Drama
RTVPLUS