logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ০৫ মার্চ ২০২১, ২০ ফাল্গুন ১৪২৭

অমর একুশে পালনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মসূচি

অমর একুশে পালনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মসূচি

করোনা মহামারির কারণে এবার সবকিছু সীমিত পরিসরে করা হচ্ছে। মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালনেও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সীমিত পরিসরে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।

শুক্রবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে দিবসটি পালনের প্রস্তুতি পরিদর্শন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মো. আখতারুজ্জামান। বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দপ্তর থেকে পাঠানো প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

উপাচার্য আখতারুজ্জামান সাংবাদিকদের বলেন, সার্বিক প্রস্তুতি সন্তোষজনক। সবার প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি, করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে বাধ্যতামূলকভাবে মাস্ক পরিধান করে শহীদ মিনারে আসতে।

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার এবং আজিমপুর কবরস্থানে সর্বস্তরের জনসাধারণের শ্রদ্ধা নিবেদনের সব অনুষ্ঠানের ব্যবস্থাপনার দায়িত্ব বরাবরই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় পালন করে আসছে। এ বছরও যথাযোগ্য মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্যের সঙ্গে দিবসটি পালনের জন্য প্রয়োজনীয় কার্যক্রম পরিচালনা এবং সুষ্ঠুভাবে বাস্তবায়নের উদ্দেশ্যে একটি শক্তিশালী 'অমর একুশে উদযাপন কেন্দ্রীয় সমন্বয় কমিটি' এবং বিভিন্ন সাব-কমিটি দায়িত্ব পালন করছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে: উপাচার্য ভবনসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান প্রধান ভবনে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত রাখা ও কালো পতাকা উত্তোলন করা হবে। ২১ ফেব্রুয়ারি সকাল সাড়ে ৬টায় অপরাজেয় বাংলার পাদদেশ থেকে সীমিত পরিসরে একটি প্রভাতফেরি বের করা হবে। উপাচার্য প্রভাতফেরিতে নেতৃত্ব দেবেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট সদস্য, সিন্ডিকেট সদস্য, শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তা-কর্মচারীরা এতে অংশ নেবেন। প্রভাতফেরি সহকারে তারা আজিমপুর কবরস্থান হয়ে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে যাবেন এবং পুষ্পস্তবক অর্পণ করবেন।

এছাড়া বাদ জোহর অথবা সুবিধাজনক সময়ে বিশ্ববিদ্যালয় মসজিদুল জামিয়া, সব হলের মসজিদ এবং বিশ্ববিদ্যালয় আবাসিক এলাকার মসজিদসহ অন্যান্য ধর্মীয় উপাসনালয়ে ভাষাশহীদদের রুহের মাগফিরাত ও শান্তি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত ও প্রার্থনা করা হবে।

সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ও যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে প্রতিটি সংগঠন ও প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে সর্বোচ্চ পাঁচজন প্রতিনিধি ও ব্যক্তিপর্যায়ে একসঙ্গে সর্বোচ্চ দু'জন শহীদ মিনারে ফুল দিতে পারবেন।

এফএ

RTV Drama
RTVPLUS