logo
  • ঢাকা রোববার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭

দ্য ডিউক অব এডিনবার্গ ইন্টারন্যাশনাল অ্যাওয়ার্ড পেলেন গাজী আনিস

Gazi Anis received the Duke of Edinburgh International Award
দ্য ডিউক অব এডিনবার্গ ইন্টারন্যাশনাল অ্যাওয়ার্ড পেলেন গাজী আনিস
বিভিন্ন আত্মউন্নয়ন ও সেবামূলক কার্যক্রমের জন্য ডিউক অব এডিনবার্গ ইন্টারন্যাশনাল অ্যাওয়ার্ড পেলেন আনিসুর রহমান (গাজী আনিস)। ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির(ডিআইইউ) স্টুডেন্টস অ্যাফেয়ার্সের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক এই অ্যাওয়ার্ড প্রোগ্রামে অংশ নিয়ে তিনি অ্যাওয়ার্ড অর্জন করেন। 

সোমবার (১৬ নভেম্বর) ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি কর্তৃপক্ষ সনদ ও ব্যাজ হস্তান্তর করেন। 

এ সময় উপস্থিত ছিলেন ডিআইইউর প্রশাসনিক কর্মকর্তা ফাহমি হাসান, সাইকোলোজিস্ট বিলকিস খানম, প্রশাসনিক কর্মকর্তা এবং অ্যাওয়ার্ড লিডার মো. নাসিম হাওলাদার, সহকারী প্রশাসনিক কর্মকর্তা মো. কাওসার হামিদ।  

এ প্রসঙ্গে গাজী আনিস বলেন, আমি সব সময় সমাজের ইতিবাচক পরিবর্তনে কাজ করার চেষ্টা করি। এই পুরস্কার আমার কাজের গতি বাড়িয়ে দিলো। অদূর ভবিষ্যতে আরও অনেক সৃষ্টিশীল কাজে মনোযোগ দিতে পারব। আশা করি, অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে দ্রুত সামনের দিকে এগিয়ে যেতে পারব।

যুক্তরাজ্যভিত্তিক ডিউক অব এডিনবার্গ’স ইন্টারন্যাশনাল অ্যাওয়ার্ড ফাউন্ডেশন ব্রিটিশ রাজ পরিবারের দ্বারা পরিচালিত। এর যাত্রা শুরু ১৯৫৬ সালে প্রিন্স ফিলিপের হাত ধরে। বর্তমানে ১৪৪টির বেশি দেশে এই অ্যাওয়ার্ডের কার্যক্রম চলছে। এই কার্যক্রমের মাধ্যমে বিশ্বে তরুণদের লেখাপড়ার পাশাপাশি বিভিন্ন ক্ষেত্রে নেতৃত্ব, উদ্যমী, সাহসী, আত্মবিশ্বাসী এবং সামাজিক কাজে দক্ষতা বাড়িয়ে তুলতে সাহায্য করে। তরুণরা নিজ দেশে কাজ করার পাশাপাশি বিশ্বের মাঝে নিজ দেশকে পরিচিত করার সুযোগ পায়।

গাজী আনিস ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ থেকে স্নাতক শেষ করেছেন। বর্তমানে কাজ করছেন বেসরকারি টেলিভিশন আরটিভিতে। এছাড়া দেশের বৃহৎ সেচ্ছাসেবী সংগঠন প্রথম আলো বন্ধুসভার ঢাকা মহানগর কমিটির সাধারণ সম্পাদক তিনি। 

গাজী আনিসের বাড়ি সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার ভুরুলিয়া ইউনিয়নের রুদ্রপুর গ্রামে। ছেলেবেলা থেকেই সামাজিক সাংস্কৃতিক কাজের সঙ্গে যুক্ত তিনি। যুক্ত ছিলেন রোভার স্কাউটের সঙ্গে। দায়িত্ব পালন করেছেন সুন্দরবন স্টুডেন্টস সলিডারিটি টিমের সহ-সভাপতি হিসেবে। এজিং সাপোর্ট ফোরাম, ইয়্যুথ এগেইনস্ট হাঙ্গার, সোশ্যাল বিজনেস স্টুডেন্টস ফোরামসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বে ছিলেন তিনি।
জিএ/পি
 

RTVPLUS