Mir cement
logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

স্মার্টফোন শতভাগ চার্জ করলে কী ক্ষতি হয়?

স্মার্টফোন ব্যবহারে সময়ের সঙ্গে ব্যাটারির অবস্থা খারাপ হবে, সেটা স্বাভাবিক। তবে নিশ্চয় চান না সেটা দ্রুত হোক। স্মার্টফোন চার্জ করার ক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি যে সংশয় আমাদের মধ্যে দেখা যায় সেটি হলো, রাতভর ফোনে চার্জার লাগিয়ে রাখা কি ঠিক? কিংবা স্মার্টফোন শতভাগ চার্জ করার সঙ্গে সঙ্গে কি চার্জার খুলে ফেলতে হবে? চলুন আমরা আজ সে প্রশ্নেরই উত্তর খোঁজার চেষ্টা করি।

ফোন নির্মাতারা বলছে

স্মার্টফোন কবে তৈরি হয়েছে, কেবল সেটার ওপর ব্যাটারির আয়ুষ্কাল নির্ভর করে না। আরও অনেক ব্যাপার আছে। যেমন তাপমাত্রা অত্যধিক ওঠানামা করা কিংবা আপনার চার্জ করার ধরন। ফোনের লিথিয়াম-আয়ন ব্যাটারিগুলো বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে তুলনামূলক কম চার্জ ধারণ করে। সে কারণেই পুরোনো ফোনে দেখবেন সচরাচর চার্জ কম থাকে।

দীর্ঘক্ষণ চার্জ করার ব্যাপারে অ্যাপলের ভাষ্য হলো, আইফোন দীর্ঘ সময় পূর্ণ চার্জ অবস্থায় থাকলে ব্যাটারির ক্ষতি হতে পারে। অ্যান্ড্রয়েড-চালিত স্মার্টফোন তৈরি করে স্যামসাং। তারাও একই কথা বলে থাকে, ‘দীর্ঘ সময় ধরে কিংবা রাতভর আপনার ফোন চার্জারের সঙ্গে যুক্ত রাখবেন না।’ হুওয়ায়ের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ‘আপনার ফোনের ব্যাটারির চার্জের পরিমাণ যতটা সম্ভব মাঝামাঝি (৩০ থেকে ৭০ শতাংশ) রাখার চেষ্টা করুন, তাতে ব্যাটারির আয়ুষ্কাল বাড়বে।’

চার্জ পূর্ণ হলে নিজ থেকে ব্যাটারি চার্জ করা বন্ধ করে দেবে আপনার স্মার্টফোন। তবে কিছু কিছু ক্ষেত্রে ৯৯ শতাংশে নামার পর তা শতভাগ হতে আগের চেয়ে বেশি সময় নিতে পারে। আর এ ঘটনার বারংবার পুনরাবৃত্তি ব্যাটারির আয়ুষ্কাল কমে যায়।

আরও যে বিষয়গুলো মাথায় রাখতে পারেন

পুনরায় চার্জ করার জন্য ব্যাটারি শূন্যের ঘরে নামিয়ে আনার কোনো দরকার নেই। আপনার সুবিধামতো সময়ে চার্জ করুন। ব্যাটারি পার্সেন্টেজ নিয়ে বেশি দুশ্চিন্তা করার কোনো মানে হয় না।

ফোন যতটা সম্ভব ঠান্ডা রাখার চেষ্টা করুন। গরম হলে তা ব্যাটারির ওপরও প্রভাব ফেলে। সুতরাং চার্জ করার সময় বালিশের নিচে রাখবেন না। রোদে বা বেশি শীতল পরিবেশে রাখার ক্ষেত্রেও একই নিয়ম প্রযোজ্য। যে অ্যাপগুলো ফোন গরম করে, সেগুলোর ব্যবহারও কমিয়ে আনুন।

সূত্র : ইউএসএ টুডে।

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS