Mir cement
logo
  • ঢাকা শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ৭ কার্তিক ১৪২৮

গুগল ফটোসের সেরা পাঁচটি ফিচার

গুগল, ফটোসের, সেরা, পাঁচটি, ফিচার,
ছবি : সংগৃহীত

প্রযুক্তির এই সময়ে গুগল ফটোসের নাম কে না জানে। ছবি ও ভিডিও ব্যাকআপের জন্য গুগল ফটোসের কদর দিন দিন বাড়ছে। স্মার্টফোন, ল্যাপটপ ও ট্যাবলেটে প্রচুর ব্যবহৃত হচ্ছে অ্যাপটি। চলুন জেনে নেওয়া যাক, গুগল ফটোসের সেরা পাঁচটি ফিচার সম্পর্কে।

ফটো বা ভিডিও এডিট

গুগল ফটোসের সাহায্যে ফটো বা ভিডিও এডিট করা যায় সহজেই। এর মাধ্যমে ফাইলটির সময় ও তারিখ পরিবর্তন করা যায়। এ জন্য আপনাকে ফটো বা ভিডিওতে সোয়াইপ করতে হবে। এরপর ডান দিকের এডিট অপশনে যেতে হবে। পছন্দমতো এডিট করা শেষে সহজেই সময় ও তারিখ নির্ধারণ করে দিতে পারবেন আপনি। আর এ জন্য অবশ্যই আপনাকে অ্যাপটির আপডেটেড ভার্সন ইন্সটল করে নিতে হবে।

কোলাজ বা মুভি তৈরি

গুগল ফটোস ব্যবহার করে কোলাজ বা মুভি তৈরি করা যায়। অ্যাপটির ‘ইউটিলিটিস’ ম্যানুতে গেলে মুভি বা কোলাজ তৈরির অপশনটি পাওয়া যায়। এরপর পছন্দমতো ছবি বসিয়ে তৈরি করে নিন কোলাজ বা মুভি। তবে মুভিতে গুগল আপনাকে ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক যুক্ত করার সুজোগ দেবে। কোনো কারণে যদি তৈরি করার পর কোলাজ বা মুভিটি যদি আপনি ডিলিট করে দেন, তাহলে মূল ছবি ডিলিট হবে না।

মুছে ফেলা ছবি বা ভিডিও পুনরুদ্ধার গুগল ফটোস থেকে মুছে ফেলা ছবি বা ভিডিও পুনরুদ্ধার করা যায়। কারণ, ডিলিট করা ছবি বা ভিডিও কিছু দিনের জন্য ‘ট্র্যাশে’ গিয়ে জমা হয়। অ্যাপটির লাইব্রেরি বিভাগে গেলে ‘ট্র্যাশ’ অপশনটি পাওয়া যাবে। সেখান থেকে পুনরায় ডিলিট করা ছবি বা ভিডিও উদ্ধার করা যায়। তবে ‘ট্র্যাশ’ থেকে মুছে গেলে আর ফাইল পুনরুদ্ধার করা সম্ভব হবে না।

স্পেস বাড়ানো

গুগল ফটোসে যখন স্টোরেজ পূর্ণ হয়, তখন স্টোরেজ খালি করার প্রয়োজন হয়। আর খুব সহজেই আপনি অপ্রয়োজনীয় ছবি বা ভিডিও ডিলিট করে স্টোরেজ খালি করতে পারবেন। স্পেস খালি করতে আপনাকে অ্যাকাউন্ট সেটিংস> ব্যাক আপ এবং সিঙ্ক সেটিংস> ম্যানেজ স্টোরেজ- এই পদ্ধতি অনুসরণ করতে হবে।

আর্কাইভে ফটো স্থানান্তর

অ্যাপে থাকা ছবি বা ভিডিও গোপন করতে চাইলে সেগুলো আর্কাইভে স্থানান্তর করতে হবে আপনাকে। এ জন্য আপনাকে লাইব্রেরি> ইউটিলিটি> ফটো আর্কাইভ পদ্ধতি অনুসরণ করতে হবে।

এনএইচ/টিআই

মন্তব্য করুন

RTV Drama
RTVPLUS