Mir cement
logo
  • ঢাকা রোববার, ১৬ মে ২০২১, ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৮

মোস্তফা ইমরান রাজু, মালয়েশিয়া

  ১৬ এপ্রিল ২০২১, ১৪:৩০
আপডেট : ১৬ এপ্রিল ২০২১, ১৪:৪৯

বাংলাদেশ হাইকমিশনের 'জব পোর্টাল' বৈধকরণ প্রক্রিয়ায় মালয়েশিয়াকে সহযোগিতা করবে : হাইকমিশনার

Bangladesh High Commission's 'Job Portal' to assist govt in legalization process: High Commissioner
বাংলাদেশি হাইকমিশনার মো. গোলাম সারওয়ার

'চাকুরীর খোঁজ' নামে চালু করা জব পোর্টাল শ্রমিক বৈধকরণ প্রক্রিয়ায় মালয়েশিয়া সরকারকে সহযোগিতা করবে বলে মন্তব্য করেছেন দেশটির বাংলাদেশি হাইকমিশনার মো: গোলাম সারওয়ার।

বৃহস্পতিবার মালয়েশিয়ার মানবসম্পদ মন্ত্রী এই জব পোর্টাল চালু করায় হাইকমিশন দায়িত্বহীনতার পরিচয় দিয়েছে এমন বক্তব্যের জবাবে এ মন্তব্য করেন তিনি। দেশটির জনপ্রিয় অনলাইন দ্যা স্টার হাইকমিশনের বরাত দিয়ে এ খবর প্রকাশ করেছে।

হাইকমিশনার বলেন, বর্তমানে মালয়েশিয়ায় অবৈধদের বৈধতার সুযোগ চলছে। রিক্যালিব্রেশন নামে এ প্রক্রিয়া সফল করতে ইমিগ্রেশন ও পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের সঙ্গে একাধিক বৈঠক হয় হাইকমিশনের যেখানে চলমান বৈধকরণ প্রক্রিয়াকে সফল করতে সহযোগিতাও চাওয়া হয়। মূলত এ কারনেই জব পোর্টালটি চালু করা হয়েছে বলে মন্তব্য করেন হাইকমিশনার গোলাম সারওয়ার।

তিনি বলেন, অনেক মালয়েশিয়ান কোম্পানি’র মালিক রিক্যালিব্রেশন প্রক্রিয়ায় বৈধতার জন্য কাগজপত্রবিহীন বাংলাদেশীদের খুঁজে একত্রিত করার করার একটি উপযুক্ত পদ্ধতি চালু করার অনুরোধ জানায় হাইকমিশনকে। এর মাধ্যমে মালিক-শ্রমিকের সমন্বয়ক হিসাবে কাজ করবে। এ প্রক্রিয়ায় হাইকমিশন কোন তৃতীয় পক্ষও রাখেনি।

পোর্টালটি বাংলাদেশ হাইকমিশন তাদের দায়িত্ববোধ থেকে মালয়েশিয়ায় বসবাস করা বাংলাদেশীদের কল্যাণে চালু করেছে বলেও জানান হাইকমিশনার। এ সময় মানবসম্পদ মন্ত্রনালয়ের নিয়ম মেনে বাংলাদেশ থেকে নতুন করে শ্রমিক আনার ব্যাপারে খুব শিগগিরই একটি ফলাফল আসবে বলে আশাবাদ ব্যাক্ত করেন গোলাম সারওয়ার।

তিনি বলেন, চাকুরীর খোঁজ পোর্টালটি উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মালয়েশিয়ার শ্রম বিভাগের ডেপুটি ডিরেক্টর জেনারেল উপস্থিত ছিলেন। বাংলাদেশ থেকে যুক্ত ছিলেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীসহ সরকারের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

এর আগে বৃহ:স্পতিবার জব পোর্টাল চালু'র বিষয়ে হাইকমিশনের সমালোচনা করে মানবসম্পদমন্ত্রী এম সারাভানান বলেন, বাংলাদেশ হাইকমিশন এ বিষয়ে মানবসম্পদন মন্ত্রনালয়কে অবহিত করেনি। তারা দায়িত্বহীনতার পরিচয় দিয়েছে। বাংলাদেশ হাইকমিশনের এ কার্যক্রমে মালয়েশিয়ার ৪ শতাধিক বৈধ এজেন্সি ক্ষতিগ্রস্থ হবে বলেও মন্তব্য করেন মন্ত্রী।

টিএস

RTV Drama
RTVPLUS