আজ থেকে ওমরাহ হজ শুরু 

প্রকাশ | ০৪ অক্টোবর ২০২০, ১২:৩২ | আপডেট: ০৪ অক্টোবর ২০২০, ১৩:৫২

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, আরটিভি নিউজ
কাবা শরীফ

করোনাভাইরাসের কারণে সাত মাস বন্ধ থাকার পর আজ রোববার থেকে সীমিত পরিসরে শুরু হয়েছে পবিত্র ওমরাহ হজ। সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা এসপিএ’র বরাত দিয়ে রয়টার্স জানিয়েছে, প্রাথমিক অবস্থায় দেশটিতে বসবাসকারীরা ওমরাহ করতে পারবেন।

সৌদির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, করোনাভাইরাস পরিস্থিতির উন্নতি এবং ধর্মীয় এই আয়োজনের জন্য মুসলিম বিশ্বের আকাঙ্ক্ষার কথা বিবেচনায় রেখে এই সিদ্ধান্ত নেয়া। চারটি ধাপে ওমরাহ হজের সুযোগ উন্মুক্ত করা হবে।

প্রথম ধাপে, রোববার থেকে দেশটির নাগরিকরা ওমরাহ হজ পালন করতে পারবেন। তবে মোট ধারণ ক্ষমতার ৩০ শতাংশ মানুষ ওমরাহে অংশ নিতে পারবেন। অর্থাৎ প্রায় ৬ হাজার ব্যক্তি ওমরাহ হজ করতে পারবেন।

দ্বিতীয় ধাপে, ১৮ অক্টোবর থেকে ওমরাহকারীর সংখ্যা আরও বাড়ানো হবে। তখন গ্র্যান্ড মসজিদের ধারণ ক্ষমতার ৭৫ শতাংশ খুলে দেয়া হবে। অর্থাৎ প্রায় ১৫ হাজার হাজি হজে অংশ নিতে পারবেন।

তৃতীয় ধাপে, ১ নভেম্বর থেকে বিদেশিদের জন্য ওমরাহ করার সুযোগ উন্মুক্ত করা হবে। সেই সময় একেকবারে ২০ হাজার ব্যক্তি ওমরাহ করতে পারবেন। দিনে মোট ৬০ হাজার মানুষ ওমরাহ করার সুযোগ পাবেন।

চতুর্থ ধাপে, যখন করোনাভাইরাসের ঝুঁকি আর থাকবে না, তখন গ্র্যান্ড মসজিদের কর্মকাণ্ড পুনরায় স্বাভাবিক হয়ে যাবে।

আরব নিউজের প্রতিবেদন অনুযায়ী সৌদি আরবের হজ ও ওমরাহবিষয়ক  মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, অনুমতি পাওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে ৪২ হাজার ৮৭৩ জন সৌদি আরবের এবং বাকি ৬৫ হাজার ১২৮ জন সৌদি আরবে অবস্থান করা বিশ্বের বিভিন্ন দেশের নাগরিক।

গত ২৭ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হয় মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন ‘আই-টামারনা’র মাধ্যমে ওমরাহ হজ পালনের নিবন্ধন কার্যক্রম। নিবন্ধন শুরুর প্রথম কয়েক ঘণ্টার মধ্যে প্রথম ১০ দিনের ওমরাহ পালনের নির্ধারিত কোটা পূর্ণ হয়ে যায়।

ওমরাহ পালনের জন্য তিন লাখ ৯ হাজার ৬৮৬ আবেদন জমা পড়ে। এর মধ্যে অনুমতি দেয়া হয় এক লাখ আট হাজার ৪১ জনকে। ওমরাহ হজ পালনের জন্য আবেদনকারীদের মধ্যে ৩৫ শতাংশেরই বয়স ৬০ বছরের বেশি।

এ ছাড়া ৩১ থেকে ৪০ বছর বয়সী রয়েছেন ২৬ শতাংশ, ২০ থেকে ৩০ বছর বয়সী ১৭ শতাংশ এবং ৪১ থেকে ৫০ বছর বয়সী ১৪ শতাংশ। সবচেয়ে কম আবেদন করেছেন ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে, ৮ শতাংশ।

এদিকে ‘আইতামারনা’ নামের একটি অ্যাপ ব্যবহার করে ওমরাহ যাত্রীদের প্রবেশ ও দর্শনের ব্যাপারগুলো নিয়ন্ত্রণ করা হবে। হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয় এই অ্যাপটি চালু করেছে। এটি ব্যবহার করে স্বাস্থ্যগত তথ্য এবং হজযাত্রীদের ভ্রমণ সম্পর্কিত তথ্যাদি নজরদারি করা যাবে।

সৌদি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ওমরাহ হজে অংশ নিতে বা পবিত্র স্থানগুলোয় যারা যেতে চান, তাদের সবাইকে মাস্ক পরা, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখাসহ স্বাস্থ্য সতর্কতা বজায় রাখার প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা নিতে হবে।

জিএ