smc
logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ৫ কার্তিক ১৪২৭

বদলি-বাণিজ্য ও অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ জেলা শিক্ষা অফিসারের বিরুদ্ধে (ভিডিও)

  জয়পুরহাট প্রতিনিধি,আরটিভি নিউজ

|  ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৪:২১ | আপডেট : ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৪:৩৭
Saiful Islam
বদলি-বাণিজ্য ও অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ জেলা শিক্ষা অফিসারের বিরুদ্ধে
দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে, জয়পুরহাটে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগের সহকারী জেলা শিক্ষা অফিসার সাইফুল ইসলামের বিরুদ্ধে। ক্ষমতার অপব্যবহার করে বদলি-বাণিজ্য, ভুয়া বিল-ভাউচারের মাধ্যমে অর্থ আত্মসাৎসহ, নানা অপকর্মের তথ্য পাওয়া গেছে। এ বিষয়ে অভিযুক্ত কর্মকর্তা কথা বলতে না চাইলেও, প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন, জেলা শিক্ষা অফিসার।

মাত্র এক মাস চারদিন ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারের দায়িত্ব পেয়ে সুযোগের ষোল আনা অসৎ ব্যবহার করেছেন জয়পুরহাট জেলা প্রাথমিক সহকারী শিক্ষা অফিসার সাইফুল ইসলাম। ক্ষমতার অপব্যবহার করে, অর্থের বিনিময়ে ভুয়া স্মারক, স্মারকবিহীন মনগড়া চিঠির বলে, শিক্ষকদের পছন্দ মতো বদলি বা যোগদানের ব্যবস্থা করেন তিনি। এভাবে কমপক্ষে তিনি ১০ জনেরও বেশি শিক্ষকের ক্ষেত্রে সরকারি নিয়ম উপেক্ষা করে টাকার বিনিময়ে বদলি করার অভিযোগ ওঠে।

বদলি হওয়া মোলান রশিদপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোছা: ফারজানা জানান,আমাদের এ প্রিয় সার টাকা হলে সবকিছু করতে পারে। আমাকে আবেদনের ভিত্তিতে বদলি করানোর জন্য দশ হাজার টাকা দিতে বলেছিল।

শুধু বদলিই নয়, নতুন নিয়োগপ্রাপ্ত শিক্ষকদের অরিয়েন্টেশনের জন্য ভুয়া বিল-ভাউচার তৈরিসহ চেক জালিয়াতিরও অভিযোগ পাওয়া গেছে সহকারী এই জেলা শিক্ষা কর্মকর্তার বিরুদ্ধে।

জয়পুরহাট পৌর কমিউনিটি সেন্টারের পরিচালক সিরাজুল ইসলাম বলেন,জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারি মাস কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বা কোনো প্রাইমারি স্কুলে কোনো প্রোগ্রাম বা অনুষ্ঠান আমার সেন্টারে হয়নি।

জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ছুটি শেষে যোগদান করলেও, এখনো তিনি ভারপ্রাপ্ত শিক্ষা কর্মকর্তা হিসেবে দাপ্তরিক স্বাক্ষর অব্যাহত রেখেছেন। এমন অভিযোগও রয়েছে তার বিরুদ্ধে, তবে এ ব্যাপারে কোনো প্রকার বক্তব্য দিতে নারাজ অভিযুক্ত সাইফুল ইসলাম।

সবকিছু শুনে প্রশাসনিকভাবে ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দেন জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা। জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা এস এম তৌফিকুজ্জামান বলেন, যদি এক্ষেত্রে অনিয়ম হয়ে থাকে তবে আমি এগুলো খতিয়ে দেখব এবং বিষয়গুলো ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করব।

জয়পুরহাট জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা এস এম তৌফিকুজ্জামান ছুটিতে ছিলেন চলতি বছরের ২০ জানুয়ারি থেকে ২৩ ফেব্রুয়ারি। এসময় এ পদে ভারপ্রাপ্ত হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন সহকারী জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম।

এম

RTVPLUS
bangal
corona
দেশ আক্রান্ত সুস্থ মৃত
বাংলাদেশ ৩৯০২০৬ ৩০৫৫৯৯ ৫৬৮১
বিশ্ব ৪,০৩,৮২,৮৬২ ৩,০১,৬৯,০৫২ ১১,১৯,৭৪৮
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • অন্যান্য এর সর্বশেষ
  • অন্যান্য এর পাঠক প্রিয়