Mir cement
logo
  • ঢাকা মঙ্গলবার, ২২ জুন ২০২১, ৮ আষাঢ় ১৪২৮

মেনোপজ বিষয়ে নারী ও তার সঙ্গীর যা জানা দরকার

প্রতীকী ছবি

নারীকে নাকি সহজে বোঝা যায় না। আসলেই তাই! এ কারণেই হয় তো খুব কম সংখ্যক পুরুষরা নারীর মন জয় করতে পারেন। তবে আজকাল অনেকেই খুব সহজেই নারীকে বুঝতে পারেন। অবশ্য বুঝতে পারা উচিত। নারীর সঙ্গে সম্পর্ক গভীর করতে হলে তার সঙ্গে বোঝাপড়াও যে ভালো হওয়া উচিত। তাই অবশ্যই দুজনার দুজনাকে বুঝতে পারা উচিত।

আজকাল পুরুষের সঙ্গে সমান তালে এগিয়ে যাচ্ছে নারী। তবে নারীদের কষ্ট একটু বেশিই হয়। ঘর সামলানো ও অফিস- দুটোই সামলাতে হয় তাদের। এছাড়াও নারীদের ব্যক্তিগত কিছু সমস্যা থাকে। পিরিয়ড চলাকালীন বা এর আগে-পরে অসংখ্য পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হয়ে থাকে নারীদের। অধিকাংশ ক্ষেত্রেই কোমর ও পেট ব্যথা হয়ে থাকে। প্রকৃত অর্থে পিরিয়ড চলাকালীন বা আগে-পরে মহিলাদের শরীরে হরমোনের বেশ কিছু পরিবর্তন হয়ে থাকে। এর থেকেও যন্ত্রণাদায়ক মেনোপজ বা ঋতুজরা। ঋতুজরা হচ্ছে নারীদেহে নারী হরমোনজনিত ঘাটতির কারণে নিয়মিত হওয়া মাসিক চক্র একেবারেই বন্ধ হয়ে যাওয়া।

দীর্ঘকালীন প্রক্রিয়া : ঋতুজরা (মেনোপজ) একদিনে হয় না। এটি শুরুর আগের অবস্থাকে প্রিমেনোপজ বলা হয়। অনেক বছর আগে থেকে শুরু হয় এটি। যেমন পিরিয়ডের সময়ের মধ্যে পার্থক্যের হ্রাস বৃদ্ধি ঘটে। কখনো ১০ দিন আবার কখনো ১২০ দিন অন্তরও পিরিয়ড হয়ে থাকে। কখনো প্রবাহ কম আবার কখনো বেশি হয়। এসব হচ্ছে ঋতুজরার লক্ষণ। হরমোনের বিভিন্ন পরিবর্তনের সময় থেকে শুরু হয়। এতে মানসিক স্বাস্থ্যে প্রভাব পড়ে।

সমস্যা একার নয় : ঋতুজরার সমস্যা একার নয়। নারীর শারীরিক এবং মানসিক কষ্ট সমাধানে পুরুষের সহায়তা প্রয়োজন। ঋতুজরার সময় অনিয়মিত পিরিয়ড, বারবার ঘুম ভেঙে যাওয়া, কারণ ছাড়াই উদ্বেগ ইত্যাদি লক্ষণ দেখা দেয়। এ সময় নারীর পাশে থাকা খুব বেশি প্রয়োজন। সারাদিন আপনার সঙ্গিনীর খিটখিটে মেজাজের জন্য তিনি নিজে দায়ী নন। তার বিভিন্ন শারীরিক পরিবর্তনের জন্যই এমনটা হয়ে থাকে। তাই অল্প বয়স বা সম্পর্কের শুরু থেকে সঙ্গিনী বা বাড়ির নারীদের শারীরিক ও মানসিক যত্নের চেষ্টা করুন।

পৃথক পৃথক সমস্যা : পিরিয়ডের সময় যেমন একেক নারীর একক রকম সমস্যা দেখা দেয় ঠিক তেমনই ঋতুজরার সময়ও একের জনের শারীরিক সমস্যা একেক রকম হয়ে থাকে। এক্ষেত্রে কাউন্সিলরের সহায়তা নিতে পারেন।

পিরিয়ডের মতোই যন্ত্রণাদায়ক : স্ত্রীর শরীরের কষ্ট কখনোই বোঝা যায় না। যৌবনে পিরিয়ড চলার সময় অধিকাংশ নারীর ক্ষেত্রেই ভয়ানক কষ্টের উদ্রেগ হয়। প্রায় অনেক বছর ধরে চলে এটি। ঋতুজরা মানে পিরিয়ড থেমে যাওয়া। তার অর্থ এটা নয় যে, নারীর শরীরের কষ্ট দ্রুত লাঘব হয়।

শারীরিক পরিবর্তন : ঋতুজরার কারণে মাথা ব্যথা, শুষ্ক ভ্যাজাইনা, ওজন বৃদ্ধি, চুল পড়া বা সাদা হওয়ার মতো সমস্যা দেখা দেয়। এসময় নারীরা তাদের চেহারা নষ্ট হওয়া এবং অবসাদে ভুগতে থাকেন। অনেকে মুখে কিছু বলতে না পারলেও ছোট ছোট কারণেই কান্না শুরু করেন। এমন পরিস্থিতিতে নারী সঙ্গীকে ভালোবেসে কাছে টেনে নিন।

শরীর চর্চায় উৎসাহ : ঋতুজরার সময় নারী সঙ্গীকে শরীর চর্চায় উৎসাহ দিন। যেমন জিম বা সকালে হাঁটাহাঁটি করার মতো শারীরিক ব্যায়ামে তার সঙ্গী হয়ে উঠুন। তাকে বোঝার চেষ্টা করুন। তার মন ভালো রাখার চেষ্টা করুন। পুরুষ সঙ্গী হিসেবে এটা আপনার দায়িত্ব। সূত্র : ইন্ডিয়া টাইমস

এসআর/

RTV Drama
RTVPLUS