স্পা‘র ‘ব্যালেন্সড-লাইফ’ গল্প বিজয়ীরা ঘুরলেন মহামায়া লেক

প্রকাশ | ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ২০:২৬

আরটিভি অনলাইন রিপোর্ট
মহামায়া লেকে বিজয়ীরা।

‘ব্যালেন্সড-লাইফ’ গল্প প্রতিযোগিতার বিজয়ীরা সম্প্রতি মীরসরাই এর মহামায়া লেক ঘুরেছেন।

গত ২৫ ফেব্রুয়ারি বিজয়ীরা ঘুরতে যান তাদের বহুল কাঙ্ক্ষিত মহামায়া লেকে। 

‘ব্যালেন্সড-লাইফ’ গল্প প্রতিযোগিতার পুরস্কার হিসেবে এই আয়োজন করা হয়।  এই গল্প প্রতিযোগিতার ১৫ জন বিজয়ী ৩ দিন, ২ রাতের এই ভ্রমণের সুযোগ পায়। ভ্রমণের অংশ হিসেবে খৈয়াছড়া ঝর্ণা পরিদর্শন, মহামায়া হ্রদে কায়াকিং, ক্যাম্প ফায়ার, তাঁবুতে রাত্রিযাপন, মজার গেমসসহ নানান আয়োজনে অপরূপ সৌন্দর্য উপভোগ করেছে বিজয়ী দলটি।

‘ব্যালেন্সড-লাইফ’ গল্প প্রতিযোগিতার বিজয়ীরা আরটিভি অনলাইনকে বলেন, ছোট-বড় অসংখ্য পাহাড়ের মাঝখানে অবস্থিত মহামায়া লেকের অন্যতম আকর্ষণ পাহাড়ি ঝরনা। স্বচ্ছ পানির জলাধারের চার পাশ সবুজ চাদরে মোড়া এই লেকটি, যা আমাদের মন মুগ্ধ করে তুলেছে। আমাদের এমন একটি সুন্দর জায়গায় ভ্রমণের সুযোগ করে দেওয়ায় স্পাকে আন্তরিক ভাবে ধন্যবাদ জানাই।

‘ব্যালেন্সড-লাইফ’ গল্প প্রতিযোগিতা আয়োজকরা বলেন, কর্মব্যস্ত মানুষের মধ্যে ওয়ার্ক-লাইফ ব্যালেন্সের ধারণাকে উৎসাহিত ও উন্নীত করার জন্য আমরা ‘ব্যালেন্সড-লাইফ’গল্প প্রতিযোগিতা শুরু করি। এই গল্প প্রতিযোগিতার সেরা ১৫ জনকে নিয়ে আমরা চট্টগ্রামের মহামায়া লেক ঘুরে আসি। মানুষের জীবনেও কর্মজীবন আগে না ব্যক্তিগত জীবন আগে এ নিয়ে রয়েছে সংশয়। আবার অনেকেই সারাজীবন কেবল চিন্তা করেন কীভাবে তিনি ওয়ার্ক-লাইফ ব্যালেন্স করে জীবনটাকে উপভোগ করবেন। যখন কাজে ব্যস্ত হয়ে যান তখন নিজেকে আর সময় দেয়া হয় না, আবার সময় অপচয় করার মতো সময়ও কিন্তু কম নেই। এই ভাবে চলছে মানুষের জীবন। কিন্তু জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে ব্যস্ততার সাথে ব্যক্তিগত জীবনের মাঝে ওয়ার্ক-লাইফ ব্যালেন্সটা রক্ষা করা খুবই জরুরি। এ বিষয়ে সচেতনতা তৈরির জন্য স্পা সম্প্রতি এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করে।

জিএ