logo
  • ঢাকা বুধবার, ২২ জানুয়ারি ২০২০, ৯ মাঘ ১৪২৭

শীতে শিশুকে গোসল করাবেন কিভাবে?

লাইফস্টাইল ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ১১:২৯ | আপডেট : ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯, ১২:০৮
শীতে শিশুকে গোসল করাবেন কিভাবে?
মডেল: সাবিলা সারলিজ সাজ্জাদ

শীতে শিশুর ত্বকের কোমলতা ও ময়েশ্চারাইজার এর ভারসাম্য ঠিক রাখা একটি বড় চ্যালেঞ্জ। শিশুর ত্বক যেমন বড়দের ত্বক থেকে ভিন্ন ঠিক তেমনি শিশুর ত্বকের যত্ন নেওয়ার পদ্ধতিও ভিন্ন। শিশুর ত্বকের আর্দ্রতা বজায় রাখতে ও ঠাণ্ডার হাত থেকে রক্ষা করতে গোসলে ব্যবহার করুন কুসুম গরম পানি। তবে শীতকালে ২ বছরের কম বয়সী শিশুকে প্রতিদিন গোসল করানোর প্রয়োজন নেই। এক্ষেত্রে একদিন পর পর গোসল করালেই শিশুর ত্বক ভালো থাকবে।

শীতে শিশুকে কতদিন পর পর গোসল করাতে হবে, পানির তাপমাত্রা কেমন হবে, গোসলের সময় কিভাবে শিশুকে সামলাতে হবে, এমন বিষয়গুলো সম্পর্কে সঠিকভাবে জানার প্রয়োজন। কারণ না জানা থাকলে শিশুকে সামলাতে গিয়ে তার শরীরে ব্যথা লাগতে পারে। এছাড়া গোসলের সময় যেন কানে পানি না যায়, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। খুব বেশি সময় ধরে নবজাতককে পানিতে রাখা যাবে না। দুপুরের দিকে অর্থাৎ যখন রোদ বেশ ভালোভাবে থাকে তখনই নবজাতককে গোসল করানো ভালো। 

নবজাতককে কতদিন পর পর গোসল করাবেন?
শিশু বিশেষজ্ঞ ডা. কামরান উল বাসেত আরটিভি অনলাইনকে বলেন, প্রথমবারের মতো নবজাতকের গোসল করানো উচিৎ জন্মের অন্তত ৭২ ঘণ্টা পরে। অনেকে আবার ৭ দিন পর গোসল করান। মায়ের গর্ভে শিশু যে আরামদায়ক উষ্ণতায় থাকে তা থেকে দুনিয়াতে এসেই তাপমাত্রার সঙ্গে খাপ খাওয়ানোর জন্য তার একটু সময় লাগে, তাই এর আগে কাপড় ভিজিয়ে গা মুছিয়ে দেয়া যাবে। কিন্তু গোসল একেবারেই নয়। আর যেদিন গোসল করাচ্ছেন না সেদিন নরম কাপড় হালকা গরম পানিতে ভিজিয়ে স্পঞ্জ বাথ দিতে ভুলবেন না।

---------------------------------------------------------------
আরো পড়ুন: শীতে নবজাতকের যত্নে জেনে রাখা ভালো
---------------------------------------------------------------

শিশুর গোসলের পানি কতটুকু গরম হওয়া উচিৎ?
গোসলের পানি যেন খুব গরম না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। কুসুম-গরম পানি নিয়ে তাতে আপনার কনুই ডুবিয়ে দেখে নেবেন যে পানির তাপমাত্রা সহনীয় আছে কিনা। এর জন্য চাইলে ব্যবহার করতে পারেন থার্মোমিটারও, যেটা যে কোনো বেবি শপেই কিনতে পাওয়া যাবে।

শিশুর গোসলের সময় কিভাবে ধরবেন?
শিশুকে গোসলের সময় তার ঘাড় আর মাথা ধরে রাখতে হবে। এক হাতে দিয়ে ধরুন আর অন্য হাত দিয়ে পরিষ্কার করুন। তবে কোনোভাবেই শিশুকে একা বসিয়ে কোথাও যাবেন না। 

শিশুকে কি সাবান দিয়ে গোসল করাবেন?
সাবানের ক্ষার শিশুর কোমল ত্বককে শুষ্ক করে দিতে পারে। তাই যদি শুধু কুসুম-গরম পানি দিয়ে গোসল করাতে না চান, সাবানমুক্ত কোনো বডিওয়াশ বা শিশুদের উপযোগী ক্ষারমুক্ত সাবান ব্যবহার করতে পারেন।

শিশুর সঙ্গে কি মাও গোসল করবেন?
চাইলে বাথটাবে শিশুকে নিয়ে মা-ও গোসল করতে পারেন অথবা একটু বড় হলে একসঙ্গে শাওয়ারের নিচেও গোসল করতে পারেন। খেয়াল রাখতে হবে যেন শিশু নিরাপদে থাকে। কারণ যদি শিশুর মা ভিজে যান তাহলে ভেজা শরীরে পিছলে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে।

শিশুকে কি গোসলের পরে গায়ে মালিশ করবেন?
চাইলে গোসলের পরে শিশুকে হালকা ম্যাসাজ করতে পারেন। গোসলের সময় গান গাইতে পারেন, শিশুর সঙ্গে কথা বলতে পারেন, শোনাতে পারেন কোনো ছড়া। এতে গোসলের সময়টা যেমন আনন্দদায়ক হবে, তেমনি তার সঙ্গে আপনার সম্পর্কও হবে মধুর।

শিশুদের ত্বক খুবই স্পর্শকাতর। শুষ্ক মৌসুমে শিশুর বাবা-মাকে থাকতে হবে বিশেষ সতর্ক। মূল কথা হলো শীতে শিশুর ত্বকের বাড়তি যত্নের কোনো বিকল্প নেই।
এস/পি

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
  • লাইফস্টাইল এর সর্বশেষ
  • লাইফস্টাইল এর পাঠক প্রিয়