• ঢাকা মঙ্গলবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৮, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫

ডায়াবেটিস রোগীদের ফিজিওথেরাপি চিকিৎসা

লাইফস্টাইল ডেস্ক, আরটিভি অনলাইন
|  ০৩ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৮:১৭ | আপডেট : ০৩ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৮:৩৭
বর্তমানে বিশ্বে ডায়াবেটিস মহামারী আকার ধারণ করেছে। বিশ্বের প্রায় ১৫০ মিলিয়ন মানুষ ডায়াবেটিস রোগে আক্রান্ত। ২০২৫ সালের মধ্যে এ সংখ্যা দ্বিগুণ হতে পারে। ডায়াবেটিস আক্রান্ত রোগীদের তালিকায় বাংলাদেশ রয়েছে ১০ম স্থানে। প্রতিদিন ১০ জনের ২ জন ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হচ্ছে।

ডায়াবেটিস রোগীদের জীবনকে সচল রাখতে ফিজিওথেরাপি চিকিৎসার ভূমিকা অপরিসীম। অনেক ডায়াবেটিস রোগী আছে যাদের ওজন বেশি। এক্ষেত্রে তাদের ওজন কমানো বা নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য সুনির্দিষ্ট এক্সারসাইজ প্রয়োজন। ফিজিওথেরাপি চিকিৎসক এই চিকিৎসার এক্সারসাইজ প্রোগ্রাম প্রেসক্রাইব করে থাকে।

western ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য নিয়মিত এক্সারসাইজ খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কারণ, মিয়মিত শরীরচর্চা বা অনুশীলন ডায়াবেটিস বেড়ে যাওয়ার ঝুঁকি কমায়। রক্তে গ্লুকোজের পরিমাণ কমিয়ে গ্লুকোজ নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে। প্রতিদিন এক্সারসাইজ করলে হাড়ের ডেনসিটি বাড়ে এবং জয়েন্ট রিলেটেড বিভিন্ন সমস্যা দূর করে। এছাড়াও স্ট্রোক হওয়ার ঝুঁকি তিন ভাগের এক ভাগ কমে আসে।

প্রায়ই ডায়াবেটিস রোগীদের কিছু জটিলতা দেখা দেয়। যেমন-ডায়াবেটিক ফুট, নিউরোপ্যাথি, পায়ে জ্বালা-পোড়া, অ্যাডহেসিভ ক্যাপসুলাইটিস, জয়েন্ট ব্যথা ইত্যাদি। এই সমস্ত জটিলতা কমাতে বা চিকিৎসার ক্ষেত্রেও ফিজিওথেরাপি চিকিৎসার বিকল্প নেই।

ফিজিওথেরাপিউটিক এক্সারসাইজ এর পাশাপাশি প্রয়োজন সঠিক ডায়েট প্লান। যেসব খাবারে গ্লুকোজ লেবেল বাড়িয়ে দেয়, সেসব খাবার এড়িয়ে চলতে হবে এবং যেসব খাবার খেলে ব্লাড গ্লুকোজ লেবেল নিয়ন্ত্রণ থাকবে ওইসব খাবার খেতে হবে। যারা ব্যথায় ভুগছেন তারা কিছু খাবার যেমন চিনি, লবণ, সাদা আটা, সাদা চাল, দুগ্ধ জাতীয় খাবার আইসক্রিম, পনির, ফাস্টফুড, কোল্ডড্রিংকস, কৃত্রিম জুস, ইত্যাদি পরিহার করুন। ঘি বা মাখন কম খান। প্রচুর পানি পান করুন। ২৪ ঘণ্টায় অন্তত ৮ ঘণ্টা ঘুমান। ধূমপান বর্জন করুন।

ফিজিওথেরাপি ইজ মেডিসিন ফর টুডে এন্ড টুমরো, এক্সারসাইজ ইজ মেডিসিন ফর টুডে এন্ড টুমোরো। ফিজিওথেরাপি পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াহীন যুগান্তকারী চিকিৎসা ব্যবস্থা যা আপনার জীবনকে গতিময় করে তোলে এবং মানসিকভাবে প্রশান্তি এনে দেয়। ডায়াবেটিস কোনও ভীতি নয়, সঠিক চিকিৎসা নিন ও নিয়মিত এক্সারসাইজ করুন, সুস্থ থাকুন।

লিখেছেন: 
প্রফেসর ডা. আলতাফ সরকার
মাস্কুলোস্কেলিটাল ডিজঅর্ডারস বিশেষজ্ঞ

ডি/এমকে

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়