• ঢাকা শনিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮, ১ পৌষ ১৪২৬

পূজায় আকর্ষণীয় সাজ পেতে কী করবেন

লাইফস্টাইল ডেস্ক
|  ১৪ অক্টোবর ২০১৮, ২১:১২ | আপডেট : ১৪ অক্টোবর ২০১৮, ২১:৪০
ছবি : লুক@মি
আকাশে ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে তুলার মতো মেঘ। মেঘের সঙ্গে তাল মিলিয়ে প্রতিনিয়ত প্রকৃতি সাজছে অপরূপ রঙে। আর রোদের অপরূপ খেলা ছুঁয়ে যাচ্ছে হৃদয়। কাশফুলের বনে বাতাসের দোলায় দুলে প্রকৃতিতে ছড়িয়ে পড়ছে শারদীয় উৎসবের বার্তা। এ যেন এক অপরূপ আনন্দের বার্তা। কিছুদিন পর আশীর্বাদ নিয়ে আগমন করবেন মা দুর্গা। ঢাক ঢোলের বাদ্য দিয়ে দেবীর আগমনের সেই আনন্দ বার্তাকে বরণ করে নিতে ব্যস্ত হয়ে উঠবে সবাই। দেবীকে বরণ করতে আপনিও অংশ নেবেন, তাই সাজ হওয়া চাই আকর্ষণীয়।

আকর্ষণীয় পূজার সাজ পেতে কী করবেন, চলুন জেনে নিই-   

western হাউজগুলোতে বেশি বেশি ঢুঁ মারুন

মহালয়ার মাধ্যমে দেবীর আগমনের যে বার্তা ছড়িয়ে পড়ে সপ্তমীর দিনে, অঞ্জলী দিয়ে বরণের মাধ্যমেই শুরু হয় এর মূল আয়োজন। এরই মধ্যে শারদীয় দুর্গোৎসবের প্রস্তুতি প্রায় শেষ। চলছে দুর্গা প্রতিমার রূপ অনেক স্থানে ফুটে উঠেছে। সেই সঙ্গে চলছে পূজার সাজে নিজেকে সাজানোর পরিকল্পনাও। আর, এই সাজে পূর্ণতা এনে দিতে ফ্যাশন হাউজগুলো নিয়ে এসেছে ‘পূজা কালেকশন-২০১৮’। ঐতিহ্য-আধুনিকতার সঙ্গে বাঙালিয়ানার মিশেল দিয়ে তৈরি করা হয়েছে অনেক সাজপোশাক। এছাড়া অনেক হাউজ পূজার পোশাকে বাঙালির ঐতিহ্য ধরে রেখে যোগ করেছে সমকালীন বৈশ্বিক চল। পছন্দের ড্রেস কেনার এখনই সময়। অন্যদের কেনা শেষ বলে  হতাশ হবেন না, সব শ্রেণির ক্রেতার জন্য আলাদা পোশাক আছে। আপনারটা আপনার জন্যই রয়েছে। বিভিন্ন হাউজগুলোতে ঢুঁ মারুন, দেখতে দেখতে আকর্ষণীয় কিছু পেয়ে যাবেন।

একাধিক পোশাক কিনুন

একসময় পূজার সাজ বলতে দোকানে দোকানে শোভা পেত শাড়ি। তবে আবহাওয়ার পরিবর্তন ও নাগরিক ব্যস্ততার প্রভাবে এখন পোশাকের চাহিদা বেশি। পাশাপাশি, পাঁচ দিনের উৎসব হওয়ায় পূজায় ক্রেতারা সাধারণত একই সঙ্গে ভিন্ন ভিন্ন ধরনের পোশাক চান। কেউবা প্রতিদিনের জন্য আলাদা পোশাক বরাদ্দ রাখেন। আপনি চাইলে একাধিক পোশাক কিনতে পারেন। এক্ষেত্রে    আপনার পোশাকের তালিকায় স্পেশাল কয়েকটি পোশাক থাকবে। প্রশংসা করে কেউ কেউ বলবেন, তোর এ পোশাকটা সুন্দর, কিন্তু আমার না ঐটা বেশি ভালো লেগেছে। এক সেট পোশাক থাকলে কারও কারও ভালো নাও লাগতে পারে।

ইউনিক কিছু বাছাই করুন  

পূজার রঙ বলতে আমরা লাল ও সাদাকেই জানি। কিন্তু এখন সে ধারনায় পরিবর্তন এসেছে। আপনি ইউনিক কিছু বাছাই করুন। পূজা উপলক্ষে বিভিন্ন হাউজে শোভা পাচ্ছে লাল-সাদার বাইরে নীল, সবুজ, হলুদ, কমলা, বেগুনি, খয়েরি ও কালো রঙে পোশাক। সিল্ক, রেয়ন, সাটিন, শিফন, লিনেন, কটন ও ভয়েল ইত্যাদি আরামদায়ক কাপড়ে এসব পোশাকে বিভিন্ন ফ্লোরাল মোটিফ, মিরর ওয়ার্ক, অ্যাম্ব্রয়ডারি ও রুচিশীল সিলৌটির সঙ্গে নকশা ফুটিয়ে তুলতে প্রিন্টিং, মিক্সড মিডিয়া ও কন্ট্রাস্ট স্টিচিং ব্যবহার করা করা হচ্ছে। আপনি বরং নিজের ডিজাইনে ব্যতিক্রম কোনো সাজে নিজেকে উপস্থাপন করতে পারেন।

পোশাকের সঙ্গে ত্বককে গুরুত্ব দিন   

শুধু পোশাক নিয়ে ভাবলে চলবে না পাশাপাশি ত্বকের যত্নেও নজর রাখতে হবে। সারাদিন পূজা মণ্ডপে মণ্ডপে  আর আত্মীয়-স্বজনের বাড়িতে ঘুরতে ঘুরতে ত্বকের উপর অনেক চাপ পড়ে। তাই উৎসবের আমেজের সঙ্গে নিজের সাজের মিল রাখতে হবে। বিভিন্ন প্রাকৃতিক উপাদান দিয়ে রূপ চর্চা করতে পারেন। উৎসবের দিনের ব্যস্ততার কথা ভেবে দিনে হালকা সাজ আর রাতের বেলা ভারী ও গর্জিয়াস সাজ নেয়া যেতে পারে। প্রয়োজনে আগে থেকেই বিউটিশিয়ানের সঙ্গে সাক্ষাত করে পরামর্শ নিতে পারেন। সাজসজ্জার জন্য একজন মেকআপ আর্টিস্টের শিডিউল বুক করতে পারেন।

আরও পড়ুন :

জিএ / জেএইচ

  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়