logo
  • ঢাকা সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১, ৬ বৈশাখ ১৪২৮

লাইফস্টাইল ডেস্ক, আরটিভি নিউজ

  ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১১:৩১
আপডেট : ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১১:৪৮

৬ স্বভাব বৈশিষ্ট্যে চেনা যাবে ভদ্র মানুষ!

ভদ্রতা বলতে সাধারণত একজন মানুষের মূল্যবোধ, সহানুভূতিশীল, সুবিবেচক, নম্র, সৌহার্দশীল, শান্তশিষ্ট ও ইতিবাচক গুণাগুণকে বুঝানো হয়ে থাকে। গ্রীকের দার্শনিক এরিস্টেটলের মতে, ভদ্র হচ্ছেন সেই ব্যক্তি যিনি রাগের ব্যাপারে মধ্যম পন্থা অবলম্বন করেন অর্থাৎ তিনি যেমন অল্পতে রাগন্বিত হবেন না আবার একদম রাগ-দুঃখবিহীনও না। তার অবশ্যই রাগ থাকবে তবে তা যুক্তিগত এবং নিয়ন্ত্রণের মধ্যে।

আরও পড়ুন: যে পাঁচ লক্ষণ দেখেই বুঝবেন সঙ্গী পরকীয়ায় আসক্ত

প্রতিদিনই মানুষকে অফিস বা বাসার কাজে ব্যস্ত থাকতে হয়। এই চলাফেরায় মানুষের আচার-ব্যবহার ও অন্যান্য স্বভাব বৈশিষ্ট্য দেখে বুঝা যায় কোন মানুষটি ভদ্র ও নম্র। এবার তাহলে ভদ্র মানুষদের স্বভাব-বৈশিষ্ট্য ও কিছু ইতিবাচক আচার-ব্যবহার সম্পর্কে জেনে নেয়া যাক-

দরজায় নক করা : কারও বাড়িতে বা বাসায় যাওয়ার পর সরাসরি ঘরে বা রুমে প্রবেশের আগে দরজায় আওয়াজ করা উচিত। ভেতরে যত প্রিয় বা আপন মানুষই থাকুক না কেন এটি ভদ্রতা ও ভালো চরিত্রের গুরুত্বপূর্ণ অংশ বহন করে। পরিবারের একদম ছোট সন্তানকেও এই নিয়ম অনুসরণ করার অভ্যাস গড়ে তুলুন।

রাস্তায় চলাফেরা : শহরে জীবনযাপনে অনেক সময়ই পায়ে হেঁটে পথ চলতে হয়। একা হাঁটলে ভালো। হাঁটার সময় নির্ধারিত লেন দিয়ে হাঁটা উচিত এবং সঙ্গে কেউ থাকলে অবশ্যই পাশাপাশি অবস্থানে হাঁটবেন না। এতে সামনে থেকে বা পেছন থেকে যারা হাঁটছেন তাদের সমস্যা হয়।

আরও পড়ুন: সুন্দরীদের মন পেতে চান? মুখস্ত রাখুন এই ১৫ লাইন

ফোন করা : কারও বাসা-বাড়িতে বেড়াতে যাওয়ার আগে তাকে অবশ্যই ফোন করে নিশ্চিত করুন। অন্যথায় আপনার হঠাৎ করে তার বাসায় চলে যাওয়াতে বিব্রতকর অবস্থায় পড়তে পারে। কাউকে প্রয়োজনে ফোন করলে অবশ্যই তাকে দুবারে বেশি ফোন করবেন না। ফোন করলে কণ্ঠ শুনে নিশ্চিত হয়ে সম্পর্ক অনুযায়ী সম্বোধন করে কথা বলুন।

অফিস-আদালত : কর্মস্থলে একসঙ্গে কাজের সময় সহকর্মীদের সঙ্গে একটু খোলামেলা বা ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক হতেই পারে। তবে তাদের সঙ্গে কথা বলার সময় কখনোই ব্যক্তিগত কোনও বিষয়ে কথা বলা উচিত নয়। আবার এমন কথাও বলা উচিত নয় যাতে সে কষ্ট পায়। কাজের সময় সিনিয়র সহকর্মী বা কোনও কর্মকর্তা কিছু বললে কর্মচারী হিসেবে শুনুন। অফিসের নিয়ম অনুযায়ী আপনার যা দায়িত্ব তা ঠিকভাবে পালন করুন।

কথা বলা : কথা বলার আগে অন্তত একবার ভাবুন এবং তারপর কথা বলুন। একবার যদি ভুল করেও কষ্টদায়ক কথা বলে ফেলেন তাহলে কিন্তু সেই কথা আর ফিরিয়ে নেয়া সম্ভব নয়। তাই কথা বলার আগে ভেবে বলুন। কাউকে দেখে তার পোশাক সুন্দর, এতটুকু বলাতেই সীমাবদ্ধ থাকুন। এরপর পোশাকটির দাম কত, কোথায় থেকে কিনেছেন এসব প্রশ্ন করবেন না।

বন্ধু-বান্ধব : বন্ধু-বান্ধবদের সঙ্গে চলা ফেরার সময়, কথা বলার সময় ব্যক্তিগত আঘাত করবেন না। তাদের সঙ্গে দুষ্টুমি করাই যেতে পারে তবে তা সীমার মধ্যে রাখবেন। আবার খুব বেশি কথা বলে কাউকে বিরক্তও করবেন না।

সর্বদা সত্য কথা বলা ও সততার দ্বারা ইতিবাচক কাজ করাই হচ্ছে মানুষের শ্রেষ্ঠ গুণাগুণ। এই দুটো গুণ থাকলে মানুষ তার সুন্দর চরিত্রের জন্য সকলের কাছে উদাহরণ ও আদর্শ হয়ে উঠতে পারেন।

সূত্র : দ্য স্পার্স, উইকি হাউ ও জব ক্লাস্টার

এসআর/

RTV Drama
RTVPLUS