logo
  • ঢাকা সোমবার, ০৮ মার্চ ২০২১, ২৩ ফাল্গুন ১৪২৭

এক গ্লাস দুধ পানেই বদলে যাবে জীবন!

Drinking a glass of milk will change your life!
এক গ্লাস দুধ পানেই বদলে যাবে জীবন

সম্পূর্ণ খাদ্য হিসেবে পরিচিত দুধ। এতে প্রোটিন, ফ্যাট, ক্যালোরি, ক্যালসিয়াম, ভিটামিন-ডি২, বি১২, পটাশিয়াম, ফসফরাস এবং সেলেনিয়াম জাতীয় উপাদান খাবারের গুণকে আরও বাড়িয়ে তোলে। দুধ হালকা গরম করে খাওয়ার ফলে এর বৈশিষ্ট্যগুলো আরও বৃদ্ধি পায়। প্রতি এক কাপ হালকা গরম দুধে ১২ গ্রাম প্রাকৃতিক চিনি থাকে। যা শরীরের পেশী এবং মস্তিষ্ককে শক্তিশালী করে তোলে। এছাড়াও ১৮ গ্রাম সম্পূর্ণ প্রোটিন এবং অ্যামিনো অ্যাসিড রয়েছে। যাদের ঘুমে সমস্যা তারা নিয়মিত দুধ পান করলে বদলে যেতে পারে জীবন। ঘুম ভালো না হলে সারাদিন এর রেশ থেকে যায়। এবার নিয়মিত দুধ পানের জাদুকরী উপকারিতা জেনে নেয়া যাক-

রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণ : রাতে ঘুমানোর আগে মিষ্টি ছাড়া এক কাপ দুধ হালকা গরম করে পান করুন। নিয়মিত এভাবে দুধ পান করার ফলে রক্তে শর্করার মাত্রা নিয়ন্ত্রণে ভালো ফল পাওয়া যায়। যাদের রক্তে শর্করায় ওঠানামা রয়েছে তাদের অবশ্যই নিয়মিত এই প্রক্রিয়া অনুসরণ করা উচিত।

ভালো ঘুমে সহায়তা : হালকা গরম দুধ মন ও শরীরকে শিথিল করে। রাতে বৈশিষ্ট্যগুলো আগে এক গ্লাস গরম দুধ পান করে ঘুমালে অনেক ভালো ঘুম হয়। মূলত ট্রিপটোফেন নামক পদার্থের উপস্থিতির জন্যই এমনটা ঘটে।

ওজন নিয়ন্ত্রণে সহায়তা : শোয়ার আগে এক গ্লাস গরম দুধ পানের ফলে পেট দীর্ঘক্ষণ ভরা থাকে। এতে মাঝরাতে অস্বাস্থ্যকর স্ন্যাকস থেকে দূরে থাকতে সুবিধা হয়। আর স্ন্যাকসের কারণেই মানুষের স্বাস্থ্য অতিরিক্ত বেড়ে যায়।

মহিলাদের হাড় মজবুত : গরম দুধ পান করলে পুষ্টি বাড়ে। দুধ গরম করার ফলে এনজাইমগুলো সক্রিয় হয়ে উঠে এবং শরীরে ভালোভাবে মিশে। ফলে হাড়ের ঘনত্ব অনেক উন্নত হয়। যাদের হাড় সংক্রান্ত রোগ যেমন অস্টিওপেনিয়া, অস্টিওপোরোসিস এবং ফ্র্যাকচারজনিত সমস্যা রয়েছে তারা নিয়মিত গরম দুধ পান করতে পারেন। এতে হাড়জনিত রোগ হ্রাস পাবে।

দাঁতের ক্ষয়রোধ ও শক্ত করা : অনেকেরই দাঁতের জন্য মুখ থেকে দুর্গন্ধ ছড়ায় ও দাঁতে ক্ষয় হতে থাকে। নিয়ম করে গরম দুধ পান করলে এ সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব। দাঁত শক্তিশালী হবে এবং দাঁত ক্ষয়ে যাওয়ার ঝুঁকি অনেক কমে যাবে। কেননা, দুধে বায়োঅ্যাক্টিভ উপাদান রয়ছে যা অণুজীবকে বৃদ্ধিতে বাধার সৃষ্টি করে।

গরম দুধকে সুস্বাদু করার উপায় : দুধকে হালকা গরম করার পর যখন এতে হালকা কিছু মসলা মেশাবেন তখন এর স্বাদ আরও বৃদ্ধি পাবে। গরম দুধের সঙ্গে দুই চিমটি হলুদ মেশালে হজম ভালো হবে। আদা ও দারুচিনির মতো হলুদেও উপকারী অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে। এ উপাদানটি প্রদাহ দূর করে থাকে। সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া

এসআর/পি

RTV Drama
RTVPLUS