logo
  • ঢাকা সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১, ৬ বৈশাখ ১৪২৮

নিয়মিত টমেটো-শসা খাওয়ার উপকারিতা

ছবি: সংগৃহীত

টমেটো এবং শসা দুটোই সুস্বাদু ও পুষ্টিকর খাবার। সবজি হিসেবে পরিচিত হলেও এই দুটো কাঁচা অবস্থায় খাওয়া যায়। খাবারের স্বাদ বৃদ্ধির জন্য টমেটো-শসার বিকল্প কিছু নেই। সালাদ কিংবা সবজি হিসেবে তরকারিতে বেশ ভালো মানায় এ দুটো। নিয়মিত টমেটো-শসার সালাদ খাওয়ার উপকারিতা রয়েছে অনেক। উদ্ভিদবিজ্ঞানের সংজ্ঞানুসারে শসা একটি ফল। ফুল থেকে হওয়া শসায় বীজ থাকে। তবে যাইহোক, এর উপকারিতা সম্পর্কে জেনে নেয়া যাক এবার।

আঁশ সমৃদ্ধ শসায় ভিটামিন রয়েছে এবং এতে থাকা পানি খাবার হজমে সহায়তা করে। নিয়মিত শসা খাওয়ার ফলে পাচনতন্ত্র সুস্থ থাকে এবং যাদের কোষ্ঠকাঠিন্য সমস্যা রয়েছে তা দূর হয়।

শসায় থাকা ভিটামিন-কে এবং ক্যালসিয়াম শরীরের হাড়কে মজবুত করে তোলে। ভিটামিন-কে হাড়ের ক্ষয়রোগের ঝুঁকি কমায় এবং শরীরে ক্যালসিয়াম শোষণে সহায়তা করে। ভিটামিন-বি১, ভিটামিন-বি৫ এবং ভিটামিন-বি৭ রয়েছে শসায়। নিয়মিত শসা খাওয়ার ফলে এসব উপাদান মানুষের উদ্বেগ ও মানসিক চাপ কমাতে কার্যকরী ভূমিকা রাখে।

ফসফরাস উপাদানটি হরমোন নিয়ন্ত্রণকারী মূল পুষ্টি যোগায়। সবুজ এই সুস্বাদু সবজি বা ফলে প্রায় চার শতাংশ ফসফরাস রয়েছে যা সকল প্রাপ্ত বয়স্কদের জন্যই প্রয়োজনীয়। প্রতিদিন খাদ্য তালিকায় শসা রাখলে কদিন পর নিজেই শসা খাওয়ার উপকারিতা বুঝতে পারবেন।

এদিকে টমেটো নিয়মিত খাওয়ার ফলে মুখের সৌন্দর্য ঠিক থাকে এবং চেহারা থেকে বয়সের ছাপ দূর হয়। টমেটোর রস মুখের ত্বক মসৃণ ও কোমল রাখে। মানুষের বয়স বৃদ্ধির সময় মুখে বয়সের চাপ পড়ে, কিন্তু নিয়মিত টমেটো খাওয়ার ফলে সেই ছাপ ধীরে ধীরে মুছে যায়।

উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণেও ভূমিকা রাখে টমেটো। নিয়ম করে প্রতিদিন সকালে খালি পেটে যদি শুধু টমেটো খাওয়া যায় তাহলে ইতিবাচক উপকার পাওয়া যায়। এছাড়াও রক্তস্বল্পতা দূরীকরণেও সহায়তা করে টমেটো।

এসআর/এম

RTV Drama
RTVPLUS