logo
  • ঢাকা সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১, ৬ বৈশাখ ১৪২৮

ক্যানসার প্রতিরোধে বেগুনের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা

বেগুন শীতকালীন সবজি হওয়ার পরও আমাদের দেশে বছরের প্রায় সময়ই বেগুন পাওয়া যায়। ভিটামিন-এ সমৃদ্ধ এই সবজি স্বাস্থ্যের জন্য প্রচুর উপকারী। প্রতি ১০০ গ্রাম বেগুনে ২৫ কিলোরি থাকে। আঁশ সমৃদ্ধ এই সবজি খাওয়ার ফলে শরীরে ওজন বাড়ার কোনো সম্ভাবনা নেই বললেই চলে। এছাড়াও এই সবজিতে ভিটামিন-বি, ভিটামিন-বি৬, রিবোফ্লাভিন, নায়াসিন এবং থায়ামিন উপাদান রয়েছে। নিয়মিত বেগুন খাওয়ার ফলে শরীরে ‘মেটাবোলিজম’ সক্রিয় রাখে। এতে করে ভালো হজম হয় এবং শরীরে কোনা মেদ জমে না।

হৃদপিণ্ডের রক্ষক : ফাইটোকেমিকল অ্যান্থোসায়ানিনস সমৃদ্ধ এই সবজি আমাদের হৃদয়ের রক্ষণাবেক্ষণের কাজ করে। এতে পটাশিয়ামের পরিমাণ বেশি থাকে এবং সোডিয়ামের পরিমাণও তুলনামূলক অনেক কম। নিয়মিত বেগুন খাওয়ার ফলে রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে এবং বেগুনে থাকা ক্লোরোজেনিক অ্যাসিড শরীরের ক্ষতিকর কোলেস্টেরল হ্রাস করে।

ক্যানসার প্রতিরোধ : বেগুন খাওয়ার ফলে শরীরে ক্যানসার প্রতিরোধক বৃদ্ধি পায়। কেননা, অ্যান্থোসায়ানিনস এবং ক্লোরোজেনিক অ্যাসিড মানব দেহের ক্যানসার নিরাময়ে বেশ কার্যকরী ভূমিকা রাখে।

ডায়াবেটিস প্রতিরোধ : আঁশ সমৃদ্ধ এই সবজিতে কম পরিমাণে দ্রবণীয় শর্করা থাকে। বছরজুড়ে পাওয়া এই সহজলভ্য সবজি খাওয়ার ফলে দ্রবণীয় শর্করা ডায়াবেটিস প্রতিরোধে বিশেষ ভূমিকা পালন করে।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি : ক্ষারধর্মী খাবারের মধ্যে বেগুনও একটি। এই সবজি খাওয়ার ফলে পরিপাক তন্ত্রের অম্ল ও ক্ষারের ভারসাম্য ঠিক থাকে এবং শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা সক্রিয় থাকে।

স্মৃতি শক্তি মজবুত হয় : স্মৃতি শক্তি দীর্ঘদিন প্রখর করে তুলতে প্রতিদিনের খাবার তালিকায় অবশ্যই বেগুন রাখুন। বেগুনে থাকা ফাইটোনিউট্রিয়েন্ট উপাদান মস্তিষ্কের কোষগুলো নষ্ট হওয়া থেকে সুরক্ষা করে এবং এতে করে স্মৃতিশক্তি মজবুত হয়। তবে এ জন্য বেগুনের বাইরের খোসা অবশ্যই রাখতে হবে।

সূত্র : হেলথ লাইন

এসআর/এম

RTV Drama
RTVPLUS