logo
  • ঢাকা শনিবার, ১০ এপ্রিল ২০২১, ২৭ চৈত্র ১৪২৭

ত্বকের যত্নে যেভাবে কাজ করে ভাতের মাড়

ভাতের মাড়

ভাত রান্নার পর সাধারণত সকলেই ভাতের মাড় ফেলে দিয়ে থাকেন। কিন্তু এই ভাতের মাড়ের উপকারীতা সম্পর্কে জানলে আর কখনোই তা ফেলে দেবেন না আপনি। এই মাড়ের হাজারো ব্যবহারগুণ রয়েছে, যা হয়তো বলে শেষ করা যাবে না। বিশেষত রূপচর্চায় অনেক কার্যকরী ভূমিকা রাখে ভাতের মাড়। তাই এখনই এর ব্যবহার জেনে নেওয়া উচিত আপনার।

ত্বকের স্বাস্থ্য রক্ষার্থে মাড়ের ব্যবহার অনস্বীকার্য। ভাতের মাড় ত্বকের জলীয় ভাব বজায় রাখে। অর্থাৎ একে ময়েশ্চারাইজার হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন। এই মাড় দিয়ে ত্বক ধুয়ে নিলে ত্বক পরিষ্কার হয়। ফলে ত্বকের উজ্জ্বল্য বাড়ে। স্কিন বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ত্বকের বলিরেখা দূর করার জন্য ভাতের মাড়ের কোনো বিকল্প নেই। নিয়মিত ব্যবহারের ফলে চোখের ডার্কসার্কেলও দূর হয়।

মুখে ব্রণ হলে মাড় লাগালে ভালো সাড়া পাওয়া যায়। চুল ঠিক রাখার জন্য কন্ডিশনার হিসেবে অনেকে ভাতের মাড় ব্যবহার করার কথা বলে থাকেন। প্রথমে ভাতের মাড় ভালো করে পানি দিয়ে মিশিয়ে হালকা পাতলা করে নিন। শ্যাম্পু করার পর সেই মাড় গোলা জল দিয়ে চুল ভালো করে ধুয়ে নিন। চুলের ডগা ফেটে গেলে সহজেই সেই সমস্যা দূর হয়।

চুলের গোড়া মজবুত রাখার জন্য এর কোনো জুড়ি নেই। ত্বকে যাদের জ্বালা, চুলকানি ও লালচে ভাব হয় তাদের জন্য ভাতের মাড় অনেক উপকারী। এ জন্য ভাতের মাড় পানি দিয়ে মিশিয়ে গোসল করুন। একইভাবে ত্বকে লাগালে ত্বক থেকে বয়সের ছাপ দূরে রাখা যায়। এমনকি পিগমেন্টশেনও দূর করতে পারে।

এসআর/এম

RTV Drama
RTVPLUS