logo
  • ঢাকা রোববার, ২৪ জানুয়ারি ২০২১, ১০ মাঘ ১৪২৭

শীতকালে ঠাণ্ডা না গরম পানিতে গোসল করবেন?

শীতকাল সবার পছন্দের ঋতু হলেও দুটি ক্ষেত্রে সমস্যা হয়। প্রথমত সকাল বেলা আরামের ঘুম ছেড়ে বিছানা থেকে ওঠা এবং দ্বিতীয়ত গোসল করা। যাদের ঠাণ্ডা রয়েছে তারা ভেবে থাকেন গোসল করলেই শীত আরও জেঁকে বসবে। এমন পরিস্থিতিতে গোসলের ক্ষেত্রে অনেকে পানি গরম করে নেন। কিন্তু এই গরম পানি স্বাস্থ্যের জন্য কতটা উপকারী। পাঠকদের জন্য নিচে এ বিষয়ে তুলে ধরা হলো-

গরম পানিতে গোসলের অভ্যাস ক্ষতিকর: শীতকালে অনেক মানুষই গরম পানি দিয়ে গোসল করেন। বিশেষজ্ঞদের মতে, অতিরিক্ত গরম পানিতে গোসল করার অভ্যাস শরীরের জন্য ক্ষতিকর। গোসলের পানির তাপমাত্রা অতিরিক্ত বেশি হলে ত্বকের ফলিকগুলো নষ্ট হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। এতে করে চুল ও ত্বক রুক্ষ হয়ে যায়। এছাড়াও নিয়মিত গরম পানি দিয়ে গোসলের অভ্যাসের ফলে হজমের সমস্যাও হয়। এমনকি মুখে ব্রনের সৃষ্টি হয়ে থাকে।

তাপমাত্রায় সতর্কতা: গবেষকরা বলছেন, নিয়মিত গোসল করা সামাজিক রীতি বা অভ্যাসের মতো। নিয়মিত গোসল করলে অবশ্য শরীর পরিচ্ছন্ন রাখা সম্ভব। তবে গরম পানি দিয়ে গোসলের ক্ষেত্রে তাপমাত্রায় একটু বেশিই নজর দেওয়া উচিত। ঠাণ্ডা পানি দিয়ে গোসলে যদি ঠাণ্ডা লাগার সম্ভাবনা থাকে তাহলে পানি হালকা গরম করে নেওয়া যেতে পারে। অন্যথায় সর্দি হতে পারে। আবার যাদের পা ব্যথা, ঘাড়ে ব্যথা রয়েছে তাদের জন্য হালকা গরম পানিতে গোসল উপকারী। যাদের হাঁপানির সমস্যা রয়েছে তারা ঠাণ্ডা পানিতে গোসল করবেন। এক্ষেত্রে সবসময় চিকিৎসকের পরামর্শকে গুরুত্ব দেওয়া উচিত।

কার্ডিওভাসকুলার সমস্যা: সহনীয় গরম পানিতে সপ্তাহে তিনদিন কোনো অয়েল মিশিয়ে গোসল করলে ক্যালোরি কমে। এ জন্য জিমে স্টিম বাথের ব্যবস্থা করা হয়ে থাকে। তবে আপনি যদি সুস্থ থাকেন তাহলে গোসলে গরম পানির ব্যবহার একদম এড়িয়ে চলুন। সপ্তাহে তিনদিন ঠিক আছে কিন্তু সঙ্গে স্পঞ্জ করতে পারেন। এর ফলে শরীর ভালো থাকবে। যাদের হৃদরোগের সমস্যা রয়েছে তারা নিয়মিত গরম পানি দিয়ে গোসল করবেন না। এতে করে কার্ডিওভাসকুলারের সমস্যা বৃদ্ধি পাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

সহনীয় গরম পানিতে গোসল: শীতে একদম ঠাণ্ডা পানিতে গোসলের ফলে সর্দি-কাশি, টনসিলের সমস্যা ও বাতের মতো সমস্যা আরও বেড়ে যায়। স্নায়ুর সমস্যাও হয়। তাই ঠাণ্ডা পানিতে হালকা পরিমাণ মতো গরম পানি মিশিয়ে সহনীয় করে নিন। হালকা গরম পানিতে বছরজুড়ে গোসলে কোনো সমস্যা নয়। প্রচণ্ড গরম বা ঠাণ্ডা পানিতে গোসল করলে শারীরিক বিভিন্ন সমস্যার সৃষ্টি হয়। বিশেষজ্ঞদের মতে, শরীরের পেশির রিল্যাক্সেশনের জন্য সহনীয় গরম পানিতে গোসল করা উপকারী। এতে শরীরের রক্ত চলাচলের বৃদ্ধি করে এবং অনিদ্রাজনিত সমস্যা দূর হয় এবং সর্দি, কাশি বা টনসিলের উপশম কেটে যায়।

এসআর/এম

RTV Drama
RTVPLUS