কেমন যাবে মেষ রাশির ২০২১ সাল?

প্রকাশ | ৩১ ডিসেম্বর ২০২০, ১৫:৩৮

জ্যোতিষ শাস্ত্রী ফকির ইয়াসির আরাফাত

চর অগ্নি রাশি মেষের জাতক-জাতিাকারা সর্বদাই কর্তৃত্বকামী ও নেতৃত্বের গুণের অধিকারী। যাদের জন্ম রাশি বা লগ্ন বা চন্দ্ররাশি মেষ সকলেই অস্থির প্রকৃতির। কারণ এটি চর অগ্নি রাশির গৃহ। কখনো ভেঙে পড়েন না। জীবন যুদ্ধে আপনি এক সৈনিক। রণ ক্লান্তি আপনার মধ্যে নেই। বেশির ভাগ সময়েই সব কিছুকে প্রাধান্য দিতে গিয়ে নিজের উদ্দেশ্য থেকে দূরে সরে যান। যা এ বছর কম হবে। নিজের রাগ জেদ ও কর্তৃত্বকামীতাকে কৌশলে বাস্তবায়ন করতে হবে। বছরের শুরুতে রাশিপতি মঙ্গলের রাশিতে অবস্থান প্রথম দুই মাস কাজের ক্ষেত্রে রাগ জেদ ও ঘনঘন অস্থিরতা ভোগাবে।

এ বছর মেষ রাশির জাতক-জাতিকার ঋণ থেকে সাবধান হতে হবে। গোপন বিনিয়োগে অর্থ ক্ষতির আশঙ্কা।

শরীর স্বাস্থ্য: বছরের শুরুতেই রাশিপতি মঙ্গলের রাশিতে অবস্থানের কারণে শারীরিকভাবে বছরটি আপনার জন্য শুভ। বছরের মাঝামাঝি ছোট খাটো অস্ত্রোপচারের সম্মুখীন হতে হবে। শরীর চর্চার প্রতি আগ্রহ আপনাকে ব্যায়ামাগারের দুয়ারে টেনে নিয়ে যাবে।

টাকা পয়সা: বছরটি আয় রোজগার ও সঞ্চয়ের জন্য মঙ্গলময়। বিগত বছরের তুলনায় এ বছর বহু উৎস থেকে টাকা পয়সা রোজগার করতে পারবেন। চাকরি হোক বা ব্যবসা, মধ্যস্থতা হোক বা ঠিকাদারি আয়ের ধারা সচল থাকবে ও আপনার ব্যাংক ব্যালেন্স বৃদ্ধি পাবে। বছর শেষে প্রত্যাশিত টাকা সঞ্চয় করতে পারবেন। বৈদেশিক অর্থ লাভের বছর।

যোগাযোগ: এ বছর যোগাযোগের বছর। ব্যবসায়ীক ও ব্যক্তিগত যোগাযোগ বাড়ার পাশাপাশি, গণমাধ্যমে কাজের সুযোগ আসতে পারে। নিজের প্রচার প্রচারণা, লেখালেখি বা বই প্রকাশের জন্য ২০২১ আপনাকে সাহায্য করবে। অনলাইন ভিত্তিক গণমাধ্যমে বা পণ্য ক্রয় বিক্রয়ে আশাতীত লাভের বছর।

গৃহ সুখ শান্তি ও যানবাহন: গৃহ সুখের জন্য বছরটি হবে মিশ্র। পরস্পর বিরোধী দুটি গ্রহের দৃষ্টির কারণে আত্মীয়স্বজন ও পরিবার পরিজনের সঙ্গে দ্বন্দ্ব সংঘাতে জড়িয়ে যাওয়ার বছর। স্থাবর সম্পত্তি ও যানবাহন লাভের চেয়ে হানি হবে। বছরের মধ্যভাগে কোনো নিকটাত্মীয় বিয়োগ যাতনা সহ্য করার আশঙ্কা। প্রাপ্তি আর প্রত্যাশায় রয়ে যাবে বড় ফারাক।

প্রেম ভালোবাসা: এ বছর প্রেম ভালোবসায় সতর্ক হতে হবে। আপনার দূর্বল মূহুর্তে কারো প্রতি আকর্ষণ আপনার বিচ্ছেদ যাতনার কারণ হয়ে উঠবে। তাই ভালোবাসার মানুষটি নির্বাচনে ভুল হলেই সব শেষ। এ বছর বিদ্যার্থীদের জীবনে স্বাভাবিক পড়াশোনা আরম্ভ হবে বছরের প্রথম দিকেই। নিঃসন্তানদের সন্তান লাভ ও শিল্পীদের সাফল্য প্রত্যাশিত।

রোগ ব্যাধি ও শত্রু: ২০২১ সালে রোগ ব্যাধি ও শত্রুর ওপর পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ বজায় রাখতে সফল হবেন। শুভ বৃহস্পতির দৃষ্টির প্রভাবে পুরোনো ব্যাধি ও শত্রুর হাত থেকে পরিত্রাণের সময়। রাহুর প্রভাবে পায়ে কোমরে পতন জনিত চোট কিছুটা ভোগাবে। অনৈতিক প্রণয়ের কারণে কর্মজীবন ও সামাজিক জীবন হবে ক্ষতিগ্রস্ত।

জীবন সাথী: বছরের পর বছর ধরে প্রত্যাশিত জীবন সাথীর জন্য যারা অপেক্ষা করছেন তাদের জন্য বছরটি বিবাহ করে নতুন জীবন শুরু করার। অংশীদারি জীবনে প্রেম ভালোবাসার অভাব থাকবে না। ব্যবসা বাণিজ্যে বছরের শুরুতে কিছু জটিলতা থাকলেও বছরের মধ্যভাগ থেকে বাণিজ্যে আপনার তরী তরতর করে এগিয়ে যাবে।

ঋণ বা নিধন: এ বছর অশুভ কেতুর অবস্থানের কারণে ঋণের জালে জড়িয়ে যাওয়ার আশঙ্কা প্রবল। গোপন কোনো বিনিয়োগে পুঁজি হারাতে পারেন। আত্মীয়স্বজন ও বন্ধু বান্ধবকে ধার দেওয়া থেকে বিরত থাকতে হবে, তা না হলে সম্পর্ক হবে নষ্ট। সিদ্ধান্ত আপনার। বছরের মধ্যভাগে আর্থিক সঙ্কট হবে প্রবল। তাই ধার কর্জের আশঙ্কা।

ভাগ্য উন্নতি বা বিদেশ যাত্রা: মেষ রাশির জাতক-জাতিকার এ বছর ভাগ্য উন্নতিতে কিছু বাধা বিপত্তি মোকাবিলা করতে হবে। উচ্চ শিক্ষাই হোক বা জীবিকা বিদেশ যাত্রার পথ হয়ে পড়বে দুর্গম। প্রতিকারে কিছুটা ভালো ফল পেতে পারেন। ধর্মীয় বা আধ্যাত্মিক ভ্রমণের ক্ষেত্রে বৈশ্বিক মহামারি প্রধান বাধা হয়ে দাঁড়াবে।

কর্ম জীবন : ২০২১ সাল কর্ম জীবনে সাফল্যের বছর। যত বাধা বিপত্তিই আসুক না কেনো কাঙ্ক্ষিত পদোন্নতি আপনার হবেই। প্রয়োজনে নতুন করে কোথাও চাকরি হবে। বেকারদের জীবনে ২০২১ সাল আশীর্বাদ স্বরূপ। সামাজিক, সাংগঠনিক কিংবা রাজনৈতিক সকল ক্ষেত্রেই আপনার সুনাম সম্মান ও মর্যাদা বৃদ্ধি পাবে। রাজনৈতিক উচ্চাভিলাষ পূরণে সফল হবেন।

আয় রোজগার: এ বছর আপনার আয় রোজগারের জন্য মিশ্র। বছরের শেষ দিকে অবশ্য আশানুরূপ আয় রোজগার হবে। বন্ধুদের সঙ্গে হতে পারে মনস্তাত্ত্বিক লড়াই। বড় ভাই বোনের সঙ্গে ভুল বোঝাবুঝি আসন্ন। সোজা পথের চেয়ে বক্র পথেই আপনার আয় রোজগার বৃদ্ধি পাবে।

বিদেশ বাস বা ভ্রমণ: বছরের শুরুতে ভ্রমণের যোগ প্রবল। দেশের অভ্যন্তরেই হোক বা বিদেশে এ বছর ভ্রমণে অর্থ ব্যয় বৃদ্ধি পাবে। মুক্ত হতে পারবেন আইনগত জটিলতার হাত থেকে। প্রবাসী জীবনে কর্মে সাফল্য ও স্বীকৃতি লাভের সময়। গৃহ-সংস্কার নির্মাণে অর্থ ব্যয় হবে।

গ্রহ প্রতিকূলতা পরিহারে অভিজ্ঞ জ্যোতিষীর পরামর্শক্রমে রক্তপ্রবাল ধারণ করতে পারেন।

সকলের সাফল্য কামনায় আপনাদের জ্যোতিষ।

প্রয়োজনে  ০১৭১৬-৬০৮০৮২

এম