যে কারণে ঘরের কাজে শিশুদের যুক্ত করা উচিৎ

প্রকাশ | ০২ অক্টোবর ২০২০, ১৮:৪৭ | আপডেট: ০২ অক্টোবর ২০২০, ১৯:৩৩

লাইফস্টাইল ডেস্ক, আরটিভি নিউজ
সন্তানের সঙ্গে মা

অনেকে মনে করেন শিশুদের শৈশবটা হেসে খেলে উপভোগ করতে দেওয়া উচিৎ। তাইতো ঘরের কাজে শিশুদের যুক্ত করেন না তারা। তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বাড়ির কাজে বড়দের হাতে হাতে সাহায্য করুক শিশুরাও, কিছু কাজ ওরাও শিখুক। এতে ছোট থেকে শিশুদের মধ্যে আত্মবিশ্বাস ও আত্মনির্ভরতা বাড়ে।

যা করবেন 

একসঙ্গে জামা কাপড় ভাঁজ করুন

শিশুদের সঙ্গে ওদের মতো করে মেশার চেষ্টা করুন। গল্প করুন। সেই সঙ্গে বাচ্চাকে বোঝান নির্ভুল কাজের দরকার নেই। কিন্তু ওরা যে খুব ভালো কাজ করেছে সেটার প্রশংসা করুন। আপনার প্রশংসা ওকে আরও ভালো কাজের উৎসাহ দেবে।

খেলনা গুছিয়ে রাখুক শিশুরা

শিশুরা ছড়িয়ে ছিটিয়ে খেলবে এটাই নিয়ম। এতে কখনও বাধা দেবেন না। বরং বলবেন খেলা হলে নিজেকে সব খেলনা গুছিয়ে রাখতে হবে। কিংবা বাড়ির শোকেজে নিজেই গুছিয়ে রাখবে। এতে যেমন গুছিয়ে রাখার অভ্যাস তৈরি হবে তেমনই মাথারও বিকাশ ঘটবে। বাড়বে সাধারণ জ্ঞান।

শিশুর মধ্যে দায়িত্ববোধ গড়ে তুলুন

এই লকডাউনে অনেকে বাড়িতে নিজের কাজ নিজেরাই সেরেছেন। বালিশের কুশান কভারগুলো পরানো থেকে শুরু করে জানালার ধুলো ঝাড়া কিংবা ফ্লোর মুছেছেন। এসব কাজে সঙ্গী করুন ছোট বাবুকেও। কিংবা পছন্দের ক্রিম, লোশনের বোতল দিয়ে বলুন সব একটু নিজের মতো করে গুছিয়ে রাখতে। কখনও বলবেন না ইস এটা কেন তুমি ভেঙে ফেললে। বরং দুজনে মিলে একটা টিম তৈরি করে কাজ করুন।

খুব সহজেই কিছু পাওয়া যায় না

শিশু জেদ করলেই ওর হাতে দামি খেলনা বা পছন্দের জিনিস তুলে দেবেন না। বরং শেখান সব কিছু কষ্ট করে অর্জন করতে হয়। শিশুকে কোনও একটা কাজ দিন। বলুন এই কাজ ভালো করে করলেই মিলবে পুরস্কার। এভাবে ছোট ছোট কাজে মাঝেমধ্যে উপহার দিন। 

সূত্র- এই সময় 

জিএ