বিপদমুক্ত থাকতে যে পাঁচটি বদভ্যাস ত্যাগ করবেন 

প্রকাশ | ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৮:৩৬ | আপডেট: ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১:২১

লাইফস্টাইল ডেস্ক, আরটিভি নিউজ
প্রতীকী ছবি

করোনার এই সংকটময় সময়ে আমরা অতি সাবধানতার সঙ্গে চলছি। এতে হয়তো কেউ কেউ করোনা থেকে মুক্ত হবো ঠিকই তবে আমাদের অতীতের কিছু  বদভ্যাসই ডেকে আনতে পারে বিপদ। তাই নিজেকে সুস্থ রাখতে আজই বদলান ওই অভ্যাসগুলো।

যে সব অভ্যাস ত্যাগ করা উচিত- 

আপনি বাথরুমের কমোডের মুখ ঢাকা না দিয়ে কি ফ্লাশ করেন? আমেরিকান জার্নাল অব ইনফেকশন কন্ট্রোলের বিশেষজ্ঞদের মতে, এইে বদভ্যাসের চেয়ে আর কিছুই হতে পারে না। কারণ ঢাকনা বন্ধ না করে ফ্লাশ চাপলে জীবাণুকে চতুর্দিকে ছড়িয়ে পড়তে সাহায্য করে। পানি ফ্লাশ করার সঙ্গে সঙ্গে ভাইরাসের দখলে চলে আসতে পারে আপনার বাথরুম। তাই আজই এই অভ্যাস ত্যাগ করুন। 

অনেকের আছে কলম চিবনোর অভ্যাস। ওই কলমে তখন থুতু লেগে জীবাণু ছড়ায়। কলমটি অন্য কেউ হাত নিলে ভাইরাস তার কাছে চলে যেতে পারে।

রান্নাঘরের ব্যস্ততার মাঝে হাতের কাছে ছুরি কিংবা কাঁচি খুঁজে পাচ্ছেন না? অমনি দুধের প্যাকেট দাঁত দিয়ে ছিঁড়লেন। এই কাজ করা মানেই ভাইরাসকে অন্যান্যদের শরীরে ছড়িয়ে পড়ার জন্য সাহায্য করা। হাজার ব্যস্ততা থাকলেও এই কাজ করবেন না।

থালা-বাসন মাজার জন্য একই স্পঞ্জ বহুদিন ধরে ব্যবহার করছেন? মনে রাখবেন, খাওয়াদাওয়া করার পর থালা-বাসন বেশি পরিষ্কার থাকা প্রয়োজন। তাই সুস্থ থাকতে সপ্তাহে কিংবা ১৫ দিন পর পর  স্পঞ্জ বদল করুন।

আপনার বাচ্চার কি খেলনা মুখে দেওয়ার অভ্যাস আছে? আজই বদলানোর চেষ্টা করুন। আর যতদিন না সে নিজে সাবধান হচ্ছে ততদিন তার খেলনা পরিষ্কার করে ধুয়ে নিন। যাতে খেলনা মুখে দিলেও ভাইরাস শরীরে প্রবেশ করতে না পারে।

সূত্র- এই সময়। 

জিএ